Advertisement
Advertisement
West Bengal Bye Election 2024

রাজ্যের চার কেন্দ্রের উপনির্বাচনে ৭০ কোম্পানি বাহিনী, সব বুথে ওয়েবকাস্টিং

কোন কেন্দ্রে কত কোম্পানি বাহিনী?

West Bengal Bye Election 2024: 70 Company of CAPF to be deployed
Published by: Subhajit Mandal
  • Posted:July 9, 2024 8:26 pm
  • Updated:July 9, 2024 8:26 pm

সুদীপ রায়চৌধুরী: রাত পোহালেই রাজ্যের চার কেন্দ্রের উপনির্বাচন। মানিকতলা, বাগদা, রায়গঞ্জ এবং রানাঘাট দক্ষিণ এই চার কেন্দ্রে সকাল ৭টা থেকে হবে ভোটগ্রহণ। যে ভোটপর্ব সুষ্ঠুভাবে করতে লোকসভা ভোটের ফর্মুলাই অনুসরণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (Election Commission)। শান্তিতে ভোট করানোর স্বার্থে এই চার কেন্দ্রে ৭০ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে প্রতিটি বুথে ওয়েব কাস্টিংয়ের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

প্রথমে ঠিক ছিল এই চার কেন্দ্রের জন্য ৫৫ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী (CAPF) মোতায়েন করা হবে। গত শনিবার আরও ১৫ কোম্পানি বাড়িয়ে আধা সেনার সংখ‌্যা করা হয়েছে ৭০ কোম্পানি। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ২০ কোম্পানি বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে উত্তর ২৪ পরগনার বাগদা কেন্দ্রে। এখানে প্রাথমিকভাবে বরাদ্দ ১৬ কোম্পানির সঙ্গে চার কোম্পানি সীমান্ত রক্ষী বাহিনী মোতায়েন করা হচ্ছে। রানাঘাটে প্রথমে ১৫ কোম্পানি বাহিনী নিয়োগ করার কথা জানানো হয়েছিল। সেখানে ইন্দো তিব্বত পুলিশের আরও চার কোম্পানি পাঠানোয় মোট আধা সেনার সংখ‌্যা দাঁড়াচ্ছে ১৯ কোম্পানি। রায়গঞ্জে প্রাথমিকভাবে বরাদ্দ ১২ কোম্পানির সঙ্গে যোগ দিচ্ছে আরও চার কোম্পানি সিআরপিএফ (CRPF)। মানিকতলা কেন্দ্রে বাড়তি তিন কোম্পানি সীমা সুরক্ষা বল পাঠানোর সিদ্ধান্ত হওয়ায় সেখানে মোট বাহিনী থাকছে ১৫ কোম্পানি।

Advertisement

[আরও পড়ুন: কাঠুয়া জঙ্গি হামলায় পাক-যোগ! ব্যবহৃত হয়েছিল মার্কিন অস্ত্র, প্রকাশ্যে বিস্ফোরক তথ্য]

চার কেন্দ্রের পর্যবেক্ষক হিসাবেও নিয়োগ করা হয়েছে ভিন রাজ্যের দুঁদে আধিকারিকদের। কলকাতার মানিকতলা কেন্দ্রে সাধারণ পর্যবেক্ষক হিসাবে পাঠানো হচ্ছে হরিয়ানার আইএএস আধিকারিক অজিত বালাজি যোশীকে। এই কেন্দ্রের পুলিশ পর্যবেক্ষক সিকিমের আইপিএস আধিকারিক মনোজ বর্মা। উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জ কেন্দ্রে সাধারণ পর্যবেক্ষক হিসাবে থাকছেন উত্তরপ্রদেশ সরকারের বিশেষ সচিব ভূপেন্দ্র সিং চৌধুরী। এই কেন্দ্রের পুলিশ পর্যবেক্ষক মধ‌্যপ্রদেশের ডিআইজি পদমর্যাদার আধিকারিক আর আর এস পরিহার। রানাঘাট দক্ষিণ কেন্দ্রে সাধরণ ও পুলিশ পর্যবেক্ষক করা হয়েছে যথাক্রমে হিমাচন প্রদেশের আশিস সিংমার ও বিহারের ড. ইমাম উল হক মেঙ্গনুকে। বাগদা কেন্দ্রের সাধারণ পর্যবেক্ষক তামিলনাডুর আইএএস আধিকারিক সিএন মহেশভরন ও পুলিশ পর্যবেক্ষক পাঞ্জাব পুলিশের সুখবন্ত সিং গিল।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘হিন্দুত্ব নিয়ে বক্তব্য সম্পূর্ণ ঠিক’, রাহুল গান্ধীর পাশে শঙ্করাচার্য]

বাগদা, রানাঘাট দক্ষিণ এবং রায়গঞ্জ কেন্দ্রের উপনির্বাচনের প্রয়োজন পড়েছে, এই তিন কেন্দ্রের বিধায়করা পদত্যাগ করে লোকসভায় প্রার্থী হওয়ায়। ঘটনাচক্রে এই তিন প্রার্থীই পরাজিত হয়েছেন। বস্তুত, মানিকতলা বাদে বাকি তিন আসন অর্থাৎ বাগদা, রানাঘাট দক্ষিণ এবং রায়গঞ্জে ২০২১ সালের বিধানসভা ভোটে জিতেছিল বিজেপি। চলতি বছর জুন মাসে শেষ হওয়া লোকসভা ভোটের নিরিখেও রায়গঞ্জ, রানাঘাট দক্ষিণ এবং বাগদা বিধানসভা আসনে এগিয়ে গেরুয়া শিবির। কিন্তু লোকসভায় সামগ্রিকভাবে তৃণমূল যে ফল করেছে, তাতে বিজেপির পক্ষে উপনির্বাচনে নিজেদের আসন ধরে রাখা কঠিন। তাছাড়া এই কেন্দ্রের বিধায়করাও এখন শাসক শিবিরে। এদের মধ্যে দুজন প্রার্থীও হয়েছেন।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ