BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২২ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

গাড়ির গতি বেশি হওয়াই কী কাল হল বিক্রম-সোনিকার?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: April 29, 2017 11:16 am|    Updated: April 29, 2017 11:59 am

Rash driving behind fatal crash which killed model Sonika Chauhan!

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কিছুদিন আগে ঘটেছিল ঘটনাটা৷ অনুষ্ঠান সেরে ফিরছিলেন কালিকাপ্রসাদ৷ গাড়িটা উল্টে সোজা জলাজমিতে পরেছিল৷ কাদামাখা দেহটা চেনাই যাচ্ছিল না৷ এখনও হাসপাতালে ভেন্টিলেশনে রয়েছে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের নাতি রণদীপ৷ বীভৎস সেই স্মৃতির রেশ এখনও রয়ে গিয়েছে টলি পাড়ার বাসিন্দাদের মনে৷ তাকেই ফের টাটকা করে দিল লেক মার্কেটে বিক্রম-সনিকার ভয়াবহ গাড়ি দুর্ঘটনা৷

হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে মৃত বলে ঘোষণা করা হয় মডেল সোনিকা সিং চৌহানকে৷ বিক্রমকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল প্রথমে৷ কিন্তু ফের অসুস্থ হয়ে পড়েন অভিনেতা৷ আবার তাঁকে ভর্তি করতে হয় হাসপাতালে৷ জানা গিয়েছে, মাথার পিছনে ব্যথা তো রয়েছেই সেই সঙ্গে অ্যাক্সিডেন্টের ট্রমাতেও ভুগছেন অভিনেতা৷ দেব, অঙ্কুশরা গিয়েছেন হাসপাতালে৷ সকলেই হতবম্ব গোটা ঘটনায়৷ তবে বেপোরয়া গাড়ি চালানোর অভিযোগ তুলে ইতিমধ্যেই বিক্রমের বিরুদ্ধে টালিগঞ্জ থানায় মামলা রুজু করা হল৷

[তিন তালাক নিয়ে রাজনীতি করবেন না, আর্জি প্রধানমন্ত্রী মোদির]

কিন্তু পাশাপাশি উঠে আসছে কিছু প্রশ্ন৷ কীভাবে ঘটল এই দুর্ঘটনা? ভোর চারটে নাগাদ কোথা থেকে ফিরছিলেন বিক্রম ও সোনিকা? প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, বেশ গতিতে আসছিল গাড়িটি৷ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রথমে গাড়িটি ফুটপাথে উঠে যায়৷ তারপর সেটি ডিভাইডারে ধাক্কা মারে৷ দুর্ঘটনার তীব্রতা এতটাই ছিল যে গাড়িটির সামনের চাকা দুমড়ে মুচড়ে গিয়েছে৷ দুর্ঘটনার পরই ছুটে আসেন স্থানীয় বাসিন্দারা৷ গাড়িটির সামনের অংশ বেশ খানিকটা বসে গিয়েছিল৷ কোনওক্রমে গাড়ি থেকে দু’জনকে বের করে হাসপাতালে নিয়ে যান স্থানীয়রাই৷

পুলিশ সূত্রে খবর, শহরের নামী পাব থেকে রাতে একটি পার্টি সেরে বাড়ি ফিরছিলেন সোনিকা ও বিক্রম৷ সেই পার্টিতে তাঁরা মদ্যপান করেছিলেন কি না তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে৷ মদ্যপান করার পর প্রচণ্ড গতিতে গাড়ি চালানোর কারণেই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে কি না তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে৷ ময়না তদন্তের পাশাপাশি বিক্রমের রক্ত পরীক্ষা সম্পূর্ণ হওয়ার পর এই প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে বলে পুলিশ জানিয়েছে৷

[প্রসবের সময় গর্ভের সন্তানের মাথা ছেঁড়ার অভিযোগ চিকিৎসকের বিরুদ্ধে]

প্রত্যক্ষদর্শীরা আরও জানিয়েছেন, ঘণ্টায় ৮০ থেকে ৮৫ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় ছুটছিল গাড়িটি৷ ফুটপাথে ওঠার পরই জোরে ব্রেক কষেন বিক্রম৷ সেকারণে গাড়িটির বাম দিকের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন তিনি৷ সরাসরি ডিভাইডারে ধাক্কা লাগে৷ গাড়ির এয়ার ব্যাগ না খোলায় মৃত্যু হয় সোনিকার, এমনই দাবি পুলিশের৷ এদিন বিক্রমকে দেখতে হাসপাতালে ছুটে যান টলি পাড়ার কলাকুশলীরা৷

18198094_1449917215083235_963605270_n

18197185_1449917225083234_1303266673_n

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে