BREAKING NEWS

১১ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

‘রণক্লান্ত’, দলীয় মুখপত্রের সম্পাদকীয়তে ফের কংগ্রেসকে তোপ তৃণমূলের

Published by: Sulaya Singha |    Posted: December 8, 2021 12:01 pm|    Updated: December 8, 2021 12:36 pm

TMC again attacks Congress in mouthpiece 'Jago Bangla' | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একবার নয়, বারবার। দিল্লি থেকে মিজোরাম, গোয়া থেকে কলকাতা- প্রত্যেক জায়গাতেই তৃণমূলের তোপের মুখে পড়ছে কংগ্রেস। হাত শিবিরের ভিত নাড়িয়ে দিতে প্রতিবারই সরব হচ্ছে রাজ্যের শাসকদল। বুধবারও দলীয় মুখপত্র ‘জাগো বাংলা’য় তীব্র আক্রমণ শানানো হল কংগ্রেসকে।

এদিন ‘জাগো বাংলা’র সম্পাদকীয়তে কংগ্রেসকে ‘রণক্লান্ত’ বলে কটাক্ষ করা হয়। লেখা হয়েছে, “বিজেপিকে প্রতিরোধ করার কথা ছিল কংগ্রেসের। তারাই ছিল কেন্দ্রের বিরোধী দল। কিন্তু কংগ্রেস উদাসীন, রণক্লান্ত, ভারাক্রান্ত, অন্তর্দ্বন্দ আর দলীয় জটিলতায় বিদীর্ণ। যেন ব্যাটন বইতে অপারগ। কিন্তু সময় পড়ে থাকে না, কাউকে এগিয়ে আসতেই হয়। তৃণমূল কংগ্রেস সেই দায়িত্ব পালন করবে। তারাই আসল কংগ্রেস। মানুষকে বোঝাবে।” তবে একই সঙ্গে শেষ লাইনে লেখা হয়েছে, “সকলকে সঙ্গে নিয়েই চলতে চান অভিষেকরা।”

[আরও পড়ুন: ১‌৪৪টি আসনে মাত্র ১০! কলকাতা পুরভোটে বিজেপির ‘টার্গেট’ নিয়ে দলের অন্দরে জোর বিতর্ক]

উল্লেখ্য, মঙ্গলবারই দিল্লিতে সংসদ ভবনে দলীয় সাংসদদের নিয়ে বৈঠক করেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। যেখানে দলীয় অবস্থান স্পষ্ট করে দেন। জানিয়ে দেন, তৃণমূল নিজেদের শক্তি বাড়াবে। ২০২৪ সালে বিজেপিকে দিল্লির মসনদ থেকে উৎখাত করতে ঘরে-বাইরে লড়াই করবে তৃণমূল। তার পরের দিনই কংগ্রেসের বিরুদ্ধে তোপ দেগে তৃণমূলের মুখপত্র আরও একবার যেন স্পষ্ট করে দিতে চাইল যে জাতীয় স্তরে বিজেপির বিকল্প কেবলমাত্র মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় এবং তাঁর দলই।

কংগ্রেসের নীতি, মানসিকতা, কর্মসূচি নিয়ে বারবার প্রশ্ন তোলা হচ্ছে ‘জাগো বাংলা’য় (Jago Bangla)। এমনকী গত শুক্রবারই ‘কংগ্রেস ডিপফ্রিজে’ চলে গিয়েছে বলেও কটাক্ষ করা হয়। এরপর পুরভোটের আগে তৃণমূলের নিশানায় উঠে আসে সিপিএমও। খোঁচা দিয়ে বলা হয়েছিল, নিজেদের নাম জাদুঘরে খোদাই করে রাখার চ্যালেঞ্জ নিয়েছে বামেরা। এবার ফের কটাক্ষের তীরে বিদ্ধ কংগ্রেস।

এদিকে, উত্তর সম্পাদকীয়তে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) সঙ্গে তুলনা টানা হল দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর। প্রাক্তন বিধায়ক প্রবীর ঘোষাল লেখেন, দু’জনই জননেত্রী। দু’জনের রাজনৈতিক জীবনে অদম্য সংগ্রামের উজ্জ্বল দ্যুতি। কংগ্রেসের চালিকাশক্তি ছিলেন ইন্দিরা। একইরকম লড়াকু মানসিকতা মমতারও। তবু তফাত একটাই। পরিবারের রাজনৈতিক ঐতিহ্য কোনওদিন মমতার আগুন ডানায় শক্তির জোগান দেয়নি।

[আরও পড়ুন: Lionel Messi: চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মেসি ম্যাজিক, জোড়া গোল টপকে গেলেন কিংবদন্তি পেলেকে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে