১৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২ জুন ২০২০ 

Advertisement

করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় জামিনের আবেদন, কলকাতা হাই কোর্টের দ্বারস্থ ২ চিটফান্ড কর্তা

Published by: Sayani Sen |    Posted: April 4, 2020 7:46 pm|    Updated: April 4, 2020 7:46 pm

An Images

শুভঙ্কর বসু: করোনার কারণ দেখিয়ে এবার জামিনের আবেদন দুই চিটফান্ড কর্তার। ইতিমধ্যেই জামিনের আবেদন জানিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন চিটফান্ড সংস্থা এমপিএস কর্তা প্রমথনাথ মান্না এবং চিটফান্ড সংস্থা পৈলান গ্রুপের কর্ণধার অপূর্ব সাহা।

নভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে সংশোধনাগারগুলিতে উপচে পড়া ভিড় কমানোর নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। সেই মোতাবেক রাজ্যে প্রায় তিন হাজার বন্দীর অন্তর্বর্তী জামিন সুপারিশ করেছে কলকাতা হাই কোর্টের হাই পাওয়ার কমিটি। এদের তিন মাসের জন্য অন্তর্বর্তী জামিন বা প্যারোলে মুক্তি দেবে রাজ্য সরকার। যদিও আর্থিক অপরাধে অভিযুক্তদের জামিনের ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ রয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে পয়লা এপ্রিল জামিনের আবেদন জানিয়ে বিচারপতি জয়মাল্য বাগচি ও বিচারপতি দীপঙ্কর দত্ত ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হন এমপিএস কর্ণধার প্রমথনাথ মান্না। ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে তাঁর হয়ে মামলার শুনানিতে আবেদন করেন তার কন্যা কৃষ্ণা মান্না। কৃষ্ণাদেবীর আবেদন ছিল, তাঁর বাবা প্রমথনাথ মান্না একজন বয়স্ক ব্যক্তি। তিনি ডায়াবেটিসের রোগী। এই পরিস্থিতিতে জেলে থাকলে তাঁর করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে। তাই জামিনের আবেদন মঞ্জুর করা হোক।

[আরও পড়ুন: করোনা মোকাবিলায় বেলেঘাটা আইডি-কে অনুসরণ করবে রাজ্যের সব হাসপাতাল]

যদিও এই আবেদনের প্রেক্ষিতে কোনও সিদ্ধান্ত নেয়নি ডিভিশন বেঞ্চ। আপাতত দমদম কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে রয়েছেন প্রমথনাথ মান্না। সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষের কাছে প্রমথনাথ মান্নার স্বাস্থ্য সংক্রান্ত একটি বিস্তারিত রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছে হাই কোর্ট। পাশাপাশি সিবিআইকে নোটিস পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চ। আগামী ৮ তারিখ ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে এই মামলার শুনানি হবে।

অন্যদিকে, উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুর সংশোধনাগারে বন্দি রয়েছেন চিটফান্ড সংস্থা পৈলান অপূর্ব সাহা। করোনার কারণ দেখিয়ে তিনিও ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে জামিনের আবেদন জানিয়েছিলেন। যদিও সেই আবেদন নাকচ হয়ে গিয়েছে। তাঁকে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনা আক্রান্ত ১১, বেলেঘাটা আইডিতে সুস্থ হয়েছেন চারজন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement