২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৭ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বাজারে আসছে ‘ভাইটালিটি সন্দেশ’, ২৫ টাকায় সারবে একুশ অসুখ! দাবি প্রস্তুতকারকদের

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: June 30, 2020 10:59 am|    Updated: June 30, 2020 11:00 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রোগ প্রতিরোধে এখন প্রধান হাতিয়ার ‘ইমিউনিটি’। তার সঙ্গে যদি মেশে ‘ভাইটালিটি’ অর্থাৎ জীবনশক্তি? তাহলে ব্যপারটা মন্দ হয় না। এভাবেই মিষ্টির ছুড়িতে অসুখ বধের নয়া ছক কষে ফেলেছে বলরাম মল্লিক (Balaram Mullick)। ‘একুশ’ উপাদানে তৈরি এই মিষ্টি এবার রোগ সারাতে প্রধান হাতিয়ার হয়ে উঠবে বঙ্গের।

করোনার ভয়ে জর্জরিত সকলেই। কী খেলে সারবে এই রোগ? তা এককথায় বলা বেজায় কঠিন। তবে দেহে রোগ প্রতিরোধ শক্তি গড়াই যে আসল অস্ত্র তা এতদিনে ঠারে ঠারে বুঝে গিয়েছেন সকলেই। আম জনতার সেই চিন্তাকে মেটাতে এবার নয়া দাওয়াই নিয়ে হাজির হয়েছে মিষ্টি প্রস্তুতকারী সংস্থা বলরাম মল্লিক। ‘একুশ’ উপাদানে তৈরি প্রস্তুত করেছে এমন এক মিষ্টি যা মুখে স্বাদের সঙ্গে সঙ্গে শরীরে বাড়াবে ‘ভাইটালিটি’ অর্থাৎ জীবনশক্তি। এবার যদি প্রশ্ন হয় বলরাম মল্লিকের এই নয়া সন্দেশে কী আছে? কী আছে তা বলার চেয়ে সহজ উত্তর হবে যে, কী নেই এই মিষ্টিতে। উচ্চরক্তচাপ আর পেশির দুর্বলতা একইসঙ্গে নিয়ন্ত্রণ করবে কোনও মিষ্টি। তা বোধহয় কেউই ভাবতে পারেনি। সংস্থার পক্ষ থেকে সুদীপ মল্লিক জানিয়েছেন, “মিষ্টিও যে স্বাস্থ্যকর হতে পারে এমন ধারণা যখন অবাস্তব মনে হয়েছিল তখনই বাজারে আসে আমাদের ইমিউনিটি সন্দেশ। তার জনপ্রিয়তার পর এবার প্রস্তুত করা হল ভাইটালিটি সন্দেশ।”

[আরও পড়ুন:ফের রাজনৈতিক মহলে করোনার থাবা, এবার আক্রান্ত বারাসতের বিদায়ী পুরপ্রধান]

নির্মাতাদের দাবি, এই প্রথম অর্গানিক (Organic) ঘিতে তৈরি হল কোনও সন্দেশ। যে ঘি শরীরে মেদ বাড়ানো তো দূরের কথা, টক্সিন বের করে দেবে এক নিমেষে। করোনার সময়ে স্বাস্থ্যকর মিষ্টি তৈরিতে সঞ্জীবনী হেলথ সিরিজ শুরু করেছিল বলরাম মল্লিক। সেই সিরিজেই ইমিউনিটির পর এটি তাদের দ্বিতীয় মিষ্টি। যাতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবারে ভরতি আঞ্জির। যা ওজন নিয়ন্ত্রণেও সাহায্য করবে। চিকিৎসকদের কথায়, পর্যাপ্ত ঘুম রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। তার জন্য এই সন্দেশে রয়েছে বাটা পোস্ত। উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে রয়েছে পানিফলের পাউডার, ভিটামিন-ই সমৃদ্ধ কুমড়োর বীজ। এমনকি পেশির শক্তি মজবুত করতে রয়েছে সোয়া প্রোটিনও। তবে অবাক করা বিষয় হল এই মিষ্টির দাম মধ্যবিত্তের সাধ্যের মধ্যেই। সন্দেশের দাম মাত্র পঁচিশ টাকা। সুদীপ মল্লিক জানিয়েছেন, “পঁচিশ টাকার সন্দেশে একুশ অসুখ নিয়ন্ত্রণে থাকবে। এমন স্বাস্থ্যকর সন্দেশ উপহার দিতে পেরে আমরা খুশি।”

[আরও পড়ুন:দেশে পরপর দু’দিন কমের দিকে নতুন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, বাড়ছে সুস্থতার হারও]

করোনা পরবর্তী সময়ে স্বাস্থ্যকর খাবারের দিকে ঝুঁকছে আমবাঙালি। এবার তাহলে ওষুধের বদলে মুখে একটা মিষ্টি দিয়েও দেখতে পারেন ভোজনরসিকরা। এ সন্দেশের বিক্রি নিয়ে তাই আশার আলো দেখছেন মিষ্টি জগতের মল্লিকরা। আর সন্দেশের দাম সাধ্যের মধ্যে হওয়ায় আম জনতার মিষ্টিমুখের সাধপূরণ হবে বলেও মনে করছেন নির্মাতারা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement