Advertisement
Advertisement
Union Minister Smriti Irani slams WB government

Smriti Irani: ‘কেন্দ্রীয় প্রকল্পের টাকা খরচই করতে পারেনি রাজ্য’, দাবি স্মৃতির, পালটা দিল তৃণমূল

কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগের মাঝে কার্যত বোমা ফাটালেন স্মৃতি ইরানি।

Union Minister Smriti Irani slams WB government । Sangbad Pratidin
Published by: Sayani Sen
  • Posted:February 4, 2023 12:16 pm
  • Updated:February 4, 2023 5:12 pm

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: বাংলার নেতামন্ত্রীরা বারবার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগে সুর চড়িয়েছেন। কেন্দ্রীয় প্রকল্পের টাকা রাজ্যকে পাঠানো হচ্ছে না বলেই অভিযোগ তাঁদের। তারই মাঝে কলকাতা সফরে এসে পালটা রাজ্যকে দুষলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি। বাংলার সরকার নারী ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রকের বরাদ্দ ২৬ হাজার ৭৫১ লক্ষ টাকা খরচ করতে পারেনি বলেই অভিযোগ তাঁর। অবশ্য স্মৃতির দাবিকে পালটা যুক্তিতে নস্যাৎ করে দিয়েছে তৃণমূল।

কেন্দ্রীয় বাজেটের সুফল বোঝাতে শনিবারই কলকাতায় আসেন কেন্দ্রীয় নারী ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি। সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রাজ্যের বিরুদ্ধে কার্যত একহাত নেন তিনি। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর দাবি, “বাংলার সরকার ২০১৭-১৮ সাল থেকে এখন পর্যন্ত আমার দপ্তরের (নারী ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রক) ২৬ হাজার ৭৫১ লক্ষ টাকা খরচই করতে পারেনি।” প্রকল্পের টাকা পাওয়া সত্ত্বেও কেন খরচ করতে পারল না, রাজ্যকে তা জানাতে হবে বলেও দাবি করেন স্মৃতি।

Advertisement

[আরও পড়ুন: হোটেলের প্রবেশ পথে কলাপে তিলক নিতে অস্বীকার, নেটদুনিয়ার রোষানলে সিরাজ-উমরান!]

শুধু এখানে থেমে থাকেননি তিনি। কেন্দ্রীয় বাজেটে আবাস যোজনার বরাদ্দ বৃদ্ধি নিয়েও রাজ্য সরকারকে খোঁচা দেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। তিনি বলেন, “আবাস যোজনায় বরাদ্দ ৬৬ শতাংশ বৃদ্ধি করা হয়েছে। রাজ্য সরকারের কাছে স্পষ্ট হওয়া প্রয়োজন সাধারণ মানুষের সুবিধায় বরাদ্দ বৃদ্ধি করা হয়েছে। তাদের নিজেদের দলের স্বার্থে নয়।”

Advertisement

সামনেই পঞ্চায়েত নির্বাচন। তারই মাঝে কলকাতা সফরে এসে স্মৃতি ইরানির এই দাবিকে কেন্দ্র করে স্বাভাবিকভাবেই রাজনৈতিক তরজা শুরু হয়েছে। স্মৃতির দাবিকে কার্যত নস্যাৎ করে দিয়েছে তৃণমূল। ঘাসফুল শিবিরের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ বলেন, “কথা আর সংখ্যার জাগলারি করছেন। বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। কেন্দ্র টাকা দেয় না। আর একটা প্রবণতা আছে। যে বছর যে সময় যে টাকা দেওয়ার সেটা ছকে বাধা প্রসেস। হয় টাকা দেয় না অথবা পরে এমন সময় টাকা দেয় যে কাজ করা যায় না। স্মৃতি ইরানি সস্তার রাজনীতি করেছেন।”

[আরও পড়ুন: ‘পালানোর রাস্তা নেই তাই বিজেপির নাম’, তাপসের পদ্মযোগের অভিযোগে কুন্তলকে তোপ দিলীপের]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ