১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মিশন-২০২১, এখন থেকেই রণনীতি সাজাতে দিল্লিতে বঙ্গ নেতাদের জরুরি তলব শাহর

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: June 28, 2019 8:01 pm|    Updated: June 28, 2019 8:01 pm

Union Home Minister Amit Shah calls Bengal leaders for meeting

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: সদস্য সংগ্রহ থেকে সংগঠনের হালহকিকৎ। পাশাপাশি নির্বাচন পরবর্তী সময়ে রাজ্যের রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে দলের পরবর্তী রণকৌশল। এসব নিয়ে আলোচনার জন্যই বঙ্গ বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বকে দিল্লিতে জরুরি তলব করলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। কাল রবিবার, শাহর সঙ্গে বৈঠক করবেন এ রাজ্যের শীর্ষ নেতৃত্ব। ডাকা হয়েছে দলের সাংসদদেরও। ২০২১-এর বিধানসভা ভোটের কথা মাথায় রেখে কার্যত এখন থেকেই বাংলায় দলের কৌশল সাজানোর কাজ শুরু করে দিতে চান নরেন্দ্র মোদি-অমিত শাহ। লোকসভা ভোটের সাফল্যের পর এবার বাংলা জয়ের লক্ষ্যে ২০২১-এর রণনীতি তৈরি করে নিতে চাইছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ।

গত লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় বিপুল সাফল্য পেয়েছে বিজেপি। দুই থেকে লাফিয়ে তাদের প্রাপ্ত আসন এখন আঠারো। প্রতিদিনই অন্য রাজনৈতিক দল থেকে গেরুয়া শিবিরে যোগদানের ঢল চলছে। এই পরিস্থিতিতে আগামী ৬ জুলাই থেকে শুরু হচ্ছে সদস্য সংগ্রহ অভিযান। সারা দেশজুড়েই সদস্য সংগ্রহ হবে। বাংলায় বিজেপি এবার প্রায় দু’কোটি সদস্য করার টার্গেট নিয়েছে। দলীয় সূত্রে খবর, এই সদস্য সংগ্রহ নিয়ে পরিকল্পনা কী হবে সেটা নিয়েও আলোচনা হবে দিল্লির বৈঠকে। এছাড়াও, দলের সাংগঠনিক নির্বাচনও খুব শীঘ্র শুরু হচ্ছে। রাজ্যস্তরেও সাংগঠনিক পদে রদবদল করা হবে। সেটা নিয়েও আলোচনা হতে পারে বৈঠকে। বহু বুথে দলীয় সংগঠন এখনও দুর্বল। সেখানে সংগঠনকে আরও পোক্ত করা কীভাবে যায় তা নিয়েও আলোচনা হবে। সামনে কলকাতা-সহ একাধিক জায়গায় পুরভোট রয়েছে। বিশেষত কলকাতা পুরসভার দিকেও তাকিয়ে বিজেপি নেতৃত্ব। শাহর সঙ্গে বৈঠকে কলকাতা পুরসভার প্রতিটা ওয়ার্ডে দলের সংগঠন পোক্ত করা নিয়ে বেশ কিছু পরামর্শও দিতে পারেন বিজেপি সভাপতি।

এছাড়া, রাজ্যের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্য নেতাদের সঙ্গে কথা বলবেন অমিত শাহ। ভোটপর্ব মেটার পর রাজ্যজুড়েই বিভিন্ন জায়গায় হিংসার ঘটনা ঘটছে। বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষের ঘটনায় উত্তপ্ত বঙ্গের রাজনীতি। ভাটপাড়া নিয়ে সংসদীয় দলের রিপোর্টও শাহর কাছে ইতিমধ্যেই জমা পড়েছে। রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে দলের আন্দোলন-কর্মসূচির রূপরেখা কী হবে সেটাও আলোচনা হওয়ার কথা দিল্লির বৈঠকে। একইসঙ্গে দলের বর্তমানে যে ১৮ জন সাংসদ তাঁদের ভূমিকা কী হবে, তাঁরা কীভাবে এলাকায় কাজ করবেন সেটা নিয়েও দিকনির্দেশ করতে পারেন শাহ। কাল শাহর সঙ্গে বৈঠকে রাজ্যের দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়-সহ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, রাহুল সিনহা, মুকুল রায়, সুব্রত চট্টোপাধ্যায় ছাড়াও দলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদকরা থাকবেন। বাংলার ১৮ জন সাংসদকেও ওই বৈঠকে ডাকা হতে পারে বলে খবর।

এদিকে, কাটমানি ইস্যুতে এবার কলকাতায় আন্দোলনে নামছে রাজ্য বিজেপি। ২ জুলাই হাজরায় বিক্ষোভ সভা করবে বিজেপির যুব সংগঠন যুবমোর্চা। সভার অনুমতি পুলিশ না দিলে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ি অভিযান করবে বিজেপি। রাজ্য বিজেপির অন্যতম সাধারণ সম্পাদক রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়ের হুঁশিয়ারি, হাজরা মোড়ে সভার অনুমতি না দেওয়া হলে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির সামনেই অবস্থান-বিক্ষোভ করবে তারা। আর ১ জুলাই জেলায় জেলায় হবে বিক্ষোভ।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে