১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শুক্রবার ৩ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সংস্কার থেকে নিয়োগ, ঢেলে সাজানো হচ্ছে এসএসসি-কে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 25, 2016 12:08 pm|    Updated: July 13, 2018 6:37 pm

staff selection commision

ক্ষীরোদদীপ্তি ভট্টাচার্য: বারবার নাম নথিভুক্ত করার ঝামেলা থেকে মুক্তি৷ স্টাফ সিলেকশন পরীক্ষার জন্য একবারই নাম নথিভুক্ত করতে হবে৷ এরপর বয়স ও শিক্ষাগত যোগ্যতা অনুযায়ী যতবার খুশি সরকারি পদে নিয়োগের পরীক্ষা দেওয়া যাবে৷ খুব শীঘ্রই এমনভাবেই ঢেলে সাজান হচ্ছে এসএসসি পরীক্ষা ব্যবস্থাকে৷ শুধু তাই নয়, আগামী দিনে অনলাইনেও সব পরীক্ষা দিতে পারবেন পরীক্ষার্থীরা৷

পিএসসির পাশাপাশি এসএসসিও সরকারের বিভিন্ন দফতরের নিয়োগের জন্য পরীক্ষা নিয়ে থাকে৷ বস্তুত, পিএসসির থেকেও কয়েক গুণ বেশি প্রতিবছর সরকারি দফতরে নিয়োগ হয়ে থাকে এই স্বশাসিত সংস্থার মাধ্যমে৷ এর মধ্যে কৃষিপ্রযুক্তি সহায়ক, বন দফতর, আবগারি দফতরের এএসআই-সহ বিভিন্ন পরীক্ষা রয়েছে৷ পরিসংখ্যান বলছে, গত বছর সব মিলিয়ে প্রায় আট লক্ষ পরীক্ষার্থী রাজ্য স্টাফ সিলেকশন কমিশনের মাধ্যমে সরকারের বিভিন্ন দফতরের চাকরির পরীক্ষা দিয়েছেন৷ এই অবস্থায় এসএসসির শীর্ষকর্তাদের পর্যবেক্ষণ, চলতি বছরেই সরকারের প্রায় সব দফতরের নিয়োগ পরীক্ষার দায়িত্ব পড়বে এই সংস্থার উপর৷ তাই পরীক্ষার্থী ও কর্মীদের ভার খানিকটা কমানোর জন্যই এই উদ্যোগ নেওয়া হল৷

এসএসসির সচিব দেবজ্যোতি ভট্টাচার্য সংস্থার এই উদ্যোগের কথা জানিয়ে বলেছেন, ‘‘মূলত ১৮ বছর বয়স ও শিক্ষাগত যোগ্যতা মাধ্যমিক হলেই এসএসসির ক্লার্কশিপ পরীক্ষার জন্য আবেদন করা যায়৷ তাই ১৮ থেকে ৪০ বছর বয়স ও মাধ্যমিক উত্তীর্ণকে মাপকাঠি ধরে নেওয়া হবে৷” বর্তমান ব্যবস্থায় একজন পরীক্ষার্থী যতবার পরীক্ষায় বসেন ততবারই তাঁকে নাম নথিভুক্ত করতে হয়৷ সংস্থার সচিব জানিয়েছেন, “প্রার্থী নিখরচায় নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন৷ আগামী দু-তিন মাসের মধ্যে এই কাজ শেষ হয়ে যাবে৷ সংস্থার আরেক শীর্ষকর্তা জানিয়েছেন, “নতুন ব্যবস্থাকে ত্রুটিমুক্ত করতে ন্যশান্যল ইনফরমেটিক্স সেন্টার ও রাজ্য সরকারের তথ্যপ্রযুক্তি দফতরের বিশেষজ্ঞরা ‘সিকিউরিটি অডিট’ করছেন৷” রাজ্যের বিভিন্ন শহরে এই সংস্থার অনুমোদিত বেশ কিছু কেন্দ্র চালু করা হবে৷ পরীক্ষার্থীরা সেইসব কেন্দ্রে গিয়ে পরীক্ষা দিতে পারবেন৷ এরজন্য সংশ্লিষ্ট পরীক্ষাকেন্দ্রর যেমন একটি নির্দিষ্ট ‘পাসওয়ার্ড’ থাকবে তেমনই পরীক্ষার্থীও একটি পাসওয়ার্ড পাবেন৷ পরীক্ষা শুরুর নির্দিষ্ট সময়ে পাসওয়ার্ড ব্যবহার করলেই কম্পিউটার চালু হবে৷ চাকরিপ্রার্থীরা পরীক্ষা দিতে পারবেন৷ আবার নির্দিষ্ট সময় পার হলেই কম্পিউটার বন্ধ হয়ে যাবে৷ সচিব দেবজ্যোতি ভট্টাচার্য বলেছেন, “ইতিমধ্যেই পরীক্ষামূলকভাবে কয়েকটি নিয়োগ পরীক্ষায় এই ব্যবস্থার সুফল মিলেছে৷”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে