১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

পড়ুয়াকে নগ্ন করে মার, চাপে পড়ে তদন্ত কমিটি গঠন কলেজ কর্তৃপক্ষের        

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 5, 2018 5:08 pm|    Updated: June 5, 2018 5:11 pm

St. Paul's College orders probe on student assault

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চাপের মুখে পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হল সেন্ট পল’স কলেজ। পড়ুয়াকে নগ্ন করে মারধরের ঘটনায় গড়া হল তদন্ত কমিটি। কলকাতার ঐতিহ্যবাহী কলেজে ঘটা চাঞ্চল্যকর ঘটনাটির তদন্ত করবে ৭  সদস্যের ওই কমিটি। সমস্ত অভিযোগ খতিয়ে দেখে সাতদিনের মধ্যে কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছে রিপোর্ট জমা দেবেন তদন্তকারীরা।

[ভেঙে পড়ল ফাইটার জেট, মৃত্যু বায়ুসেনার বিমানচালকের]

সদ্য সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ্যে আসে এক পড়ুয়াকে নগ্ন করে মারধরের ভিডিও। সেখানে দেখা যায় কলেজের কমনরুমে নগ্ন করে হেনস্তা করা হচ্ছে এক পড়ুয়াকে। অভিযোগ, মদ্যপান করে এই কাণ্ড ঘটায় সিনিয়র পড়ুয়ারা। এই বিষয়ে প্রথমে কিছুতেই মুখ খোলেনি কলেজ কর্তৃপক্ষ। তাদের দাবি ছিল, এমন কোনও ঘটনার খবর নেই। এই সংক্রান্ত কোনও অভিযোগ জমা পড়েনি। তারপরই হস্তক্ষেপ করেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তিনি সাফ জানান, এই ধরনের ঘটনা বরদাস্ত করা হবে না। সোমবার শিক্ষামন্ত্রী সাফ জানিয়ে দেন, কলেজ কর্তৃপক্ষ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে, কলেজের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করা হবে। তারপরই নড়েচড়ে বসে কর্তৃপক্ষ। তড়িঘড়ি গঠন করা হয় তদন্ত কমিটি।

উল্লেখ্য, রবিবার রাতে টিএমসিপি-র ইউনিট সভাপতি ও তাঁর অনুগামীদের বিরুদ্ধে আমহার্স্ট স্ট্রিট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন নিগৃহীত পড়ুয়া। কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছেও অভিযোগ জানান তিনি। পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযোগপত্রে অর্ণব ঘোষ, এনামুল হক, অভিজিৎ দলুই এবং কলেজের অশিক্ষক কর্মী অনন্ত প্রামাণিকের নাম রয়েছে। সোমবার টিচার ইনচার্জের সঙ্গে দেখা করে অভিযুক্তদের তথ্য সংগ্রহ করে পুলিশ। অভিযুক্তদের খোঁজে সোমবার রাতে তল্লাশি চালায় পুলিশ। তবে এখনও পর্যন্ত কাউকেই গ্রেপ্তার করা যায়নি। এদিকে ঘটনার প্রতিবাদে সরব হয়েছে বিভিন্ন কলেজের পড়ুয়ারা। আমহার্স্ট স্ট্রিটে প্রতিবাদও দেখায় তাঁরা। ইতিমধ্যে অভিযুক্ত অস্থায়ী অশিক্ষক কর্মীকে সাসপেন্ড করা হয়েছে বলে জানিয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। টিএমসিপি রাজ্য নেতৃত্ব জানিয়েছে, সংগঠনের নেতা অর্ণব ঘোষ, এনামুল হক এবং অভিজিৎ দলুইকে শোকজ করা হয়েছে।

[প্রতিবন্ধী বলে বাবার কাছে ব্রাত্য, হাই মাদ্রাসায় ৮৮% নম্বর পেয়ে জবাব তাশিনার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে