২৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  শনিবার ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

স্টাফ রিপোর্টার: খেলতে খেলতে টোটো স্টার্ট করে দিয়েছিল বছর পাঁচেকের ছোট্ট মেয়ে। সেই টোটোর ধাক্কাতেই মৃত্যু হল আড়াই বছরের শিশুর। এই ঘটনায় শোকের ছায়া নিউটাউনে। ইতিমধ্যেই টোটোচালককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

নিউটাউনের রূপশ্রী কমপ্লেক্সের বাসিন্দা আয়ুষ রায়চৌধুরি। বুধবার মা মমতা রায়চৌধুরির সঙ্গে রাস্তা দিয়ে হাঁটছিল বছর আড়াইয়ের আয়ুষ। ফাঁকা রাস্তার উলটোদিকে দাঁড়ানো ছিল একটি টোটো। চালক অজয় রায় বাজার থেকে ব্যাগ আনতে গিয়েছিলেন। টোটোর মধ্যেই বসে ছিল তাঁর পাঁচ বছরের মেয়ে তিয়া রায়। চাবি লাগানো ছিল টোটোতেই। বাবার অনুপস্থিতিতে আচমকাই টোটোতে স্টার্ট দেয় তিয়া। খেলার ছলে চাপ দিয়ে দেয় অ্যাক্সিলেরেটরে। অজয়বাবু কিছু বুঝে ওঠার আগেই গড়াতে শুরু করে টোটো। মুহূর্তে তা ধাক্কা মারে রাস্তা দিয়ে হাঁটতে থাকা আয়ুষের মায়ের গায়ে। আচমকা ধাক্কায় মাটিতে পড়ে জ্ঞান হারান তিনি। জ্ঞান ফিরতেই তিনি দেখেন রক্তাক্ত অবস্থায় আয়ুষ রাস্তায় পড়ে রয়েছে।

অজয়বাবু বাজার থেকে এসে দেখেন মেয়ে দাঁড়িয়ে রাস্তায়। তাঁর টোটো চালক ছাড়াই চলছে। কোনওরকমে দৌড়ে গিয়ে টোটোর স্টার্ট বন্ধ করেন অজয়বাবু। সংজ্ঞাহীন আয়ুষকে নিয়ে তার মা নিউটাউনের এক বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যান। খবর দেওয়া হয় আয়ুষের বাবাকে। ছেলের শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে বিশ্বজিৎবাবু ছেলেকে নিয়ে দক্ষিণ কলকাতার অন্য একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যান। ঘণ্টা দুয়েক পর মৃত্যু হয় আয়ুষের। এদিনের ঘটনার জেরে ভেঙে পড়েছেন আয়ুষের মা মমতা রায়চৌধুরি-সহ গোটা পরিবার।

[আরও পড়ুন: চলন্ত ট্রেনে উঠতে গিয়ে বিপত্তি, মৃত্যুর মুখ থেকে যাত্রীকে বাঁচিয়ে ‘হিরো’ RPF জওয়ান ]

ঘটনায় টোটোচালক অজয় রায়কে গ্রেপ্তার করেছে নিউটাউন থানার পুলিশ। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে ঘাতক টোটোটিকেও। টোটোচালক জানিয়েছেন, সকালে স্ত্রী মেয়েকে নিয়ে আমি বাজারে এসেছিলাম। মেয়ে টোটোয় বসেছিলাম। আচমকা ও টোটো স্টার্ট দিয়ে দেবে বুঝতে পারিনি। তাঁর টোটোর ধাক্কায় আড়াই বছরের এক শিশু মারা গিয়েছে মানতে পারছেন না তিনি নিজেও।

[আরও পড়ুন: প্রাক্তন প্রেমিকার ছবিতে সিঁদুর পরিয়ে ফেসবুকে পোস্ট, পুলিশের জালে যুবক]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং