৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গ্রীষ্মের তীব্র দহনে চেনা স্বাদের অঙ্গন ছেড়ে একটু অন্য স্বাদের পরশও কখনও পেতে চায় মন। আর সেই স্বাদ যদি হয় কন্টিনেন্টাল। একই প্লেটে ইতালিয়ান, মেক্সিকান, চাইনিজ ও আমেরিকান স্বাদের বাহারি ছোঁয়া। তাহলে আনন্দে ভরে ওঠে মন। শহর তিলোত্তমার অন্যতম রেস্তরাঁ ‘ইকোস’-এ রয়েছে এমনই বাহারি রসনার স্বাদ। রসনা তৃপ্তি ঘটানোর পাশাপাশি যা আপনাকে দেবে মন ছোঁয়া অনুভূতি। কন্টিনেন্টালের সঙ্গে ফিউশনের
এমন জমাটি মিশ্রণে অন্যরকমের চার স্বাদের ছোঁয়া রইল পাঠকদের জন্য।

[আরও পড়ুন: আমের বাহারি রেসিপি, চটজলদি বানিয়ে ফেলুন আপনিও]

তন্দুরি সোয়া চাঁপ
উপকরণ: সোয়া চাঁপ-৬ পিস, রিং বা গোল করে কাটা পিঁয়াজ- ১০০ গ্রাম, রুমালি রুটি-১টি, পুদিনার চাটনি-১ বাটি।
রেড মশলার জন্য – ব্ল্যাক সল্ট (স্বাদ অনুযায়ী), নুন- স্বাদ অনুযায়ী, কাঁচা লঙ্কা-৩ গ্রাম, আদা-রসুন বাটা – ১০ গ্রাম, জল ঝরানো দই-২০০গ্রাম, লঙ্কাগুঁড়ো – ৫ গ্রাম, জিরে গুঁড়ো – ৪ গ্রাম, গরম মশলা – ২ গ্রাম, সরষের তেল-৫০ গ্রাম।

হোয়াইট মশলা (মালাইয়ের জন্য) – কাজু বাটা-১৫০ গ্রাম, সাদা মরিচগুঁড়ো-৫ গ্রাম, নুন স্বাদ অনুযায়ী কুচানো কাঁচা লঙ্কা – ৩ গ্রাম, ক্রিম-১০০ গ্রাম, এলাচ গুঁড়ো-১ গ্রাম।
তৈরির প্রণালী : প্রথমে মিক্সিতে রেড মশালার যাবতীয় উপকরণগুলিকে নিয়ে পেস্ট তৈরি করে একটি বাটিতে রেখে দিন। এবার হোয়াইট মশলার যাবতীয় উপকরণগুলিকে মিক্সিতে নিয়ে পেস্ট তৈরি করে আলাদা একটি বাটিতে রেখে দিন। এবার সোয়া চাঁপের ৩টি টুকরোকে নিয়ে কেটে ৬ টুকরো করে নিন। সোয়া
চাঁপগুলিকে রেড মশলা বা হোয়াইট মশলা (যেরকম স্বাদ আপনার পছন্দের) মাখিয়ে ম্যারিনেট করে তন্দুর শিকে লাগিয়ে তন্দুরে দিয়ে ভালমতো রান্না করুন। এবার রুমালি রুটি, গোল করে কাটা পেঁয়াজ ও পুদিনার চাটনি সহযোগে গরমাগরম পরিবেশন করুন।

tandoori

পেপার মাই ওয়ে (পনির)

উপকরণ: পনিরের টুকরো – ১০০ গ্রাম, গোলমরিচ গুঁড়ো – ৩ গ্রাম, অরিগ্যানো – ১ গ্রাম, ফ্রেশ থিম অ্যান্ড রোজমেরি -২ গ্রাম, মোজারেলা চিজ – ৫ গ্রাম, হোয়াইট চেভার – ৫ গ্রাম, মাখন -১ টেবিল চামচ, ক্রিম-১ টেবিল চামচ, হোয়াইট সস।

[আরও পড়ুন: বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন মোমো-মাখানি পাস্তার মতো সুস্বাদু খাবার]

হোয়াইট সস তৈরির জন্য: মাখন-২ টেবিল চামচ, ময়দা-২ টেবিল চামচ, দুধ- ১/৪ কাপ, হাফ অনিয়ন স্টাডেড সহ ৪টি লবঙ্গ, জায়ফলগুঁড়ো-২ গ্রাম, নুন ও মরিচ-স্বাদ অনুযায়ী। হার্ব রাইস তৈরির জন্য, সিদ্ধ চাল – ১০০ গ্রাম, মাখন – ১ চা চামচ, কুচানো গাজর – ১০ গ্রাম, কুচানো বিনস – ১০ গ্রাম, কুচানো পার্সলে – ৫ গ্রাম, কুচানো পুদিনা – ৩ গ্রাম। গ্রিলড ভেজিটেবিলসের জন্য, টুকরো করা বিনস – ১০ গ্রাম, কিউব করে কাটা বেল পেপার বা ক্যাপসিকাম – ১০ গ্রাম, বেবি কর্ন
(টুকরো করে কাটা) – ৫ গ্রাম, গাজর-১০ গ্রাম, আমেরিকান কর্ন – ৫ গ্রাম, মাখন-১/২ চা চামচ, চিলি ফ্লেক্স-১ গ্রাম, অরিগ্যানো-১ গ্রাম, নুন ও মরিচ-স্বাদ অনুযায়ী।

paneer
তৈরির পদ্ধতি: প্রথমে হোয়াইট সসটি তৈরির জন্য একটি প্যানে মাখন দিয়ে গরম করুন। তাতে ময়দা দিয়ে ভাল মতো নাড়তে থাকুন যতক্ষণ না মাখন ও ময়দা একত্রে মিশে হালুয়ার মতো হয়ে যায়। তবে খেয়াল রাখবেন মিশ্রণটির গায়ে যেন কোনওরকম রং না ধরে। মিশ্রণটি যেন সাদা থাকে।এবার মিশ্রণটির মধে্য ধীরে ধীরে ঠান্ডা দুধ ঢেলে নাড়তে থাকুন। লক্ষ রাখবেন মিশ্রণটি যেন পিণ্ডের আকার ধারণ না করে বা ডেলা পাকিয়ে না যায়। দুধ ও ময়দার মিশ্রণটি পুরোপুরি হয়ে গেলে এতে খচিত পিঁয়াজরূপী ৪টি লবঙ্গ ও জায়ফলগুঁড়ো দিন সুগন্ধের জন্য। এবার হোয়াইট সসটিকে আলাদাভাবে রেখে দিন। এবার অন্য একটি প্যানে তেল নিয়ে গরম করে তাতে পনিরের টুকরোগুলি দিয়ে ভালমতো ভেজে নিয়ে পাত্রে তুলে টিস্যু পেপারে রেখে দিন। যাতে অতিরিক্ত তেল টিস্যু পেপার শুষে নিতে পারে।এবার প্যানে মাখন দিয়ে গরম করে তাতে গুঁড়ো করা গোলমরিচ দিয়ে তার মধ্যে হোয়াইট সস সহ ফ্রেশ থিম, অরিগ্যানো দিয়ে পরিমাণ মতো নুন দিন। ঢিমে আঁচে কিছুক্ষণ রাখুন। এরপর এতে ক্রিম, চিজ দিয়ে গ্যাস বন্ধ করে দিন, যাতে ক্রিম ঘন না হয়ে যায়।এবার হার্ব রাইস তৈরির জন্য একটি প্যানে মাখন নিয়ে তার মধ্যে গ্রিলড ভেজিটেবিলসের যাবতীয় সবজিগুলিকে নিয়ে ভালমতো সঁতে করুন বা মেশান। ভেজিটেবিল বা সবজিগুলি ভালমতো রান্না হয়ে গেলে ওর মধ্যে সিদ্ধ চাল দিয়ে সামান্য জলের ছিটে দিন। মাঝারি আঁচে ভালমতো মেশান। এতে পার্সলে আন্দাজমতো নুন ও মরিচ ছড়িয়ে দিয়ে নামিয়ে নিয়ে প্লেটে সাজিয়ে পনির ও হোয়াইট সস (ক্রিম ও চিজ দেওয়া) সহযোগে গরমাগরম পরিবেশন করুন।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং