৪ মাঘ  ১৪২৬  শনিবার ১৮ জানুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo ফিরে দেখা ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৪ মাঘ  ১৪২৬  শনিবার ১৮ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

ধীমান রায়, কালনা: বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে এক মুহূর্ত মোবাইল ফোন ছাড়া কার্যত অসম্ভব। তাই এবার মুক-বধিরদের কথা ভেবে বিশেষ স্মার্টফোন তৈরি করে ফেললেন এক ব্যক্তি। যার মাধ্যমে বিশেষ ক্ষমতাসম্পন্নরা বোঝাতে পারবেন মনের কথা। তবে বাজারে চালু আর পাঁচটা স্মার্টফোনের মতো নয় এই ফোন। এই যন্ত্রের নাম কমিনিকেশন মেথড ডিভাইস। বিশেষ এই যন্ত্রের আবিষ্কর্তা কালনার বাসিন্দা গোবিন্দ মণ্ডল। তাঁর কথায়, হাত নেড়ে বা অঙ্গভঙ্গি করে নয়, এই যন্ত্রের মাধ্যমে এবার অনেক সহজেই ভাব বিনিময় করতে পারবেন মূক ও বধিরেরা।

বর্তমানে কলকাতার বাসিন্দা গোবিন্দবাবু। তাঁর কথায়, এই যন্ত্রের সাহায্যে সহজেই সকলের কথা বুঝতে ও নিজের বক্তব্য বোঝাতে পারবে বিশেষভাবে সক্ষমরা। শনিবার কালনার বাসিন্দা মূক ও বধির চন্দ্রানী সাহাকে এই বিশেষ ফোন উপহার দেন গোবিন্দবাবু। কীভাবে যন্ত্রটি ব্যবহার করতে হবে তা শিখিয়েও দেন তিনি। কিন্তু কীভাবে তৈরি করা হয়েছে বিশেষ এই ফোন? গোবিন্দ মণ্ডল জানিয়েছেন, একটি অ্যান্ড্রয়েড ফোনের সঙ্গে মাইক্রোফোন ও স্পিকার জুড়েছেন তিনি। সেইসঙ্গে একটি সফটওয়্যার তৈরি করে তা ফোনে ইনস্টল করেছেন। তিনি জানান, ফোনের এপারে থাকা ব্যক্তি যা বলবেন তা লিখিতভাবে স্ক্রিনে ভেসে উঠবে বিশেষ ওই স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর কাছে। একইরকম ভাবে উত্তরে বিশেষ স্মার্টফোনে যা লিখবেন তা ভয়েস হিসেবে শুনতে পারবেন এপ্রান্তে থাকা ব্যক্তি। ফলে অনেক সহজ হবে দু’তরফের ভাব প্রকাশ। 

[আরও পড়ুন: সভায় যাওয়ার পথে বাধার মুখে বিজেপি নেতৃত্ব, কোচবিহারে আটক সায়ন্তন বস]

জানা গিয়েছে, চন্দ্রানী সাহা নামে ওই ছাত্রীর বাড়ি কালনার পিয়ারিনগর পালপাড়ায়। চলতি মাসের ২৯ তারিখ তাঁর বিয়ে কলকাতার কৈখালির বাসিন্দা সোমনাথ মাঝির সঙ্গে| একটি বেসরকারি সংস্থায় কর্মরত এই যুবকও মূক ও বধির। তাকেও উপহার হিসেবে এই যন্ত্র দেবেন বলে স্থির করেছেন গোবিন্দবাবু জানান। তাঁর ধারনা এই যন্ত্রের মাধ্যমে ভীষণভাবে উপকৃত হবেন বিশেষ ক্ষমতাসম্পন্নরা। ইতিমধ্যেই একটি সংস্থার তরফে যন্ত্রের পেটেন্টও পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন গোবিন্দবাবু। 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং