২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ৮ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

প্রাথমিক টেটে নিয়োগের স্থগিতাদেশকে চ্যালেঞ্জ, মামলা গড়াল আদালতের ডিভিশন বেঞ্চে

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: March 3, 2021 7:16 pm|    Updated: March 3, 2021 7:18 pm

Primary teachers' council appeals to the division bench of Calcutta HC on stay order of recruitment of Primary TET |SangbadPratidin

শুভঙ্কর বসু: প্রাইমারি টেট (Primary TET) নিয়ে মামলা গড়াল কলকাতা হাই কোর্টের (Calcutta HC) ডিভিশন বেঞ্চে। নিয়োগে অস্বচ্ছতার অভিযোগে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় স্থগিতাদেশ দিয়েছিল আদালতের সিঙ্গল বেঞ্চ। সেই স্থগিতাদেশকে চ্যালেঞ্জ করে বুধবার ডিভিশন বেঞ্চে মামলা দায়ের করল প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। এদিন ডিভিশন বেঞ্চে মামলাটি গৃহীত হয়েছে। আগামী সপ্তাহে শুনানির সম্ভাবনা।

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ মেনে ২ মাসের মধ্যেই প্রাথমিক টেটে শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া শুরু করার জন্য তড়িঘড়ি নথিপত্র সংগ্রহ করে ফলপ্রকাশ করে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। গত ১৬ ফেব্রুয়ারি ১৬,৫০০ শূন্যপদের মধ্যে প্রথম ধাপে ফল প্রকাশ করা হয় ১৫,২৮৪ জনের। সেইমতো শুরু হয় নিয়োগ। বেশ কয়েকজন হাতে নিয়োগপত্র পেয়ে স্কুলের চাকরিতেও যোগ দেন। কিন্তু নিয়োগে অস্বচ্ছতা রয়েছে, এই অভিযোগ তুলে চাকরিপ্রার্থীদের একাংশ কলকাতা হাই কোর্টে মামলা দায়ের করে। তার জেরে গোটা প্রক্রিয়ায় স্থগিতাদেশ জারি করে আদালত। যার জেরে চাকরিতে যোগ দিয়েও অনিশ্চয়তায় পড়ে বহু শিক্ষকের ভবিষ্যৎ। আদালতের স্থগিতাদেশের পর তাঁদের বেতন বন্ধ করা নিয়েও প্রাথমিকভাবে নির্দেশিকা জারি করা হয়। কিন্তু ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই সেই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারও করা হয়।

[আরও পড়ুন: পুলিশি জুলুমের প্রতিবাদ! দমদম-নাগেরবাজার রুটের অটো বন্ধ, বিপাকে যাত্রীরা]

সেই স্থগিতাদেশকে চ্যালেঞ্জ করেই এবার আদালতের ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। সেই মামলা গৃহীত হয়েছে বলে খবর। আসলে এই নিয়োগের সঙ্গে জড়িয়ে প্রায় ১৬ হাজার চাকরিপ্রার্থীর ভবিষ্যৎ। নিয়োগ প্রক্রিয়ায় স্থগিতাদেশ দেওয়ার অর্থ যাঁরা ইতিমধ্যে স্কুলের শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেছেন, তাঁদেরও ভবিষ্যৎ বিশ বাঁও জলে পড়ে যাওয়া। কারণ, হাই কোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চের স্থগিতাদেশে সেই নিয়োগই বাতিল। পাশাপাশি, যোগ্যতা থাকলেও অন্যান্য প্রার্থীরা চাকরি পাওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন স্রেফ আইনি জটিলতায়। তাই তার নিষ্পত্তি চেয়ে ডিভিশন বেঞ্চে গেল প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। সদস্যদের আশা, বিষয়টির দ্রুত মীমাংসা করে চাকরিপ্রার্থীদের অনিশ্চয়তা কাটাতে উদ্যোগী হোক উচ্চ আদালত।

[আরও পড়ুন: নির্বাচনী বিধি ভঙ্গের অভিযোগ, কৈলাসের বিরুদ্ধে কমিশনের দ্বারস্থ ফিরহাদ হাকিম]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে