BREAKING NEWS

১৯ আষাঢ়  ১৪২৭  শনিবার ৪ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

নেটদুনিয়ায় বন্ধুত্বের হাতছানি দিয়ে যুবকের থেকে মোটা টাকা আদায়, পুলিশের জালে তরুণী

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: November 15, 2019 10:30 am|    Updated: November 15, 2019 10:30 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জীবনে একাকীত্ব? বন্ধুত্ব করতে চান? তাহলে যোগাযোগ করুন এই নম্বরে। শহরের বুকে প্রায়ই এরকম পোস্টার দেখা যায়। অন্যদিকে, পরিচয় গোপন করেও বন্ধুত্ব করার প্রস্তাব থাকে। শুধু পোস্টারই নয়, এরকম বিজ্ঞাপন মাঝেমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়াতেও দেখা যায়। আর চটজলদি আগুপিছু না ভেবে অনেকেই তাতে সাড়া দিয়ে ফেলেন। কিন্তু সাবধান! আপনার একাকীত্বের সুযোগ নিয়ে  অপরদিকে যে বড়সড় ফাঁদ পেতে রেখেছে কেউ, তা বোধহয় আপনার কল্পনারও অতীত। সম্প্রতি দক্ষিণ কলকাতার এক ব্যক্তি এরকমই এক জালিয়াতির খপ্পরে পড়ে খুইয়েছেন ৫০ হাজারেরও বেশি টাকা। শেষমেশ পুলিশের দ্বারস্থ হলে অভিযুক্ত যুবতীকে আটক করে পুলিশ।

নেটদুনিয়ায় বান্ধবী খুঁজছিলেন বহুজাতিক সংস্থায় কর্মরত এক ব্যক্তি। বিপত্তির সূত্রপাত সেখানেই। অভিযোগকারী থাকেন তেঘরিয়ায়। বান্ধবী পেতে ইচ্ছুক জানিয়ে একটি ওয়েবসাইটে আবেদন জানিয়েছিলেন। আর ওই আবেদন জানানোর ঘণ্টা খানেকের মধ্যেই ফোন আসে এক যুবতীর। যিনি ওই ব্যক্তির বান্ধবী হওয়ার ইচ্ছেপ্রকাশ করেন। ফোনালাপের পর পরিকল্পনা অনুযায়ী দক্ষিণ কলকাতায় দেখাও করেন তাঁরা। তার দিন কয়েক পরই ওই যুবতী হুমকি দেওয়া শুরু করেন যে ফেসবুক থেকে তাঁর স্ত্রীয়ের নম্বর জোগাড় করেছেন এবং আপাতত ৫০ হাজার টাকা না দিলে সবকিছু জানিয়ে দেবে তাঁর স্ত্রীকে। এমনকী, এতদিনকার ফোনালাপের রেকর্ড, সাক্ষাতের ভিডিও সবই রয়েছে। টাকা না দিলে এগুলো সব পাঠিয়ে দেওয়া হবে তাঁর স্ত্রীকে। অতঃপর বিপাকে পড়ে নিজের পরিচয় গোপন করতেই ওই যুবতীকে ৫০ হাজার টাকা দিয়ে দেয় বহুজাতিক সংস্থায় কর্মরত ওই ব্যক্তি।

[আরও পড়ুন: রাতের কলকাতায় চলন্ত অ্যাপ ক্যাবেই প্রসব মহিলার, পাশে দাঁড়াল বেসরকারি হাসপাতাল]

সূত্রের খবর, তবে এখানেই থেমে থাকেননি ওই যুবতী। তার সপ্তাহ খানেক পর আবার ফোন করে একদফায় ২০ হাজার টাকা চান এবং তার পরে ১ লক্ষ টাকা দাবি করে বসেন ওই ব্যক্তির থেকে। এরপরই অবস্থা বেগতিক বুঝে সোনারপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই ব্যক্তি। পুলিশও পরিকল্পনা অনুযায়ী পালটা টোপ ফেলে। ওই ব্যক্তিকে দিয়ে ফোন করিয়ে যুবতীকে বলা হয় সোনারপুর স্টেশন চত্বরে আসতে। পুলিশের প্ল্যান অনুযায়ী যুবতিও স্টেশন চত্বরে এসে ফোন করেন। বুধবার রাতে স্টেশনে এসে ফোন করলেই পুলিশ আটক করে অভিযুক্ত যুবতীকে।

পুলিশ সূত্রে খবর, বন্ধুত্ব পাতানোর নাম করে ফাঁদ পাতে ধৃত ওই যুবতী। একটু বেশি ঘনিষ্ঠ হয়ে উঠলেই অপর ব্যক্তির যাবতীয় তথ্য জেনে তাঁকে ‘ব্ল্যাকমেল’ করত। এই চক্রের সঙ্গে যুক্ত রয়েছে আরও কয়েকজন মহিলা।

[আরও পড়ুন: কলকাতায় যুবতী গণধর্ষণে নয়া মোড়, দ্বিতীয় ট্যাক্সিতে তুলে টানা ৪০ মিনিট চলে নির্যাতন]

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement