BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শুক্রবার ২০ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

আস্থা নেই রাজ্য পুলিশে! রাজ্যপালের সুরক্ষা এবার কেন্দ্রীয় বাহিনীর হাতে

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: October 17, 2019 5:21 pm|    Updated: October 17, 2019 5:57 pm

West Bengal Governor's security is under CRPF now

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাতের আরেক নমুনা প্রকাশ্যে। রাজ্য পুলিশের উপর ভরসা না রেখে এবার রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের নিরাপত্তায় এবার কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হল। এবার থেকে ৪ থেকে ৫ জন আধাসেনা রাজ্যপালের নিরাপত্তায় সবসময়ে থাকবেন। তিনি এমনিতে জেড ক্যাটাগরি নিরাপত্তা পান। এবার বঙ্গ বিজেপির দাবি মেনে তা জেড প্লাস স্তরে উন্নীত করা হল।

গত মাসে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়ে আক্রান্ত হন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। তিনি এমনভাবেই ক্যাম্পাসে আটকে পড়েন যে খবর পেয়ে তাঁকে উদ্ধার করতে ছুটে যান রাজ্যপাল নিজে। তাঁর গাড়িতে চড়েই ক্যাম্পাস ছাড়েন বাবুল সুপ্রিয়। সেখানকার ছবি দেখেই বঙ্গ বিজেপি আশঙ্কা প্রকাশ করেছিল যে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিক্ষোভকারী পড়ুয়ারা এমনই উত্তেজিত ছিল যাতে রাজ্যপালের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হতে পারত। এমনকী রাজ্য পুলিশের নিষ্ক্রিয়তা নিয়ে রাজ্যপাল নিজেও উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন। এরপর থেকেই বিজেপি নেতৃত্ব ধনকড়ের জন্য কেন্দ্রীয় স্তরের নিরাপত্তার দাবি তুলেছিল। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে চিঠি দিয়ে সেই আবেদনও জানিয়েছিলেন দিলীপ ঘোষরা।

[ আরও পড়ুন: কলকাতা বিমানবন্দর থেকে উড়ল যুদ্ধবিমান, মাঝ আকাশে চলল তুমুল ‘লড়াই’ ]

বৃহস্পতিবার সেই দাবি মেনে নিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপালের নিরাপত্তায় আর রাজ্য পুলিশের উপর ভরসা রাখছে না কেন্দ্র। তাই আধাসেনা মোতায়েন করা হয়েছে। এবার থেকে অন্তত ৪ জন সিআরপিএফ জওয়ান থাকবে জগদীপ ধনকড়ের ব্যক্তিগত নিরাপত্তার কাজে। বোঝাই যাচ্ছে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের নিরাপত্তার উপর আর আস্থা নেই। সাধারণত রাজ্যপালের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকে রাজ্য পুলিশ। একেবারে বেছে নিয়ে দক্ষ অফিসারদের এই কাজে বহাল করা হয়। সাংবিধানিক-প্রশাসনিক দ্বন্দ্ব যতই থাক, এযাবৎকাল রাজ্যপালের নিরাপত্তা নিয়ে এধরনের কোনও সমস্যা দেখা যায়নি। এবারই এমন নজিরবিহীন ঘটনা।

[ আরও পড়ুন: দরজা খোলাই কাল হল, জিয়াগঞ্জ হত্যাকাণ্ডে নিজেই বিপদ ডেকেছিলেন বন্ধুপ্রকাশ]

রাজ্যর সাংবিধানিক প্রধান হিসেবে বিজেপি ঘনিষ্ঠ জগদীপ ধনকড় দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই রাজ্য প্রশাসনের সঙ্গে একাধিক ঘটনায় সংঘাতে জড়িয়েছে রাজভবন। কখনও বাবুল সুপ্রিয়র যাদবপুরে আটকে পড়া নিয়ে, কখনও আবার পুজো কার্নিভাল নিয়ে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে ১১ তারিখ রেড রোডের পুজো কার্নিভালে অংশ নিয়েছিলেন সপরিবার রাজ্যপাল। একসঙ্গে এতগুলো বিখ্যাত পুজোর প্রতিমা দর্শন করে এবং অনুষ্ঠানের জৌলুস দেখে প্রাথমিকভাবে তিনি মুখ্যমন্ত্রীর কাছে মুগ্ধতা প্রকাশ করেন। কিন্তু তার কিছুক্ষণের মধ্যেই একেবারে ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে তিনি বলেন, ওই অনুষ্ঠানে তাঁকে ডেকে নিয়ে গিয়ে অপমান করা হয়েছে। এসবের পর এবার সরাসরিই সামনে এসে পড়ল কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত। রাজ্যের উপর আর কোনও ভরসা না রেখেই ধনকড়ের নিরাপত্তায় সিআরপিএফ মোতায়েন করে দিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। এবিষয়ে এখনও যদিও রাজ্য প্রশাসনের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে