BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ইস্তফাপত্র গ্রহণ নিয়ে জারি জটিলতা, সোমবার বিধানসভায় ডাকা হল শুভেন্দু অধিকারীকে

Published by: Sayani Sen |    Posted: December 18, 2020 4:29 pm|    Updated: December 18, 2020 4:34 pm

Speaker Biman Banerjee called Suvendu Adhikari in assembly । Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এখনও শুভেন্দু অধিকারীর (Suvendu Adhikari) ইস্তফাপত্র গ্রহণ নিয়ে জারি টানাপোড়েন। সঠিক নিয়ম মেনে বিধানসভায় তিনি ইস্তফাপত্র জমা দেননি বলেই দাবি অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের। তাই তাঁর ইস্তফাপত্র গ্রহণ করা হল না বলেই জানালেন তিনি।

২৭ নভেম্বর মন্ত্রিত্ব ছাড়েন শুভেন্দু অধিকারী। তার আগেই ছেড়ে দিয়েছিলেন HRBC’র চেয়ারম্যান পদ, হলদিয়া উন্নয়ন পর্ষদ এবং সমবায় ব্যাংকের দায়িত্ব। তবে বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা তখনও দেননি। মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দেওয়ার সপ্তাহদুয়েক পর গত বুধবার বিধায়ক পদে ইস্তফাপত্র জমা দেন নন্দীগ্রামের বিধায়ক। সেদিন দুপুরে কাঁথির বাড়ি থেকে নিজের গাড়িতে চড়ে কিছুটা গোপনীয়তা বজায় রেখে কলকাতা আসেন তিনি। সেই সময় বিধানসভায় অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় ছিলেন না। তাই বিধানসভার সচিবের ঘরে গিয়ে ইস্তফাপত্র জমা দেন তিনি। পরে অবশ্য স্পিকারকে ই-মেলের মাধ্যমে ইস্তফাপত্র পাঠান। তবে নিয়মানুযায়ী বিধানসভার সচিব ইস্তফাপত্র গ্রহণ করতে পারেন না। কারণ তা তাঁর এক্তিয়ারভুক্ত নয়। তাই শুভেন্দুর ইস্তফাপত্র গ্রহণ হয়নি।

[আরও পড়ুন: নিয়োগ বিতর্কের মাঝে ‘একতরফা’ উত্তরবঙ্গ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের নাম ঘোষণা রাজ্যপালের]

শুক্রবার সাংবাদিক বৈঠক করে আরও একবার সেকথাই জানালেন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় (Biman Banerjee)। তিনি বলেন, “আমি চলে যাওয়ার বেশ কিছুক্ষণ পরে এসে বুধবার তিনি ইস্তফাপত্র সচিবের কাছে জমা দিয়ে যান। আমাকে ই-মেল করেন। শুভেন্দু অধিকারীর ইস্তফাপত্রে ছিল না কোনও তারিখের উল্লেখ। তবে ই-মেলে তারিখ ছিল। কিন্তু কোনটা আসল এবং কোনটা নয় তা বোঝা আমার পক্ষে কঠিন। কারণ, তারিখ না থাকার ফলে দু’ভাবে পাঠানো ইস্তফাপত্রের কোনও ধারাবাহিকতা নেই। আমি ইস্তফাপত্রে সন্তুষ্ট নই। তিনি স্বেচ্ছায় ইস্তফা দিয়েছেন কিনা, তাও খতিয়ে দেখা হয়নি। তাই তাঁর ইস্তফাপত্র গ্রহণ করা হচ্ছে না। তিনি এখনও রাজ্য বিধানসভার একজন সদস্য।”

আগামী সোমবার অর্থাৎ ২১ ডিসেম্বর দুপুর ২টোর সময় ইস্তফা সম্পর্কে কথাবার্তার বলার জন্য শুভেন্দু অধিকারীকে বিধানসভায় ডেকে পাঠিয়েছেন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি আসেন কিনা, তা দেখার পরই ইস্তফাপত্র সম্পর্কে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন স্পিকার। এদিকে, কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে আগামিকালই বিজেপিতে (BJP) যোগ দিতে পারেন শুভেন্দু অধিকারী। সেক্ষেত্রে কীভাবে তা সম্ভব, সে প্রশ্ন যদিও এড়িয়ে গিয়েছেন বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়।

[আরও পড়ুন: ফের মুখ্যসচিব, ডিজিপিকে দিল্লিতে জরুরি তলব, ভিডিও কনফারেন্সের প্রস্তাব নবান্নের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে