৮ কার্তিক  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ডিজে বাজানোয় তেরঙ্গা যাত্রায় ‘বাধা’ পুলিশের, স্বাধীনতা দিবসে উত্তেজনা তপসিয়ায়

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: August 15, 2019 8:32 pm|    Updated: August 15, 2019 9:22 pm

Tension erupts over 'Teranga Yatra' in Topsia in South Kolkata

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্বাধীনতা দিবসেও শহরে অশান্তি। ‘তেরঙ্গা যাত্রা’য় ডিজে বাজানোকে কেন্দ্র করে তুলকালাম কাণ্ড দক্ষিণ কলকাতার তপসিয়ায়। রাস্তায় ডিজে বাজিয়ে শোভাযাত্রায় আপত্তি করলে, পুলিশের সঙ্গে আয়োজকদের রীতিমতো ধস্তাধস্তি হয়।

[আরও পড়ুন: গড়িয়াহাটে স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান চলাকালীন দুর্ঘটনা, বাইকের ধাক্কায় আহত মা ও মেয়ে]

৭৩তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার দিনভর শহরে ছিল উৎসবের মেজাজ। সকালে রীতিমাফিক রেড রোডে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। চলে কুচকাওয়াজও। শুধু রেড রোডেই নয়, কলকাতার বিভিন্ন জায়গাতেই পতাকা উত্তোলন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়েছে। আর স্বাধীনতা দিবস উদযাপনকে কেন্দ্র করে আবার তুমুল অশান্তিও হল তপসিয়ায়। জানা দিয়েছে, স্বাধীনতা দিবসে তপসিয়ার ‘তেরঙ্গা যাত্রা’ বের করার পরিকল্পনা করেছিলেন স্থানীয় এক বিজেপিপন্থী সংগঠনের সদস্যরা। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, তারস্বরে ডিজে বাজিয়ে ও হাতে জাতীয় পতাকা নিয়ে শোভাযাত্রায় শামিল হন উদ্যোক্তারা। কিন্তু রাস্তায় ডিজে বাজানো নিয়ে আপত্তি করে পুলিশ। জোর করে ‘তেরঙ্গা যাত্রা’ আটকানোর চেষ্টা হয় বলে অভিযোগ। আর তাতেই পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। প্রথমে বচসা, তারপর আয়োজকদের সঙ্গে পুলিশের রীতিমতো ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায়। পুলিশি বাধা উপেক্ষা করে নিজেদের কর্মসূচি চালিয়ে যান ‘তেরঙ্গা যাত্রা’র আয়োজকরা।

উল্লেখ্য, স্বাধীনতা দিবসে ভারতমাতার পুজো কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার  উত্তেজনা ছড়ায় হাওড়ায় শিবপুর ও লিলুয়ার। বিজেপির দাবি, শিবপুরে ভারতমাতার পুজোর আয়োজন করেছিলেন স্থানীয় ক্ষেত্রমিলনী ক্লাবের সদস্যরা। এর জেরেই বুধবার রাতে স্থানীয় এক বিজেপি নেতা থানায় নিয়ে গিয়ে আটকে রাখে। যদিও পুলিশের পালটা দাবি, ভারতমাতার পুজো নয়, স্রেফ স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানের অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। এদিকে হাওড়ারই কোনা এক্সপ্রেসওয়ের কাছে ভারতমাতার পুজোর মণ্ডপে হামলা ও মূর্তি ভাঙার অভিযোগ উঠেছে।

[আরও পড়ুন: মেয়ে বেঁচে থাক অন্যের শরীরে, শহরে তরুণীর অঙ্গদান পরিজনদের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement