২৮ আশ্বিন  ১৪২৬  বুধবার ১৬ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

অর্ণব আইচ: দিনে গ্রিল কারখানার মেকানিক। রাতে বাইক চোর। বন্দর এলাকায় পর পর বাইক চুরি। সিসিটিভির ফুটেজে ধরা পড়েছিল নীল হেলমেট পরা দুষ্কৃতীর ছবি। শেষ পর্যন্ত কলকাতা ও হাওড়ার একশোটি সিসিটিভির ফুটেজ ঘেঁটে একবালপুর থানার পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হল কুখ্যাত বাইক চোর রাজেশ আলি সর্দার ও হাওড়া থেকে তার সঙ্গী মহম্মদ আমিন। হাওড়ার টিকিয়াপাড়া থেকে উদ্ধার হল তিনটি বাইক।

[আরও পড়ুন: পুলিশের উর্দি পরে কলকাতায় ব্যবসায়ীকে অপহরণ, চলল গুলি]

পুলিশ জানিয়েছে, একবালপুর, মেটিয়াবুরুজ-সহ বিভিন্ন জায়গা থেকে চুরি হচ্ছিল বাইক। তদন্ত শুরু করে পুলিশ প্রথমে এলাকার সিসিটিভির ফুটেজ পরীক্ষা করে। প্রত্যেকটি ক্ষেত্রেই নীল হেলমেট পরা এক যুবককে বাইক নিয়ে পালাতে দেখা যায়। সেই সূত্র ধরে কলকাতার বিভিন্ন জায়গার সিসিটিভি ফুটেজ ঘেঁটে দেখা যায়, ওই ব্যক্তি পালিয়েছে হাওড়ার দিকে। হাওড়ার শিবপুর পুলিশ লাইনের সিসিটিভি পরীক্ষা করেও ওই যুবকের ফুটেজ ধরা পড়ে। সেই সূত্র ধরেই তাকে শনাক্ত করা হয়। একবালপুরের ভূকৈলাস রোডের ওই বাসিন্দা রাজেশ পুরনো বাইক চোর। খোঁজ নিয়ে পুলিশ জানতে পারে, দিনে সে গ্রিলের কারখানায় কাজ করে। রাতে বাইক চুরি। সেই সূত্র ধরেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। কলকাতা থেকে বাইক চুরি করে হাওড়ায় সঙ্গী আমিনকে সেগুলি সরবরাহ করত। দু’জনকে জেরা করে আরও তথ্য জানার চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: যোধপুর পার্কে ফ্ল্যাটে বৃদ্ধাকে খুন, পুলিশের জালে মূল অভিযুক্ত]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং