BREAKING NEWS

১১ কার্তিক  ১৪২৭  বুধবার ২৮ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

প্রচারের ফাঁকে প্রার্থীর পাতে থাক এই পদগুলি, রইল রেসিপি

Published by: Sayani Sen |    Posted: March 19, 2019 9:06 pm|    Updated: April 17, 2019 2:31 pm

An Images

ভোট যুদ্ধ শুরু। জমে উঠেছে প্রচার। বিপক্ষকে গলা ফাটিয়ে তুলোধোনা করার ফাঁকে সচেতন হতে হবে পেট নিয়েও। গলা ভেজানোর তেমনই কিছু রেসিপি দিলেন সুস্মিতা মিত্র

সুগন্ধী গন্ধরাজ ঘোল
উপকরণ:
দই: ২ কাপ
বরফ কুচি: ১/২ কাপ
গন্ধরাজ লেবুর খোসা: ১ চামচ (গ্রেট করা)
চিনি গুঁড়ো: ১ কাপ
জল: ৪ কাপ
নুন: ১ চামচ
চাট মশলা: ১ চামচ
গন্ধরাজ লেবুর পাতা: ৪ টি
প্রণালী:
দই, জল, বরফ কুচি, গুঁড়ো চিনি, নুন, চাট মশলা একসঙ্গে ব্লেন্ডারে ভাল করে মিশিয়ে নিন। গ্লাসে ঢেলে গ্রেট করা গন্ধরাজ লেবুর খোসা আর পাতা দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

[হোলিতে মিষ্টিমুখ, রইল বিশেষ দু’টি পদ বানানোর পদ্ধতি]

ডাবের জল আর শসার কুলার
উপকরণ:
ডাবের জল: ৪ কাপ
গুঁড়ো চিনি: ২ টেবিলচামচ
কুচি করা শসা: ১/২ কাপ
বরফ কুচি: আন্দাজমতো
জলজিরা: ১ চামচ
পুদিনা পাতা
শসার স্লাইস
প্রণালী:
মিক্সিং জারে শসা কুচি, ডাবের জল, বরফ কুচি, জলজিরা, গুঁড়ো চিনি দিয়ে ভাল করে ব্লেন্ড করুন। গ্লাসে ঢেলে স্লাইস করা শসা আর পুদিনা পাতা দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

[রঙের উৎসবে ঠান্ডাই চাই-ই-চাই, জেনে নিন কীভাবে বানাবেন]

সবজি দিয়ে চিড়ের পোলাও:
উপকরণ:
চিড়ে: ২ কাপ
সবজি কুচানো: পছন্দ মতো ১ কাপ
নুন, চিনি: স্বাদ মতো
পিঁয়াজ কুচি: ২ চামচ
চিনেবাদাম: ২ চামচ
হলুদগুঁড়ো: ১/২ চামচ
কারিপাতা
কালো সরষে: ১/২ চামচ
কাঁচালঙ্কা কুচি: ১ চামচ
সাদা তেল: ২ চামচ
প্রণালী:
চিড়ে ধুয়ে জল ঝরিয়ে রাখুন। তেল গরম করে বাদাম ভেজে তুলে রাখুন। ওই তেলে কালো সরষে আর কারিপাতা ফোড়ন দিয়ে একে একে পিঁয়াজ কুচি, কাঁচা লঙ্কা কুচি, কুচানো সবজি, নুন, চিনি, হলুদ গুঁড়ো দিয়ে ভাজা ভাজা হলে ধুয়ে রাখা চিড়ে আর ভাজা বাদাম দিয়ে মিশিয়ে কিছু সময় রেখে নামিয়ে নিন।

[মাটনে মজে বাঙালি, রইল পাঁঠার মাংসের নতুন রেসিপি]

তেল ছাড়া গ্রিলড চিকেন
উপকরণ:
বোনলেস চিকেন: ২০০ গ্রাম
আদা-রসুন বাটা: ১ চামচ
নুন: স্বাদ মতো
লঙ্কা গুঁড়ো: ১ চামচ
গরম মশলা: ১/২ চামচ
কসৌরি মেথি: ১ চামচ
দই: ২ চামচ
প্রণালী:
একটি পাত্রে সব উপকরণ নিয়ে ভাল করে মেখে ফ্রিজে রাখুন অন্তত ২ ঘণ্টা। গ্রিল করা তাওয়া রেখে গ্রিল করুন ১০ মিনিট। স্যালাড আর ধনেপাতার চাটনি-সহ পরিবেশন করুন।

[ইন্দো-মেক্সিকান মকটেল আর স্ন্যাকসে জমে উঠুক বসন্তের মনোরম উইকএন্ড]

তেঁতুল আর পুদিনার শরবত
উপকরণ:
তেঁতুলের ক্বাথ: ১ কাপ
আখের গুড়: ১/২ কাপ
ভাজা জিরে গুঁড়ো: ১ চামচ
নুন: স্বাদ মতো
পুদিনা পাতা কুচি: ১ চামচ
বরফ কুচি: আন্দাজমতো
প্রণালী
তেঁতুলের ক্বাথ, আখের গুড়, ভাজা জিরে গুঁড়ো, গুঁড়ো চিনি, বরফ কুচি আর পরিমাণ মতো জল দিয়ে ভাল করে ব্লেন্ড করুন। গ্লাসে ঢেলে পুদিনা পাতা কুচি ছড়িয়ে পরিবেশন করুন।

[চটপট ‘ওয়ান পট’, এক পাত্রে রান্নার রেসিপি ও ইতিহাস]

স্যালাড স্যান্ডউইচ:
উপকরণ:
ব্রেড স্লাইস: ৪ পিস
শসা, পিঁয়াজ, টমেটো: স্লাইস করা 
নুন, গোলমরিচ গুঁড়ো: স্বাদ মতো
চাট মশলা: ১/২ চামচ
মেয়োনিজ: ৪ চামচ
লেবুর রস: ১ চামচ
প্রণালী:
ব্রেড স্লাইসে মেয়োনিজ মাখিয়ে একে একে স্লাইস করা পিঁয়াজ, শসা, টম্যাটো দিয়ে উপর থেকে নুন, চাট মশলা, লেবুর রস ছড়িয়ে দিন। উপর থেকে আর—একটি স্লাইসড ব্রেড দিয়ে ঢেকে পরিবেশন করুন। সঙ্গে ডিমসিদ্ধ আর পছন্দ মতো ফল দিতে পারেন।

[শরীর সুস্থ রাখতে কখন কী খাচ্ছেন, লিখে রাখুন ডায়েরিতে]

টিপস:
১.
জল তেষ্টা পাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করবেন না। অন্তত ৬-৮ গ্লাস জল খান।
২. কী কী খাবেন?
ডাবের জল, তাজা ফলের রস, নুন চিনির জল, ঘোল, স্যালাড, টকদই।
৩. কী কী খাবেন না?
অতিরিক্ত ভাজাভুজি, কৃত্রিম রং দেওয়া শরবত, বেশি মশলা যুক্ত খাবার, রাস্তার কাটা ফল।
৪. গরমকালে হজমের সমস্যা হতে পারে। হালকা সহজপাচ্য খাবার খান। খাওয়ার ১ ঘণ্টা আগে ১ গ্লাস জল খান।
৫. সঙ্গে রাখুন নুন-চিনির জল। সুযোগমতো মাঝে মাঝে খান।
৬. চড়া রোদের থেকে বাঁচতে সানস্ক্রিন, ছাতা ও সানগ্লাস ব্যবহার করুন।
৭. রোদে ঘুরে শরীর খারাপ লাগলে কানের পিছনে, ঘাড়ে, মুখে ঠান্ডা জলের ঝাপটা দিন। খোলামেলা জায়গায় থাকুন।
৮. হালকা সুতির ঢিলেঢালা জামাকাপড় পরুন।
৯. রোজকার খাবারে কাঁচা পিঁয়াজ আর শসা রাখুন। শরীর ঠান্ডা থাকবে।
১০. প্রাতরাশে প্রচুর ফল খেতে চেষ্টা করুন। ডিহাইড্রেশনের সমস্যা হবে না।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement