Advertisement
Advertisement

সাফল্য ধরে রাখতে হবে পঞ্চায়েতেও, কর্মীদের নির্দেশ মমতার

দলের সাধারণ সম্পাদক করা হচ্ছে প্রবীর ঘোষালকে৷

We must counter the slander by Opposition parties. Start preparing for Panchayat polls: Mamata
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:June 18, 2016 3:30 pm
  • Updated:June 18, 2016 3:38 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিধানসভা নির্বাচনের সাফল্য ধরে রাখতে হবে পঞ্চায়েত ভোটেও, বার্তা দিলেন মমতা বন্দোপাধ্যায়৷

এক দিকে বিধানসভা ভোটে বিপুল জয়ের জন্য উৎসবের আবহ আর অন্যদিকে সংগঠনকে আরও নিবিড় এবং শক্তিশালী করার বার্তা৷ নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর প্রথমবার শনিবার গ্রাম ও রাজ্যস্তরের পদাধিকারীদের নিয়ে নেতাজি ইন্ডোরে সভা করলেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের৷

Advertisement

এদিনের সভা থেকে বিরোধীদের তীব্র আক্রমণ করলেন মমতা৷ তিনি বলেন, গত ৩৪ বছরে বাংলাকে ধ্বংস করা হয়েছে৷ যাঁরা বাংলার ভাল চায় না, তারাই কুৎসা করে| তাঁর বক্তব্য, “আমরা মানুষের জন্য প্রচুর পরিশ্রম করছি, কিন্তু বিরোধীরা গণতন্ত্রকে লজ্জায় ফেলছেন৷ মানুষ তাঁদের ক্ষমা করবেন না৷ সমর্থকদের জানিয়ে দেন, ২১ জুলাই ফের মহাসম্মেলন করবে তৃণমূল৷ মমতা এদিন কেন্দ্রীয় সরকারকে নিশানা করে বলেন, “বহুদিন ধরে কংগ্রেস ক্ষমতায় ছিল| বাংলার জন্য তারা কী করেছে?” বিজেপিকেও রেয়াত না করে তাঁর বক্তব্য, “ভোটের আগে বহু প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল বিজেপি৷ তারাই বা বাংলার জন্য কী করল?”

Advertisement

নির্বাচনে বিপুল সাফল্যের পর ইন্ডোর স্টেডিয়ামে এই সভা ঘিরে সকাল থেকেই উদ্দীপনা তুঙ্গে ছিল৷ কার্যত বিজয় উৎসবের চেহারা নেয় ইন্ডোর চত্বর৷ ইতিমধ্যেই দলকে শৃঙ্খলার মোড়কে বেঁধেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ আগেই দলীয়স্তরে নারদ স্টিং নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী৷ এবার সরকারিস্তরে তদন্তের নির্দেশ দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বুঝিয়ে দিয়েছেন দলে শৃঙ্খলার বিকল্প কিছু নেই৷ মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “তদন্তের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম৷ দলের পক্ষ থেকে কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়, সুব্রত বক্সি ও সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় তদন্ত করছেন৷ সরকারিভাবে এবার তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷” সেই ধারাকে বজায় রেখে এদিনের সভায় আগামী দিনগুলির জন্য দিশা ঠিক করে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ দলীয় নেতা কর্মীদের আরও সংযত হয়ে মানুষের পাশে থাকার বার্তা দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ বেশ কিছু সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত নিতে চলেছেন মমতা৷ বেশ কয়েকজন নেতা নেত্রীকে নতুন দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে৷ দলের সাধারণ সম্পাদক করা হচ্ছে প্রবীর ঘোষালকে৷ তিনি মুখপাত্রের কাজও করবেন৷

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ