BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় ডাহা ফেল, রাজ্য সরকারকে ফের টুইটারে আক্রমণ বিজেপি নেতাদের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: May 15, 2020 8:05 pm|    Updated: May 15, 2020 8:05 pm

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় ব্যর্থ রাজ্য সরকার। এই সরকার মানুষের বিশ্বাস হারিয়েছে। এভাবেই টুইটে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক কৈলাস বিজয়বর্গীয়। টুইটে শুক্রবার তিনি অভিযোগ করেন, “করোনা পরিস্থিতির মোকাবিলায় মমতার সরকার পুরোপুরি ব্যর্থ। স্বাস্থ্য, রেশন ব্যবস্থা, পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরানো, সব দিক দিয়েই ব্যর্থ।” করোনা মোকাবিলায় মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল সরকার ডাহা ফেল – এই স্লোগান হাতিয়ার করেই সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার শুরু করেছে বিজেপি।

রাজ্যে দলের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিজেপির আর এক কেন্দ্রীয় নেতা অরবিন্দ মেননও করোনা ইস্যুতে এদিন কাঠগড়ায় তুলেছে রাজ্য সরকারকে। তিনি বলেছেন, “করোনা পরিস্থিতিতে গরিবদের জন্য খাদ্যের ব্যবস্থা করতে ব্যর্থ রাজ্য সরকার। পরিযায়ী শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনতেও ব্যর্থ।” বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ শুক্রবার পরিযায়ী শ্রমিক ইস্যুতে ফের রাজ্যের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন। তাঁর অভিযোগ, বাংলার বাইরে যাঁরা আছেন, রাজ্য সরকার আন্তরিকভাবে চায় না যে তাঁরা ফিরে আসুক। কারণ, তাঁরা ফিরে এলে প্রত্যেকের জন্য কোয়ারেন্টাইনের ব্যবস্থা করতে হবে। ভিন রাজ্য থেকে গাড়ি নিয়ে যাঁরা আসছেন, তাঁদের অনেককেই ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না বলেও অভিযোগ দিলীপ ঘোষের। তৃণমূল শুধু শুধুই কেন্দ্রের ঘাড়ে দোষ চাপাচ্ছে আর টুইট করে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে বলে মন্তব্য বিজেপির রাজ্য সভাপতির।

[আরও পড়ুন: অসুস্থ মাকে দেখতে ‘রেড জোন’ হাওড়ায় যাওয়ার শাস্তি! স্থানীয়দের হাতে প্রহৃত দম্পতি]

এদিকে, বারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং ফের অভিযোগ করেছেন, তাঁকে খুনের চক্রান্ত হচ্ছে। এই মর্মে রাজ্যপালকে চিঠিও দিয়েছেন বিজেপি সাংসদ। সেই চিঠিতে বারাকপুরের এক পুলিশ আধিকারিকের বিরুদ্ধেও অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি। এ প্রসঙ্গে কৈলাস বিজয়বর্গীয় আবার টুইটে অভিযোগ করেছেন, পশ্চিমবঙ্গের পুলিশ বিজেপি সাংসদকে প্রাণে মারার চক্রান্ত করছে। করোনা সংক্রমণের মতো সংকটজনক পরিস্থিতিতেও রাজনীতির রাশ কিছুতেই যে ছাড়ছে না বিজেপি, এসবই তার প্রমাণ, এমনটাই মত রাজনৈতিক মহলের একাংশের।

[আরও পড়ুন: ‘পরিযায়ীদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর পদক্ষেপ প্রশংসনীয়’, ফের টুইট রাজ্যপালের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement