৪ আশ্বিন  ১৪২৬  রবিবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাতবিরেতে তাঁরাই ভরসা৷ দিনদুপুরে তাঁরাই ত্রাতা৷ ঈশ্বরের প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে তাঁরাই মৃতপ্রায়কে ফিরিয়ে দিতে পারেন প্রাণ৷ আবার অভিযোগের কাঠগড়াতেও তাঁরা৷ কখনও অর্থলোভী বদনাম তো কখনও স্বার্থপরের দুর্নাম৷ চিকিৎসকদের নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত সমাজ৷ তবু তাঁরা না থাকলে আমরা অসহায়৷ তাঁদের পরিশ্রম, ডেডিকেশনের উপর দ্বিধাহীন ভরসা করা ছাড়া আমাদের উপায় নেই৷ আস্থার সাঁকো তাই কখনও-সখনও নড়লেও ডাক্তার-রোগীর সম্পর্কের ভিত আজও মজবুত৷ সেই চিকিৎসকদেরই সম্মান দিতে এগিয়ে আসে ‘সংবাদ প্রতিদিন’৷ ‘চিকিৎসাজ্যোতি সম্মান’ তাই ডাক্তারবাবুদের কুর্নিশ জানানোর প্ল্যাটফর্ম৷ বৃহস্পতিবার আইসিসিআর-এ বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে সম্মাননা জানানো হল চিকিৎসা জগতের উজ্জ্বল নক্ষত্রদের।

এদিন প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে শুরু হয় অনুষ্ঠান। তারপরই প্রকাশিত হয় ‘সংবাদ প্রতিদিন হেলথ গাইড’ পুস্তিকা। চিকিৎসা সংক্রান্ত গাইডবুকের এটি ১৪তম সংস্করণ। স্বাস্থ্য সংক্রান্ত যাবতীয় খুটিনাটি, হালহদিশ রয়েছে এই পুস্তিকায়। আগামী ১ জুলাই যা হাতে পাবেন পাঠকরা। ‘সংবাদ প্রতিদিন’-এর সম্পাদক সৃঞ্জয় বোস ও চিকিৎসা জগতের বিশিষ্টরা আনুষ্ঠানিক প্রকাশ করেন পুস্তিকাটির। অনুষ্ঠানের সূচনাতেই অন্যরকম পরিবেশের সৃষ্টি করে চিকিৎসকদের ব্যান্ড ‘ব্যতিক্রমী’। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সমবেত গান এবং মেটিরিয়া মেডিকার কাব্য গানের মাধ্যমে একটা নস্ট্যালজিক সন্ধ্যা উপস্থাপিত করেন তাঁরা। এদিনের অনুষ্ঠানে অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন নির্মল মাজি, প্রাক্তন ভারতীয় ফুটবলার সুব্রত ভট্টাচার্য, রাজ্যের স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিকর্তা দেবাশিস ভট্টাচার্য, রাজেন পাণ্ডে (উপাচার্য, স্বাস্থ্য বিশ্ববিদ্যালয়), মণিময় বন্দ্যোপাধ্যায় (অধিকর্তা, পিজি হাসপাতাল), অভিজিৎ চৌধুরি (অধ্যাপক, পিজি হাসপাতাল), গৌতম গঙ্গোপাধ্যায় (অধ্যাপক, বিআইএন), চিকিৎসক আরতি বিশ্বাস, শুদ্ধোদন বটব্যাল (অধ্যক্ষ, আরজি কর হাসপাতাল), চিকিৎসক কুণাল সরকার, চিকিৎসক বৈদ্যনাথ চক্রবর্তী প্রমুখ।

 

এরপর পালা অনুষ্ঠানের মূল অংশের। সম্মান প্রদানের। নীরব প্রহরী সম্মানে ভূষিত করা হয় চিকিৎসক দয়ালবন্ধু মজুমদারকে এবং চিকিৎসা গবেষণায় অসামান্য সাফল্যের জন্য সম্মানজ্ঞাপন করা হয় ডা. দিলীপ মহলানবীশকে। জনস্বাস্থ্য প্রকল্পের জন্য দুর্বার সমন্বয় সমিতির উপদেষ্টা ডা. স্মরজিৎ জানাকে সম্মান প্রদান করা হয়। মাঝে নেফ্রোলজিস্ট ডা. প্রতীম সেনগুপ্তর বেহালার সুরের মূর্ছনায় অনুষ্ঠানে আলাদা মাত্রা যোগ হয়। এরপর সৃঞ্জয় বোস এবং অন্যান্য অতিথিরা ডা. বীরেন্দ্রনাথ দে-কে চিকিৎসাজ্যোতি পুরস্কারে সম্মানিত করেন। ডা. গীতা চৌধুরিকে কাদম্বিনী পুরস্কারে ভূষিত করা হয়। সীমানা ছাড়িয়ে সম্মান প্রদান করা হয় ডা. শঙ্কর নাথকে। রজত পাল এবং বিপ্লব মণ্ডলকে নীলকণ্ঠ আলো সম্মান প্রদান করা হয়। ডা. সমরজিৎ দাসকে প্রতিশ্রুতি পুরস্কার প্রদান করা হয়। এবং সবশেষে জীবনব্রতী সম্মানে ভূষিত করা হয় প্রবীণ চিকিৎসক ডা. রামকৃষ্ণ দত্ত রায়কে। অনুষ্ঠানে গিটার বাজিয়ে অন্য মাত্রা যোগ করেন আইএমএ-র রাজ্য সম্পাদক শান্তনু সেন।

এই অনুষ্ঠানের নিবেদক ‘জেআইএস গ্রুপ’৷ সংস্থার চেয়ারম্যান তরণজিৎ সিংয়ের কথায়, “নীরবে-নিভৃতে কাজ করে যাওয়া চিকিৎসকদের দায়িত্ব, মূল্যবোধকে সম্মানিত করতে ‘সংবাদ প্রতিদিন’-এর এই অভিনব প্রয়াস সত্যিই প্রশংসনীয়৷” ‘চিকিৎসাজ্যোতি সম্মান’-এর প্রধান সহযোগিতায় রয়েছে ‘আরবানা’, ‘আর্ট এজ নিউজ’৷ যাঁদের সম্মান জানানো হয় তাঁদের বাছাই করেছে পাঁচজন বিশিষ্ট চিকিৎসকের প্যানেল। প্রচার সহযোগী ‘আর প্লাস’, ‘পিডি’ ও ‘ফিভার ১০৪’৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং