Advertisement
Advertisement
Park Street

পার্ক স্ট্রিট গুলিকাণ্ডে পুলিশের জালে ৪, এখনও অধরা মূল অভিযুক্ত

পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃতদের মধ্যে একজন মূল অভিযুক্তের আত্মীয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেই মাস্টারমাইন্ডকে নাগালে পেতে মরিয়া তদন্তকারীরা।

Shootout at Park Street: four arrested but main accused is still absconded

প্রতীকী ছবি

Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:June 16, 2024 9:12 am
  • Updated:June 16, 2024 9:14 am

নিরুফা খাতুন: খাস কলকাতার (Kolkata) প্রকাশ্য রাস্তায় গুলিচালনার ঘটনায় পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার চার। যদিও মূল অভিযুক্ত এখনও অধরা। পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃতদের মধ্যে রয়েছে মূল অভিযুক্তের এক আত্মীয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেই মাস্টারমাইন্ডের নাগাল পেতে চাইছেন তদন্তকারীরা। শুক্রবার গভীর রাতে পার্ক স্ট্রিট লাগোয়া মির্জা গালিব স্ট্রিটে দুপক্ষের গুলিযুদ্ধে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা। জখম হন একজন। ঘটনায় মূল অভিযুক্ত হিসেবে সোনু নামে একজন সন্দেহভাজনের হদিশ পায় পুলিশ। তদন্তে নেমে প্রাথমিকভাবে কয়েকজনকে আটক করা হয়। রবিবার সকালে গ্রেপ্তার করা হল ৪ জনকে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার সন্ধেয় মূল অভিযুক্ত সোনুর সঙ্গে রাকিব নামে এক যুবকের বচসা হয়। তা তখনকার মতো মিটে গেলেও গভীর রাতে গাড়ি রাখতে আসা সোনুর উপর রাকিবের দল চড়াও হয় বলে অভিযোগ। পার্ক স্ট্রিট (Park Street) লাগোয়া  ফ্রি স্কুল স্ট্রিটে দুপক্ষের মধ্যে বেশ কিছুক্ষণ ধরে অশান্তি হয়। অভিযোগ, অশান্তির মাঝে আচমকাই সোনু গুলি চালাতে (Shootout) শুরু করে। কমপক্ষে তিন রাউন্ড গুলি চলে বলে। তাতে জখম হয় রাকিব। তাঁর ডান পায়ে গুলি লাগে। দীর্ঘক্ষণ ওই অবস্থায় পড়ে থাকার পর তাঁকে চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করা হয়।

Advertisement

[আরও পড়ুন: গার্ডেনরিচ কাণ্ডে ৮৮ দিনের মাথায় চার্জশিট পেশ, অভিযুক্ত প্রোমোটার-সহ ৬ জন

এই ঘটনার পর থেকেই সোনু পলাতক। তদন্তে নেমে পার্ক স্ট্রিট থানার পুলিশ জানতে পারে, সোনু কুখ্যাত সমাজবিরোধী (Criminal)। তার নামে আগেও বহু অপরাধমূলক কাজকর্মের রেকর্ড আছে। গ্রেপ্তারও হয়েছে। পরে ছাড়া পেয়ে ফের তোলাবাজির মতো বেআইনি কাজে যুক্ত হয়ে পড়ে। তা নিয়েই সম্ভবত তার সঙ্গে রাকিবের বচসা এবং সংঘর্ষ। পুলিশ সূত্রে আরও খবর, ধৃতদের (Arrest) মধ্যে সাব্বির নামে ব্যক্তি সম্পর্কে সোনুর শ্যালক। তার সূত্র ধরেই মূল পাণ্ডার হদিশ পেতে চাইছেন তদন্তকারীরা।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘সিপিএমকে ভরসা করেনি মানুষ’, ছাত্র-যুবদের লোকসভায় হারের কারণ বোঝালেন সেলিমরা]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ