BREAKING NEWS

১০ কার্তিক  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মহিলার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ ছবি, ব্যবসায়ীকে ব্ল্যাকমেল করে গ্রেপ্তার ২

Published by: Bishakha Pal |    Posted: January 7, 2019 10:45 am|    Updated: January 7, 2019 10:45 am

Trader blackmailed, 2 held

অর্ণব আইচ: পোস্তার হোটেলে স্বল্পপরিচিত মহিলার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ ছবি তোলাই কাল হয়েছিল গুয়াহাটির ব্যবসায়ীর। সেই ছবি এক বন্ধুর হাতে যাওয়ামাত্রই অন্য এক যুবকের মাধ্যমে ব্যবসায়ীকে ব্ল্যাকমেল করতে শুরু করে সেই যুবক। রীতিমতো ফোন করে হুমকি। সঙ্গে তোলাবাজিও। আরও টাকা চাই। শেষ পর্যন্ত তোলাবাজি ও ব্ল্যাকমেলের অভিযোগে রবি বর্মা ও শ্রবণ সোনি নামের পোস্তার দুই ব্যবসায়ীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, গুয়াহাটির ওই ব্যবসায়ীর পোস্তার হাঁসপুকুরিয়া স্ট্রিটে সোনার দোকান রয়েছে। সেই সূত্রে তিনি কলকাতায় যাতায়াত করেন। তাঁর সঙ্গে শহরের এক মহিলার সম্পর্ক  গড়ে ওঠে। একটি হোটেলে গিয়ে দু’জন মিলে ঘনিষ্ঠ ছবিও তোলেন। সেই ছবি ব্যবসায়ীর মোবাইলে ছিল। ব্যবসায়িক সূত্রেই তাঁর সঙ্গে রবি বর্মা নামে হরিরাম গোয়েঙ্কা স্ট্রিটের এক ব্যবসায়ীর পরিচয় হয়েছিল। বন্ধুত্বের সূত্রেই ছবিগুলি তিনি রবিকে দেখান। তিনি কয়েক মিনিটের জন্য মোবাইল রেখে অন্য জায়গায় গিয়েছিলেন। তার মধ্যেই রবি তাঁর মোবাইল খুলে ছবিগুলি নিজের মোবাইলে ডাউনলোড করে নেয়। গুয়াহাটির ব্যবসায়ী বুঝতেও পারেননি। অভিযোগ, রবি ওই ছবিগুলি তারই এক বন্ধু শ্রবণ সোনিকে পাঠায়। এবার দু’জন মিলেই তাকে ব্ল্যাকমেল করার ছক কষে।

জাল ভিসা-সহ কলকাতায় ধৃত নাইজেরিয় অভিনেতা ]

শ্রবণ একটি নতুন সিমকার্ড নিয়ে তার মোবাইলে ঢুকিয়ে প্রথমে ওই ব্যবসায়ীকে মহিলার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় থাকা একটি ছবি পাঠায়। এর পর সে ফোন করে বলে, ব্যবসায়ীর এরকম অনেক ছবি তাদের কাছে রয়েছে। এই ছবি গুয়াহাটিতে তাঁর পরিবার ও বাগদত্তার কাছে পাঠানো হবে। তা আটকাতে ব্যবসায়ী যেন তাদের হাতে সাড়ে সাত লাখ টাকা দেন। কয়েকদিন আগে টালিগঞ্জে দেখা করে শ্রবণকে ব্যবসায়ী ৫০ হাজার টাকা দিয়ে বিষয়টি মিটিয়ে নিতে বলেন। কিন্তু শ্রবণ তাঁকে বলে, কম টাকা দিলেই সে গুয়াহাটিতে ওই ছবি পাঠাবে। একাধিকবার ফোন করে তোলা চেয়ে তাঁকে হুমকিও দেওয়া হয়। শেষ পর্যন্ত আর হুমকি ও ব্ল্যাকমেলের তোয়াক্কা না করে পোস্তা থানায় ব্যবসায়ী অভিযোগ দায়ের করেন।

মোবাইলের সূত্র ধরে তদন্ত শুরু করে পুলিশ জানতে পারে, অভিযুক্ত বড়বাজার ও পোস্তা এলাকায় ঘোরাঘুরি করছে। ওই ব্যবসায়ীকে দিয়েই ফাঁদ পাতে পুলিশ। তোলার টাকা নিতে এসে পুলিশের পাতা ফাঁদে পা দেয় শ্রবণ। জেরার মুখে শ্রবণ স্বীকার করে মাস্টার প্ল্যান হচ্ছে ব্যবসায়ীর বন্ধু রবির। এর পর রবিকেও পুলিশ গ্রেপ্তার করে। তার মোবাইল থেকেই উদ্ধার হয় ওই ছবিগুলি। পুরো ঘটনাটির তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

শ্লীলতাহানির পর দুই যুবতীকে ‘অপহরণ’, রাতের শহরে শাটল আতঙ্ক ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement