BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

জালিয়াতি রুখতে মার্কশিটে গোপন চিহ্ন রাখছে রবীন্দ্র মুক্ত বিদ্যালয়

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 6, 2016 9:27 am|    Updated: June 4, 2019 7:18 pm

Rabindra Mukta Vidyalaya's special Marksheets to prevent cheating

শ্রীষিতা ঘোষ: জালিয়াতি রুখতে মার্কশিটে বিশেষ গোপন চিহ্ন ব্যবহার করছে রবীন্দ্র মুক্ত বিদ্যালয়৷ আপাতদৃষ্টিতে মার্কশিটটি দেখলে চিহ্নগুলি চোখে পড়বে না বলেই জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ৷ তবে ফোটোকপিতে ও আলট্রা ভায়োলেট রশ্মির ব্যবহারে ওগুলি প্রতিফলিত হবে৷ সেক্ষেত্রে মার্কশিট জাল কি না তা সহজেই বোঝা যাবে৷ চলতি বছর থেকেই এমন ধরনের মার্কশিট চালু হয়েছে৷ চিহ্নগুলি তৈরি করা হয়েছে বিশেষ ধরনের সফটওয়্যারের মাধ্যমে৷ জাল মার্কশিট রুখতে ইতিমধ্যেই কড়া ভূমিকা নিয়েছে রাজ্য৷ ডিজিটাল মার্কশিট ও শংসাপত্র চালু করতে রাজ্যের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলিকে ইতিমধ্যেই নির্দেশ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়৷ তাঁর নির্দেশমতো আগামিদিনে ডিজিটাল মার্কশিট ও শংসাপত্র তৈরির পথে হাঁটছে এই প্রতিষ্ঠান৷ কিন্তু তার আগে মার্কশিটে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার করে জালিয়াতি রুখতে চাইছে কর্তৃপক্ষ৷
কী বিশেষত্ব রয়েছে মার্কশিটে?
এক্ষেত্রে মার্কশিটের নিচের দিকে একটি বিশেষ ডিজাইন থাকবে৷ মার্কশিটটি ফোটোকপি করা হলেই ওই ডিজাইন বদলে যাবে লেখায়৷ ডিজাইনের জায়গায় ইংরেজি অক্ষরে লেখা আকারে ফুটে উঠবে ‘অরিজিনাল কপি’৷ যদি কেউ জাল মার্কশিট তৈরি করে তবে ফোটোকপি করলেই তা দ্রুত ধরা পড়ে যাবে৷ এছাড়াও মার্কশিটের এক জায়গায় সভাপতির একটি স্বাক্ষর রয়েছে৷ যা খালি চোখে দেখা যাবে না৷ একমাত্র আলট্রা ভায়োলেট (ইউভি) রশ্মির নিচেই ওই স্বাক্ষরটি দেখা যাবে৷ এই পদ্ধতিতেও জাল মার্কশিট শনাক্ত করা সম্ভব৷ রাজ্যের মধ্যে এমন উদ্যোগ প্রথম বলে দাবি রবীন্দ্র মুক্ত বিদ্যালয়ের সভাপতি ফাল্গুনী মুখোপাধ্যায়ের৷
এছাড়াও জাল মার্কশিট নিয়ে এসে রবীন্দ্র মুক্ত বিদ্যালয়ে ভর্তি আটকাতেও তৎপর কর্তৃপক্ষ৷ এ প্রসঙ্গে সভাপতি জানান, খড়গপুর আইআইটিতে রবীন্দ্র মুক্ত বিদ্যালয়ের একটি শাখা রয়েছে৷ সেখানে কিছু সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রী স্কুলে না পড়েই উচ্চমাধ্যমিকের ফেল করা জাল মার্কশিট দেখিয়ে ভর্তি হত৷ মার্কশিটে দেখানো হত যে, ওই পড়ুয়ারা একটি বা দু’টি বিষয়ে ফেল করেছে৷ ওই ফেল করা বিষয়গুলিতে রবীন্দ্র মুক্ত থেকে পরীক্ষা দিয়ে তারা উচ্চমাধ্যমিকের নতুন মার্কশিট পেয়ে যেত, যেখানে সবক’টি বিষয়ের নম্বরই উল্লেখ থাকত৷ এইভাবে জাল মার্কশিট দেখিয়ে পরীক্ষা দেওয়ার পর তারা রবীন্দ্র মুক্ত থেকে আসল মার্কশিট সংগ্রহ করত৷ এই জালিয়াতি আটকাতে সমস্ত মার্কশিট উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদকে দিয়ে ‘ভেরিফিকেশন’ করানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ এছাড়াও চলতি বছর থেকেই প্রতিষ্ঠানের সমস্ত কাজই অনলাইনে হতে চলেছে৷ এক্ষেত্রে অনলাইনেই ভর্তিপ্রক্রিয়া, রেজিস্ট্রেশন, ফর্ম পূরণ, অ্যাডমিট কার্ড বিলি করা হবে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে