BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

দুইয়ের বেশি বাচ্চার জন্ম দিলে হতে পারে অ্যালঝাইমার, কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 23, 2018 8:16 pm|    Updated: July 23, 2018 8:16 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  কিছুক্ষণ আগেই চশমাটি খুলে পড়ার টেবিলে রেখেছেন। অথচ ছাদে ওঠার পর আর মনেই করতে পারছেন না? বাড়ির পরিচারিকাকে খুব করে বকেও দিলেন সেজন্য। মাঝেমাঝেই এমনটা হচ্ছে। ভুলে যাওয়াকে কেন্দ্র করে বাড়ছে দাম্পত্য কলহের জের। মনে কিছুতেই শান্তি পাচ্ছেন না। জানেন কী এ হেন পরিস্থিতির নেপথ্যে রয়েছে অ্যালঝাইমারের মতো ভুলো-রোগ ? গবেষণা বলছে, পাঁচ বা বেশি সন্তানের মায়ের ক্ষেত্রে এই ধরনের রোগে আক্রান্ত হওয়া নতুন কোনও বিষয় নয়। বরং একের অধিকবার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার ঘটনাই অ্যালঝাইমারের প্রবণতাকে বাড়িয়ে দেয়।

বলা বাহুল্য, সিওল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা ভবিষ্যতের মায়েদের জন্য আগাম সতর্কবার্তা নিয়ে এসেছেন। সেই বার্তায় বলা হয়েছে, অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর দু’মাস কেটে গেলেই মহিলাদের শরীরে ইস্ট্রোজেন হরমোনের মাত্রা দ্বিগুণ হারে বেড়ে যায়। যা স্বাভাবিক সময়ে থাকা ইস্ট্রোজেনের মাত্রার থেকে ৪০ গুণ বেশি। এদিকে মাত্রাতিরিক্ত ইস্ট্রোজেন ভুলে যাওয়ার প্রবণতাকে বাড়িয়ে দেয়। এর থেকেই অ্যালঝাইমার রোগের উৎপত্তি।

এই অ্যালঝাইমার যে বাসা বাঁধছে, তা মহিলার শরীরে হরমোনের তারতম্যের উপরে লক্ষ্য রাখলেই স্পষ্ট হয়ে যাবে। বার বার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার কারণেই এই রোগের সম্ভবনা বাড়ে কিনা তা দেখতে ৩ হাজার ৫৪৯ জন মহিলার উপরে একটি সমীক্ষা চালান সিওল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা। সমীক্ষায় যাঁরা অংশ নেন, তাঁদের বয়স ৭১-এর মধ্যে। ৪৬ বছর বয়স পর্যন্ত তাঁদের অসুস্থতার যাবতীয় মেডিক্যাল রিপোর্ট সংগ্রহ করা হয়। এছাড়া প্রথম বাচ্চার জন্মের পর যদি কোনও চিকিৎসা হয়, তার রিপোর্টগুলিকেও এর আওতায় আনা হয়। এরপর বিশেষজ্ঞরা দেখেন, সন্তান জন্মের পর ওই মহিলাদের একাংশ হয় অ্যালঝাইমার রোগে আক্রান্ত হয়েছেন বা কঠিন কোনও অসুখ তাঁদের শরীরে বাসা বেঁধেছে।

ডায়াবেটিস থেকে দূরে থাকতে চান? বাড়িতেই রয়েছে সহজ উপায় ]

গবেষণায় দেখা গিয়েছে ৩,৫৪৯ জন মহিলার  মধ্যে ১১৮জন অ্যালঝাইমারে আক্রান্ত হয়েছেন। একইভাবে ৮৯৬ জন মহিলা দূরারোগ্য রোগের কবলে পড়েছেন। গবেষকরা এও দেখেছেন পাঁচ নম্বর সন্তানের জন্মের পর ৭০ শতাংশ মহিলাই অ্যালঝাইমারে আক্রান্ত হয়েছেন। অন্যদিকে দুটি সন্তানের জন্মের পরও সুস্থই রয়েছেন অনেক মা। পাশাপাশি মহিলার সঙ্গে যদি মিস ক্যারেজের কোনও ঘটনা ঘটে থাকে, তাহলেও থাবা বসাতে পারে অ্যালঝাইমার। এমনটাও দাবি করছেন বিশেষজ্ঞরা। তুল্যমূল্য বিচারের রিপোর্ট বলছে, মিসক্যারেজের শিকার ২ হাজার ৩৭৫ জন মহিলার মধ্যে ৪৭ জন অ্যালঝাইমারে আক্রান্ত। একইভাবে ১ হাজার ১৭১ জন স্বাভাবিক অন্তঃসত্ত্বা মহিলার মধ্যে ৭১ জন অ্যালঝাইমারে আক্রান্ত। তাই পরিবার পরিকল্পনার সময় এই ধরনের অসুস্থতাকে মাথায় রেখেই এগোতে পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement