BREAKING NEWS

১৮ শ্রাবণ  ১৪২৭  সোমবার ৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

চা-কফিতেই হবে বাজিমাত, লকডাউনে ঘরে বসেই চুল করে তুলুন বাদামি

Published by: Bishakha Pal |    Posted: April 6, 2020 9:37 pm|    Updated: April 6, 2020 9:37 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনের জেরে এখন পার্লারে যাওয়া বন্ধ। শিকেয় উঠেছে রূপচর্চা। বাড়িতেই তাই চলছে রূপটান। কিন্তু দোকান বন্ধ হওয়ায় হেয়ার কালার করা এখন দায়। এদিকে চুল রং হারিয়ে সাদাটে দেখাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে উপায়!

উপায় আছে। ঘরে বসেই চুলে রং করে নেওয়া যায় খুব সহজে। বাড়িতে চা বা কফি থাকলেই কেল্লা ফতে। ওই দিয়েই হবে চুলের রং। এর জন্য অবশ্য আরও একটি উপাদান লাগবে। তা হল মেহেন্দির পাতা। সেটি গুড়ো করে চা বা কফির সঙ্গে মিশিয়ে অন্তত ২০ মিনিট ফুটিয়ে নিন। তারপর ঠান্ডা করুন। ঠান্ডা হয়ে গেলে চুলে লাগিয়ে নিন। ঘণ্টা দুয়েক পর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এতে চুল হবে বাদামি। আর যদি গাঢ় বাদামি রং পেতে চান, তবে মেহেন্দির পদলে ব্যবহার করুন হেনা। এটি চা বা কফির লিকার মিশিয়ে গাঢ় পেস্টের মতো করুন। তারপর মিশ্রণটি মাথায় লাগান। ২ ঘণ্টা রেখে চুলে শ্যাম্পু করে নিন।

[ আরও পড়ুন: মোদি-মমতার পাশে সব্যসাচী, করোনা তহবিলে ১.৫ কোটি টাকা অনুদান ফ্যাশন ডিজাইনারের ]

তবে লকডাউনের পরিস্থিতিতে হেনা বা মেহেন্দির পাতা জোগাড় করা মুশকিল। দোকানই তো বন্ধ। এক্ষেত্রে চা বা কফি আলাদা আলাদাভাবে লাগাতে পারেন। বাদামি রঙের বিভিন্ন শেড পাবেন। তবে উপায় আরও আছে। বিট বা গাজরের রস। নারকেল তেলের সঙ্গে বিটের রস মিশিয়ে চুলে লাগাতে পারেন। এক্ষেত্রে চুলে হালকা লালচে এফেক্ট আসবে। একটু হালকা ভিন্ন ধরনের শেড পেতে ব্যবহার করতে পারেন গাজরের রস। প্রথমে গাজর পুচি কুচি করে কেটে নিন। এরপর মিক্সিতে পেস্ট করুন। এবার নারকেল তেল বা অলিভ তেলের সঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট বানান। সেটি মাথায় লাগিয়ে রাখুন দু’ ঘণ্টা। তার পর চুলে শ্যাম্পু করে নিন।
তবে ঘরোয়া পদ্ধতিতে চুল রং করলে মাথায় রাখবেন স্ট্রেটনার বা হেয়ার ড্রায়ার বেশি ব্যবহার করবেন না। এতে চুলের রং যেমন তাতাড়ি নষ্ট হতে পারে, তেমনই নষ্ট হতে পারে চুলও। একইভাবে চুল ধোয়ার ক্ষেত্রে অতিরিক্ত কেমিক্যাল যুক্ত শ্যাম্পু এড়িয়ে যান। গরম জলে চুল ধোবেন না। প্রয়োজন হলে ঈষৎ উষ্ণ জল ব্যবহার করতে পারেন।

[ আরও পড়ুন: পোশাকের সঙ্গে মাস্কের রংমিলান্তি, নেটদুনিয়ায় নজর কাড়লেন স্লোভাকিয়ার প্রেসিডেন্ট ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement