২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ভিনরাজ্যে আটকে পড়া বাংলার পড়ুয়া ও বাসিন্দাদের ফেরাচ্ছেন মমতা

Published by: Paramita Paul |    Posted: April 27, 2020 12:32 pm|    Updated: April 27, 2020 12:48 pm

An Images

তরুণকান্তি দাস ও  ধ্রুবজ্যোতি  বন্দ্যোপাধ্যায়: বিভিন্ন রাজ্যে আটকে থাকা বাংলার ছাত্রছাত্রী, পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে থাকার আশ্বাস আগেই দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার তাঁদের বাড়ি ফেরাতে উদ্যোগ নিল রাজ্য সরকার। সোমবার টুইট করে সেকথা জানালেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রী আশ্বাসবাণী, “আমি যতদিন আছি, বাংলার কেউ নিজেকে অসহায় মনে করবেন না। আপনাদের ফিরিয়ে আনতে চেষ্টায় কোনও খামতি থাকবে না।” ইতিমধ্যে রাজস্থানের কোটায় আটকে থাকা ছাত্রছাত্রীদের ফেরাতে বিশেষ বাসের ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে খবর। পাশাপাশি চিকিৎসা করতে গিয়ে চেন্নাই ও ভেলোরে আটকে থাকা বাংলার বাসিন্দা ও পরিযায়ী শ্রমিকদের বাংলায় ফেরাতে কেন্দ্রকে বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করার আরজি জানিয়েছে রাজ্য সরকার।

[আরও পড়ুন: নয়া অবতারে মদন মিত্র, অনলাইনে প্রবাসী বন্ধুদের কাউন্সেলিংয়ের দায়িত্বে তিনি]

ইঞ্জিনিয়ারিং প্রবেশিকার প্রস্তুতি নিতে গিয়ে কোটায় এ রাজ্যের প্রায় আড়াই হাজার পডুয়া আটকে রয়েছে। তাঁদের ফিরিয়ে আনতে রাজস্থান সরকারের সঙ্গে কথা বলে রাজ্য। হিসেব করে দেখা যায়, সামাজিক দূরত্ব মেনে সমস্ত পড়ুয়াদের রাজ্যে ফেরাতে প্রায় ৩০০টি এসি বাসের প্রয়োজন রয়েছে। লম্বা রাস্তা পেরিয়ে বাংলায় ফিরতে উত্তরপ্রদেশ, ঝাড়খণ্ডের মতো রাজ্য পাড় করতে হবে। সময় লাগবে প্রায় তিন দিন, তিন রাত। রাতে ওই রাজ্যগুলিতে থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। কিন্তু সেই রাজ্যগুলি এমন সংকটকালীন পরিস্থিতিতে এত বিশাল আয়োজন করতে অপারগ বলে জানিয়ে দেয়। ফলে ওই পড়ুয়াদের একসঙ্গে না ফিরিয়ে খেপে-খেপে ফেরানোর সিদ্ধান্ত রাজ্য সরকার নিয়েছে বলে খবর। এদিকে চিকিৎসা করাতে গিয়ে ভেলোর ও চেন্নাইতেও বাংলার বাসিন্দারা আটকে রয়েছেন। তাঁদের ফেরাতে কেন্দ্রকে একটি বিশেষ ট্রেন চালানোর আবেদন জানিয়েছে রাজ্য। আবার মহারাষ্ট্র ও দক্ষিণ ভারতে বহু নির্মাণ শ্রমিক, গোয়ার হোটেল ও পর্যটনে ক্ষেত্রে কর্মরত অনেকে আটকে রয়েছেন। তাঁদের ফেরানোর জন্যও বিশেষ ট্রেনের আবেদন জানিয়েছে রাজ্য।

[আরও পড়ুন:প্রশাসক নয়, করোনা আবহে কলকাতা পুরসভায় বোর্ডের মেয়াদ বাড়তে চলেছে]

এদিন ভিন রাজ্যে আটকে থাকা পড়ুয়া, শ্রমিকদের পরিবারকে আশ্বস্ত করতে পরপর দুটি টুইট করেন মুখ্যমন্ত্রী। টুইটারে তিনি লেখেন, “লকডাউনে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে থাকা রাজ্যবাসীকে বাড়িতে রাজ্য সরকার সবরকম সাহায্য করবে। আমি সরকারি আধিকারিকদের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করতে বলেছি। যতক্ষণ আমি আছি, রাজ্যের কারোর নিজেকে অসহায় মনে করার প্রয়োজন নেই। সংকটের সময় আমি সকলের সঙ্গে আছি।” পরের টুইটে তিনি আরও লেখেন, “আমি ব্যক্তিগতভাবে গোটা বিষয়ের উপর নজর রাখছি। সাহায্যের কোনও খামতি থাকবে না। কোটায় আটকে থাকা পড়ুয়াদের ফিরিয়ে আনতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। দ্রুত তাঁরা বাড়ি ফিরে আসবেন।” পরে মুখ্যমন্ত্রীর টুইটটি রিটুইট করেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। লেখেন, ‘চিন্তা নেই, দিদি আছেন।’

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement