২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৫ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘দুর্গাপুজোর অনুমতি না দেওয়া হলে বাঙালি হিন্দুদের সঙ্গে বৈষম্য হবে’ যোগীকে টুইট স্বপন দাশগুপ্তর

Published by: Sulaya Singha |    Posted: September 29, 2020 8:05 pm|    Updated: September 29, 2020 8:05 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আবহে প্যান্ডেল করে দুর্গাপুজো করা যাবে না। ইচ্ছা থাকলে বাড়িতেই পুজোর আয়োজন করতে হবে। সোমবারই রাজ্যবাসীর জন্য এই বড় ঘোষণা করেছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath)। তবে একইসঙ্গে তিনি জানান, কড়া কোভিডবিধি মেনে অন্যান্য বছরের মতোই রামলীলা আয়োজিত হবে। ঘোষণার পর থেকেই আদিত্যনাথের সিদ্ধান্ত নিয়ে বিতর্ক দানা বাঁধতে শুরু করেছিল। অনেকেই প্রশ্ন তোলেন, রামলীলা করা গেলে করোনায় সরকারি নির্দেশিকা মেনে দুর্গাপুজো কেন নয়? এবার এই নিয়েই টুইটারে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত।

সংক্রমণ ঠেকাতে পুজো নিয়ে এক-এক রাজ্য এক-একরকম সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ওড়িশা যেমন জানিয়েছে, কোভিডবিধি মেনে পুজো করতে হবে। অসমের স্বাস্থ্যমন্ত্রী আবার রাজ্যবাসীদের প্রতিমা পুজো (Durga Puja) থেকে বিরত থেকে ঘটপুজো করার পরামর্শ দিয়েছেন। ইতিমধ্যেই দুর্গাপুজোর গাইডলাইন প্রকাশ করেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। যেখানে মণ্ডপের চেহারা থেকে অঞ্জলি- সবকিছুইর উল্লেখ রয়েছে। কিন্তু যোগী সরকার অন্য পথে হেঁটেছে। তাদের সাফ বক্তব্য, দুর্গাপুজো উপলক্ষে প্রকাশ্যে জমায়েত করা যাবে না। প্রতিমা বিসর্জন বা অন্য কোনওদিন শোভাযাত্রাও করা যাবে না। একান্তই ইচ্ছা থাকলে বাড়িতেই সমস্ত আয়োজন করতে হবে। উত্তরপ্রদেশ সরকারের এই ঘোষণা ‘সমুচিত’ নয় বলেই মনে করছেন স্বপন দাশগুপ্ত। আদিত্যনাথের কাছে তাঁর আরজি, রামলীলার মতো কোভিডবিধি মেনেই দুর্গাপুজোর অনুমতি দেওয়া হোক। নাহলে সে রাজ্যের বাঙালি হিন্দুদের সঙ্গে বৈষম্য করা হবে।

[আরও পড়ুন: ‘সংবাদ প্রতিদিন’-এর খবরের জের, হাওড়া স্টেশনে নতুন করে বসানো বেঞ্চ সরানোর নির্দেশ দিল রেল]

নিজের দলের মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধেই টুইটারে সরব হতে দ্বিধা করেননি তিনি। বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ লেখেন, “উত্তরপ্রদেশ সরকার বাড়িতে দুর্গাপুজো করতে বলছে। যেটা ঠিক নয় আর সম্ভবও নয়। রামলীলায় যেমন নিয়ম মেনে ছাড় দেওয়া হচ্ছে, তেমন দুর্গাপুজোতেও দেওয়া হোক। নাহলে এ সিদ্ধান্ত বৈষম্যেরই শামিল। উত্তরপ্রদেশের বাঙালিদের তরফে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আবেদন, এই সিদ্ধান্ত বদল করা হোক।”

রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে যোগীর এই সিদ্ধান্ত বাংলায় বিজেপির (BJP) বিরুদ্ধে যেতে পারে। তা আন্দাজ করেই অনুরোধ জানিয়েছেন স্বপন দাশগুপ্ত। তৃণমূল সরকার বাঙালি সেন্টিমেন্টকেই কাজে লাগিয়ে নির্বাচনের ঘুঁটি সাজাচ্ছে। বিজেপিকে বাঙালি বিরোধী তকমা দেওয়ার মরিয়া চেষ্টাও করছে। এমন আবহে উত্তরপ্রদেশে দুর্গাপুজো না হওয়া শাসকদলের কাছে আরও একটা বড় অস্ত্র হয়ে দাঁড়াতে পারে। এবার দেখার এই অনুরোধের পর যোগীর সিদ্ধান্ত বদলায় কি না।

[আরও পড়ুন: উৎসবের মরশুমে সুখবর, চলতি সপ্তাহেই চালু শিয়ালদহ-পুরী স্পেশ্যাল ট্রেন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement