৬ শ্রাবণ  ১৪২৬  সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

৬ শ্রাবণ  ১৪২৬  সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সেতু নিয়ে শহরবাসীর ভোগান্তির শেষ নেই। উল্টোডাঙার সেতুর পর এবার নজরে কালীঘাট সেতু। স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য শনিবার রাত দশটা থেকে রবিবার রাত দশটা পর্যন্ত অর্থাৎ ২৪ ঘণ্টা ওই সেতুতে যান চলাচল বন্ধ থাকবে। বাস, লরি-সহ সমস্ত যানবাহন চলবে আলিপুর রোড ও জাজেস কোর্ট রোড দিয়ে। নাকাল হতে হবে দক্ষিণ কলকাতার একটি বড় অংশের মানুষকে।

[আরও পড়ুন: খুলছে বিমানবন্দরগামী রাস্তা, আজই শুরু উল্টোডাঙা উড়ালপুলের মেরামতির কাজ]

দক্ষিণ কলকাতার ব্যস্ততম সেতু কালীঘাট সেতু। দক্ষিণ কলকাতার সঙ্গে শহরতলির যোগাযোগের প্রধান মাধ্যমই হল এই সেতু। মাঝেরহাট সেতু বিপর্যয়ের পর যানবাহনের চাপ বেড়েছে কালীঘাট সেতুতে। বেহালা থেকে দক্ষিণ কলকাতাগামী বাসগুলি এখন চলছে এই সেতু দিয়েই। তার উপর এই কালীঘাট সেতুর পাশেই কেওড়াতলা মহাশ্মশান হওয়ায় অতিরিক্ত যান চলাচলের চাপ থাকে। কিন্তু, গাড়ির এই বিপুল চাপ সামলানোর ক্ষমতা কি আদৌও আছে কালীঘাট সেতুর? ঝুঁকি নিতে নারাজ প্রশাসন। ঠিক হয়েছে, কালীঘাট সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা হবে। তাই শনিবার রাত দশটা থেকে রবিবার রাত দশটা পর্যন্ত এই সেতুতে বাস, লরি-সহ সমস্ত ধরনের যান চলাচল বন্ধ রাখা হবে। ঘুরপথে যানবাহন চলবে আলিপুর রোড ও জাজেস কোর্ট রোড দিয়ে।  

গত মঙ্গলবার স্বাস্থ্য পরীক্ষার সময়ে উল্টোডাঙা সেতুর মেরামতি করা অংশে ফের ফাটল নজরে পড়ে বিশেষজ্ঞদের। নিরাপত্তার স্বার্থে তড়িঘড়ি ওই সেতু দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কেএমডি। প্রায় তিনদিন বন্ধ ছিল যান চলাচল। চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয় যাত্রীদের। শুক্রবার থেকে অবশ্য উল্টোডাঙা সেতুর বাইপাস থেকে বিমানবন্দরগামী লেনটি খুলে দেওয়া হয়েছে। শুরু হয়েছে সেতুর মেরামতির কাজও। জানা গিয়েছে, উল্টোডাঙা সেতুতে মোট আটটি ফাটল ধরা পড়েছে। মেরামতি করতে মোটামুটি মাস দুয়েক সময় লাগবে। তবে ইঞ্জিনিয়াররা জানিয়েছেন, ফাটল মেরামতির সময়ে ‘ক্রপ’গুলি যদি খুঁজে পাওয়া যায়, তাহলে দশ-বারো দিনের মধ্যে ফের সেতু দিয়ে যান চলাচল শুরু হয়ে যেতে পারে। তা যদি না হয়, সেক্ষেত্রে বিকল্প রাস্তা হিসেবে মাঝেরহাটের মতোই বেইলি ব্রিজ লাগানো হবে উল্টোডাঙাতেও।

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে মগ্ন কর্মীরা, হাসপাতাল থেকে গায়েব রোগীর কাটা আঙুল]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং