২২  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ৮ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

জাতীয় শিক্ষানীতি বাতিলের দাবি, কলকাতায় পূর্ব ভারতের বৃহত্তম ছাত্র সমাবেশের আয়োজন এসএফআইয়ের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: June 30, 2022 1:35 pm|    Updated: June 30, 2022 1:35 pm

SFI will organize rally protesting National Education Policy | Sangbad Pratidin

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন জাতীয় শিক্ষানীতি বাতিলের দাবিতে এবার দেশজুড়ে কর্মসূচি নিচ্ছে সিপিএমের ছাত্র সংগঠন এসএফআই (SFI)। শুধু তাই নয়, বিকল্প শিক্ষানীতি কী হওয়া উচিত তা নিয়ে জনসাধারণের অভিমত তুলে আনবে তারা। বিজেপির হাত থেকে দেশ-শিক্ষা-সংবিধান বাঁচাতে বিকল্প শিক্ষানীতির লক্ষ্যে ২ সেপ্টেম্বর কলকাতায় ছাত্র সমাবেশেরও ডাক দিয়েছে সিপিএমের এই ছাত্র সংগঠন।

বুধবার কলকাতায় এক সাংবাদিক বৈঠক করেন এসএফআইয়ের রাজ্য সম্পাদক সৃজন ভট্টাচার্য (Srijan Bhattacharya)। সেখানেই সৃজন এই কর্মসূচীর কথা জানান। সৃজন বলেন, দেশ-শিক্ষা-সংবিধান বাঁচাতে ও নতুন শিক্ষানীতি ও বিজেপিকে বাতিল করতে হবে এই স্লোগানকে সামনে রেখে পূর্ব ভারতজুড়ে ছাত্র জাঠা-মিছিল হবে। ১৯ আগস্ট ত্রিপুরা, মনিপুর, অসম হয়ে একটি জাঠা কোচবিহারে আসবে। ২০ আগস্ট বিহার, ঝাড়খন্ড, ওড়িশা হয়ে আরেকটি জাঠা পূর্ব মেদিনীপুরে আসবে। ২ জুলাই কলকাতায় ঐতিহাসিক ছাত্র সমাবেশ হবে।

[আরও পড়ুন: দু’বছর পর গড়াবে ইসকনের রথের চাকা, দড়ি টেনে উৎসবের সূচনা করবেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী]

জানা গিয়েছে, সমাবেশে পূর্ব ভারতের সব জায়গা থেকে ছাত্র নেতা ও কর্মীরা আসবে। ১ জুলাই থেকে ১০ আগস্ট রাজ্যজুড়ে জাতীয় শিক্ষানীতির বিরুদ্ধে লিফলেট বিলি চলবে। এদিকে, অবিলম্বে বিভিন্ন কলেজে ছাত্র সংসদ নির্বাচনের দাবি তুলেছে এসএফআই। সৃজনের বক্তব্য, স্বচ্ছ ছাত্র সংসদ পরিচালনার জন্য নির্বাচন দরকার। তৃণমূল শিক্ষাক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণ করতে চাইছে। পাশাপাশি, স্বচ্ছ ভরতি প্রক্রিয়ার দাবি তুলে কেন্দ্রীয় অনলাইনে ভরতি প্রক্রিয়ার পক্ষে এদিন সওয়াল করেছে এসএফআই নেতৃত্ব।

অগ্নিপথ প্রশিক্ষণ শেষ করে যাঁরা অস্ত্র শিক্ষা নিয়ে আসবে তাঁদের কীভাবে কাজে লাগানো হবে সমাজে তা নিয়ে এদিন প্রশ্ন তুলেছেন এসএফআইয়ের রাজ্য সম্পাদক। তাঁদেরকে বিজেপি কীভাবে ব্যবহার করবে প্রশ্ন এসএফআই নেতাদের। একইসঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারকে আক্রমণ করে সিপিএমের ছাত্র নেতাদের বক্তব্য, “বিজেপির রাজ্য সভাপতি তো তৃণমূলের অধ্যাপক সংগঠনের সদস্য ছিলেন। তিনি আবার কী বিরোধিতা করবেন তৃণমূলের।”

[আরও পড়ুন: মহিষাসুর নয়, এবার ‘রোরাসুর’রূপী রোদ্দুর রায়কে বধ করবেন দেবী দুর্গা, কলকাতার পুজোয় চমক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে