BREAKING NEWS

১২  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ২৭ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বনধে বাস ভাঙচুরে মিলবে ক্ষতিপূরণ, ঘোষণা পরিবহন দপ্তরের

Published by: Tanujit Das |    Posted: September 8, 2018 5:46 pm|    Updated: September 8, 2018 5:46 pm

Vandalized vehicles on strike day to get compensation

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোমবার বনধের ফলে যানবাহনের ক্ষতি হলে তা পূরণ করবে রাজ্য পরিবহণ দপ্তর৷ শুক্রবার তা জানাল পরিবহণ দপ্তর৷ নির্দেশ জারি করে বলা হয়েছে, ১২ ঘণ্টার মধ্যে সংশ্লিষ্ট থানায় অভিযোগ দায়ের হলে, বাহাত্তর ঘণ্টার মধ্যে মিলবে ক্ষতিপূরণের টাকা৷ সর্বোচ্চ ৭৫ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্ষতিপূরণ পেতে পারেন কোনও অভিযোগকারী৷

[ফুটপাতবাসী তরুণীকে খাবারের লোভ দেখিয়ে গণধর্ষণ, শহরে চাঞ্চল্য]

মাত্রা ছাড়া জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে সোমবার ২৪ ঘণ্টা ভারত বনধের ডাক দিয়েছে জাতীয় কংগ্রেস৷ যাকে সমর্থন জানিয়েছে বামেরা৷ ইস্যুকে সমর্থন জানালেও বনধে নামবে না রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস৷ সাংবাদিক সম্মেলন করে তা স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিয়েছেন দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়৷ তার বদলে কেন্দ্রের মোদি সরকারের বিরুদ্ধে রাজপথে নেমে প্রতিবাদ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে দলের সমস্ত নেতাদের৷ এমত পরিস্থিতি সোমবার যে কার্যত স্তব্ধ হবে রাজ্য তা একপ্রকার ধরেই নিয়েছেন অনেকে৷ যেহেতু দুই বিরোধী রাজনৈতিক দল বনধের ডাক দিয়েছে, সেহেতু ওইদিন রাস্তায় যান নামালে ক্ষতির আশঙ্কা করছেন মালিকপক্ষ৷ অনুমান, সেই আশঙ্কা থেকেই হয়তো অনেকে সোমবার রাস্তায় বাস, ট্যাক্সি, অটো বা অন্যান্য যান নামানো থেকে বিরত থাকবেন তাঁরা৷ তবে সরকারেরই ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ঘোষণা এবার মালিকপক্ষকে অনেকটা স্বস্তি প্রদান করবে বলেও মনে করা হচ্ছে৷

[লাগামহীন জ্বালানির মূল্য, শনিবারও দাম বাড়ল পেট্রল-ডিজেলের]

রাজ্যে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই বনধ রাজনীতির বিপক্ষে শাসকদল৷ সেই কারণেই কংগ্রেস ও বামেদের ইস্যু ভিত্তিক সমর্থন জানালেও বনধের পথে হাঁটছে না তৃণমূল৷ এই বনধের প্রভাব যাতে কোনওভাবে রাজ্যের মানুষের উপরে না তা নিশ্চিত করতে তৎপর পরিবহন দপ্তর৷ তাই যানগুলির মালিকপক্ষকে আর্থিক সাহায্য দানের পথ প্রশস্ত করল রাজ্য সরকার, এমনই মনে করছে রাজনৈতিক মহল৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে