২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৯ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের দেশের সেরার শিরোপা পেল রাজ্যের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। কিউএস ইন্ডিয়া র‌্যাংকিংস ২০২০ (QS India Rankings 2020) অনুযায়ী দেশের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তকমা পেল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় ও যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। সেরার তালিকায় এক নম্বরে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় এবং দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। এর আগে প্রকাশিত তালিকা অনুযায়ী কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় ছিল একাদশ স্থানে এবং যাদবপুর দ্বাদশ স্থানে। মঙ্গলবারই এই খবর টুইট করে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন টুইট করার পাশাপাশি রাজ্যের এই সাফল্যে খবরে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন মমতা। তিনি লিখেছেন, ‘কিউএস ইন্ডিয়া র‌্যাংকিং ২০২০-তে সরকারি সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে কলকাতা ও যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় যথাক্রমে প্রথম ও দ্বিতীয় স্থান পেয়েছে। এই খবর ভাগ করে নিতে পেরে আমি খুবই খুশি। প্রত্যেককে আমার আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভ কামনা।’ প্রসঙ্গত, বিভিন্ন সময়ে পড়াশোনার মান নিয়ে খোঁচা শুনতে হয়েছে যাদবপুরকে। দেশদ্রোহীদের আখড়া বলে দাগিয়ে দেওয়া হয়েছে ঐতিহ্যবাহী এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে। পঠনপাঠনের বদলে ছাত্র রাজনীতির পীঠস্থান হিসাবে তকমা সেঁটে দেওয়া হয়েছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের গায়েও। সেই পরিস্থিতিতে এই খবর রাজ্যের শিক্ষাব্যবস্থার জন্য অত্যন্ত সম্মানের তা বলা বাহুল্য।

[আরও পড়ুন: অভিজিতে অভিভূত মোদি, নোবেলজয়ীর সঙ্গে সাক্ষাতের পর টুইটে মুগ্ধতা প্রকাশ]

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে বাবুল বিতর্কের জেরে শিরোনামে উঠে আসে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। এবিভিপির উদ্যোগে আয়োজিত নবীনবরণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ রক্ষা করতে এসে পড়ুয়াদের বিক্ষোভের মুখে পড়েছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। তাঁকে শারীরিক হেনস্তা করা হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে আসরে নামতে হয় রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়কে। দীর্ঘ ছ’ঘণ্টা পড়ুয়াদের বেনজির বিক্ষোভে ‘আটক’ থাকার পর রাজ্যপাল তাঁকে উদ্ধার করে নিয়ে যান। তখনও বিজেপির তরফে যাদবপুরের তুমুল সমালোচনা করা হয়। এত কিছুর পরেও দেশের অগ্রণী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তালিকায় যাদবপুরের দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসাটা নিঃসন্দেহে সম্মানের বিষয়।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং