Advertisement
Advertisement
Suvendu Adhikari

শাহজাহান তো হল, এবার শুভেন্দুকে গ্রেপ্তার করুক CBI, দাবি কুণালের

মিঠুন চক্রবর্তী, ব্রিজভূষণকেও গ্রেপ্তারির দাবি জানিয়েছেন তৃণমূল মুখপাত্র।

TMC spokesperson Kunal Ghosh seeks Suvendu Adhikari's arrest | Sangbad Pratidin
Published by: Paramita Paul
  • Posted:February 29, 2024 8:46 am
  • Updated:February 29, 2024 9:42 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইডির উপর হামলার ৫৫ দিন পর অবশেষে জালে শেখ শাহজাহান। আদালতের ‘বাধা’ সরার পরেই পুলিশের জালে ‘সন্দেশখালির বাঘ’। এর পরই তৃণমূলের প্রশ্ন, শেখ শাহজাহান তো হল, শুভেন্দুকে কবে গ্রেপ্তার করবে সিবিআই? শুধু বিরোধী দলনেতা নয়, অ্য়ালকেমিস্ট মামলায় মিঠুন চক্রবর্তী, মহিলা কুস্তিগিরদের হেনস্তায় অভিযুক্ত ব্রিজভূষণকেও দ্রুত গ্রেপ্তারির দাবি জানিয়েছেন তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক তথা মুখপাত্র কুণাল ঘোষ।

বৃহস্পতিবার সকালে গ্রেপ্তার হয়েছেন সন্দেশখালির ‘বেতাজ বাদশা’ শাহজাহান। তৃণমূল মুখপাত্রের বেঁধে দেওয়া ডেডলাইনের দুদিনের মধ্যে ‘খাঁচা বন্দি হল বাঘ’। তার পরই নিজের এক্স হ্যান্ডেলে (সাবেক টুইটার) সরব হয়েছেন কুণাল। একদিকে শুভেন্দুকে গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছেন তিনি তো অন্যদিকে  এই গ্রেপ্তারির জন্য যেমন অভিষেক বন্দ্য়োপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। সিবিআইকে খোঁচা দিয়ে কুণাল লিখেছেন, “রাজ্য পুলিশ তো কাজ করল। এবার সিবিআই নারদ মামলায় সিবিআইয়ের এফআইআরে নাম থাকা শুভেন্দু অধিকারী এবং অ্যালকেমিস্ট চিট ফান্ডের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাস্যাডর মিঠুন চক্রবর্তীকে গ্রেপ্তার করুক।” 

Advertisement

 

Advertisement

[আরও পড়ুন: ২০১৪-র ভোটে তৃণমূলের অ্যাকাউন্টে ‘গরমিল’! অরূপ বিশ্বাসকে তলব ইডির]

অবশেষে শাহজাহানকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়েছে অভিষেকে বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্য়, মত কুণাল ঘোষের। তিনি লিখেছেন, “আদালতের বাধা ছিল, পুলিশ কাজ করতে পারেনি। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সৌজন্যে আদালত বাধা সরিয়েছে। পুলিশ যা করার করেছে।” প্রসঙ্গত, শাসকদলের দাবি করে আসছে, আদালতই হাত-পা বেঁধে দিয়েছে রাজ্য পুলিশের। নাহলে আগেই গ্রেপ্তার করা হত তাঁকে। দাবির স্বপক্ষে আদালতের ৭ ফেব্রুয়ারির নির্দেশনামার একটি অংশ প্রকাশ করে তারা। যেখানে শেখ শাহজাহানের বিরুদ্ধে রাজ্য পুলিশের  তদন্তে ‘স্থগিতাদেশ’ জারি করেছিল আদালত। সেই রায়ের পরিবর্তন চেয়ে এদিন আদালতের দ্বারস্থ হয় রাজ্য। বৃহস্পতিবারই হাই কোর্ট স্পষ্ট করে দেয়, শাহজাহানকে গ্রেপ্তারিতে বাধা নেই। রাজ্য় পুলিশ, সিবিআই বা ইডি যে কেউ গ্রেপ্তার করতে পারে। এর পরই রাতেই তাঁকে গ্রেপ্তার করল রাজ্য পুলিশ। 

 

 

[আরও পড়ুন: মাঝপথে গ্রেপ্তার করে পুলিশ, দিল্লির ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং টিমকে এবার সন্দেশখালি যেতে অনুমতি হাই কোর্টের]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ