BREAKING NEWS

৯ মাঘ  ১৪২৮  রবিবার ২৩ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

একুশের মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিকের সিলেবাসে অনেকটা কাঁটছাট, ঘোষণা শিক্ষামন্ত্রীর

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: November 25, 2020 4:02 pm|    Updated: November 25, 2020 6:09 pm

The syllabus of Madhyamik-Higher Secondary has been cut | Sangbad Pratidin

দীপঙ্কর মণ্ডল: করোনা কালে (Coronavirus) ২০২১ সালে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকের সিলেবাসেও কাঁটছাট করবে শিক্ষাদপ্তর। পরীক্ষার্থীদের সুবিধার কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানালেন শিক্ষামন্ত্রী। যদিও পরীক্ষা কবে হবে সে বিষয়ে কিছু জানাননি তিনি।

চলতি বছরের মার্চে করোনা থাবা বসায় বাংলায়। যার জেরে নিরাপত্তার কারণে বন্ধ করে দেওয়া হয় সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ফলে এবছরে উচ্চমাধ্যমিকের সব কটি পরীক্ষাও নেওয়া সম্ভব হয়নি। এদিকে করোনার দাপট এখনও কমেনি। স্কুল-কলেজ এখনও বন্ধ। স্নাতক স্তরের পরীক্ষা হয়েছে বাড়িতে বসে। ফলে পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা কীভাবে হবে তা নিয়ে প্রবল দুশ্চিন্তায় ছিল পরীক্ষার্থীরা। অনেকের মনেই প্রশ্ন ছিল, আদৌ পরীক্ষা হবে কি না। যদিও মুখ্যমন্ত্রী এপ্রশ্নের উত্তর দিয়েছিলেন। জানিয়েছিলেন, দেরিতে হলেও পরীক্ষা হবে। যেহেতু দীর্ঘদিন ধরে স্কুল বন্ধ সেই কারণে পরীক্ষার্থীদের মনে প্রশ্ন ছিল, সিলেবাস কি থাকবে। বুধবার সেই প্রশ্নের উত্তর দিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee)। 

[আরও পড়ুন: ‘উপত্যকাও শান্ত, কিন্তু বাংলায় শান্তি নেই’, মমতাকে বিঁধতে কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনা টানলেন দিলীপ]

এদিন শিক্ষামন্ত্রী জানালেন, “২০২১-এর মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকে ৩০ থেকে ৩৫ শতাংশ সিলেবাস বাদ দেওয়ার প্রস্তাব এসেছিল। মধ্যশিক্ষা পর্ষদ, উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ ও স্কুলশিক্ষা বিশেষজ্ঞ কমিটি এই প্রস্তাব দেয়। স্কুলশিক্ষা দপ্তর সেই প্রস্তাব মেনে নিয়েছে।”  শিক্ষামন্ত্রীর এই ঘোষণায় অত্যন্ত খুশি পরীক্ষার্থীরা। বে শিক্ষামহলের একটি অংশের বক্তব্য, সিলেবাস কমিয়ে দেওয়া হলে সর্বভারতীয় প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষাগুলিতে পিছিয়ে পড়তে পারে রাজ্যের পড়ুয়ারা। যদিও কবে পরীক্ষা হবে তা নিয়ে এখনও কোনও তথ্যই নেই আগামী বছরের মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের কাছে। যেহেতু মুখ্যমন্ত্রী আগেই জানিয়েছিলেন, যা পরিস্থিতি তাতে প্রতিবারের মতো ফেব্রুয়ারি মাসে পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হবে কি না, তা দেখে নেওয়া হবে। শিক্ষাদপ্তর পড়ে জানাবে। তাই পরীক্ষার্থীদের অনুমান, কিছুটা পিছতেও পারে পরীক্ষা। বাম শিক্ষক নেতা স্বপন মণ্ডলের কথায়, “কবে পরীক্ষা হবে বা কবে স্কুল খুলবে সেটা নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী কথা বলছেন না। অথচ মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার সিলেবাস কমিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এ থেকে বোঝা যায় রাজ্য সরকার দিশাহীন হয়ে পড়েছে।” 

[আরও পড়ুন: ‘সিপিএম, বিজেপি লোভী আর ভোগী, তৃণমূল ত্যাগী’, বাঁকুড়া থেকে বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ মমতার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে