২৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  সোমবার ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  সোমবার ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সামনে বিস্তৃত মার্জার সরণি। চারপাশে গিজগিজ করছে দর্শক। হাজার ওয়াটের ফ্ল্যাশবাল্বের ঝলকানি। এরই মাঝে প্রবেশ করলেন মডেলরা। একের পর এক হেঁটে গেলেন নির্দ্বিধায়। কিন্তু শরীরে পোশাক কই? এই প্রশ্নই উঠেছিল উপস্থিত দর্শকের মনে। ক্ষণিকের জন্য হলেও থেমে গিয়েছিল শাটারবাগদের আঙুলও। কারও গায়ে টুকরো পোশাক থাকলেও মডেলরা অধিকাংশই ছিলেন নগ্ন। এভাবেই কোপেনহেগেন ফ্যাশন উইকে পাঠিয়েছিলেন ডিজাইনার নিকোলাস নিব্রো।

4328832A00000578-0-image-a-5_1502434279837

কিন্তু কেন এমন কাজ করেছিলেন তিনি? শোয়ের শেষে নিজেই জবাব দেন প্রখ্যাত ফ্যাশন ডিজাইনার। এই কাজটি তিনি করেছেন মানুষের জীবনে শরীরের অবদানকে মনে করিয়ে দেওয়ার জন্য। এমন একটা সময় ছিল যখন মানুষের পোশাক পরার চল ছিল না। আদিম সে সময়ে পোশাকের ধারণাই মানুষের মধ্যে ছিল না। সেই সময়কে ট্রিবিউট জানিয়েই এই কাজ করেছেন ডিজাইনার।

4328832600000578-0-image-m-3_1502434257858

[ফলের গুণেই মিলবে সুস্থতা, বার্তা দিতে বেপরোয়া এষা]

এমনকী, নিজের মডেলদের বাছার সময় পারফেকশনের ধার ধারেননি প্রখ্যাত ডিজাইনার। সাধারণ মানুষের শরীর যেমন হয়, তেমনই মডেল বেছেছেন তিনি। যাঁরা শরীরকে অনাবৃত করে নিকোলাসের জন্য মার্জার সরণিতে হেঁটেছেন। কেউ হয়েছেন অর্ধ নগ্ন, কেউ সম্পূর্ণ নগ্ন, কেউ আবার স্বচ্ছন্দে নিজের শরীরের উল্কি প্রদর্শন করেছেন। নাম দিয়েছেন ‘দ্য এম্পেরর’স নিউ ক্লোথস’।

4328833600000578-0-image-a-18_1502435289895

আগস্ট মাসের সাত তারিখ থেকে শুরু হয়েছে কোপেনহেগেন ফ্যাশন উইক। চলবে শনিবার পর্যন্ত। সারা বিশ্বের নামী ডিজাইনাররা তুলে ধরেছেন নিজেদের সৃষ্টি। হেঁটেছেন প্রখ্যাত মডেলরা। তবে সকলের মধ্যে আলাদা করে নজর কেড়েছে নিকোলাস নিব্রোর এই অভিনব ভাবনা। এমন উদ্যোগ আরও হওয়া উচিত বলে মনে করছেন ফ্যাশনিস্তারা।

4328833200000578-0-image-a-20_1502435353015

[ঠাকুরপোদের দুপুরের ঘুম কাড়তে আসছেন ‘ঝরনা বউদি’]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং