১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাংলা না পেলে মরেও শান্তি নেই। কেন্দ্রীয় বিজেপির অন্দরমহলে নাকি এই কথাই ভাসছে এখন! আর তার জন্য সমস্ত শক্তি লাগাতেও কসুর করছে না তারা। আসন্ন দুর্গাপুজোকে জনসংযোগের হাতিয়ার বানাতে নতুন নতুন পরিকল্পনা তৈরি হচ্ছে। আর এর মাঝেই ফের বাংলায় আসতে চলেছেন আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত। আগামী ২১ তারিখ দু’দিনের সফরে তিনি কলকাতা আসবেন বলে খবর। এই নিয়ে ২১ দিনের মধ্যে দ্বিতীয়বার শ্যামাপ্রসাদের রাজ্যে আসার পিছনে বাংলাকে গুরুত্ব দেওয়ার বিষয়টিই সামনে আসছে।

[আরও পড়ুন: জেরায় গরহাজির, ইমেলে সিবিআইয়ের কাছে সময় চাইলেন রাজীব কুমার]

আরএসএস তরফে সরসংঘচালকের পশ্চিমবঙ্গ সফরকে নিয়ে খুব একটা মাতামাতি করা হচ্ছে। ঠিক কী কারণে মাত্র একমাসের কম সময়ে তিনি ফের রাজ্যে আসছেন তাও খোলসা করা হয়নি। কিন্তু, তবুও বাতাসে ভেসে আসছে নানান সম্ভাবনার কথা। কেউ কেউ বলছেন, গত ৩১ আগস্ট তিনদিনের সফরে এই রাজ্যে এসেছিলেন সংঘপ্রধান। রাজ্য বিজেপির কয়েকজন শীর্ষ নেতার সঙ্গে বৈঠক করার পাশাপাশি কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলেছিলেন। কিন্তু, এবারের সফর আরও গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। কারণ, এই সফরে সংঘের সঙ্গে সমন্ময় রক্ষা করে চলা বিভিন্ন সংগঠনের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে কথা বলবেন তিনি। এছাড়া হাওড়ার উলুবেড়িয়ার তাঁতিবেড়িয়াতে থাকা সারদা বিদ্যাপীঠে দু’দিনের প্রশিক্ষণ শিবিরও চলবে। যাতে যোগ দেবেন রাজ্যে থাকা সংঘ পরিবারের ৩৬টি সংগঠনের শীর্ষ নেতা-নেত্রীরা। এছাড়া থাকার কথা রয়েছে ওড়িশা থেকে আসা সংঘের প্রতিনিধিদেরও।

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এর আগেও অনেকবার রাজ্য এসেছেন মোহন ভাগবত। বিভিন্ন সংগঠনের নেতাদের পাশাপাশি বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে কথাও বলেছেন। কিন্তু, এবারের বিষয়টা পুরো অন্যরকম। কারণ, সেপ্টেম্বরের এই সফরে এসে বৈঠকের পাশাপাশি প্রশিক্ষণ শিবিরও যোগ দেবেন সংঘপ্রধান। যা এই রাজ্যে আগে কোনওদিন হয়নি।

[আরও পড়ুন: নিষ্ঠাভরে পুজো করলেই পুরস্কৃত করবে বিজেপি, শারদ সম্মান আয়োজন গেরুয়া শিবিরের]

অসমর্থিত সূত্রে জানা গিয়েছে, এবার সাংগঠনিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেখার পাশাপাশি মূলত তিনটি বিষয় নিয়ে আলোচনা করবেন ভাগবত। সেগুলি হল, কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বাতিল, এনআরসি ও সীমান্ত সমস্যা। এই বিষয়গুলিতে কীভাবে জনসংযোগ করা হবে তার রূপরেখা তৈরি করে দেবেন সবার অভিভাবক মোহন ভাগবত! আর তারপরই নাকি রাজ্যজুড়ে ঝাঁপিয়ে পড়বে সংঘের ছত্রছায়ায় থাকা সংগঠনগুলি। ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপিকে জয়ী করার পটভূমিকাকে তৈরি করবে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং