৩ কার্তিক  ১৪২৬  সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুজো মানেই প্যান্ডেল হপিং আর চুটিয়ে পেটপুজো। এক নজরে দেখে নিন পুজোর ক’দিনে শহরের কয়েকটি বিখ্যাত রেস্তরাঁর মেনু। 

পার্ক প্যাভিলিয়ন

পার্ক স্ট্রিটের জেমসন ইন সিরাজের রেস্তোরাঁ কাম কফি শপ ‘পার্ক প্যাভিলিয়ন’, এবারের পুজোয় মোগলাই ও বাঙালি খাবারের রসনাকে সজ্জিত করে তাদের নিবেদন ‘শাহি বাঙালিয়ানা’। স্বাদে-আহ্লাদে পুজোর ক’টাদিন রসনাপ্রেমীদের তৃপ্তির ছোঁয়া দিতে প্রস্তুত তারা। মেনু তালিকার শুরুতেই রয়েছে গন্ধরাজ শিখঞ্জি ও মিষ্টি ঘোল। আমিষ ও নিরামিষ দু’রকম স্বাদবাহার নিয়েই এবার পুজোয় তাদের মেনু তালিকা সাজিয়েছে পার্ক প্যাভিলিয়ন। নিরামিষ স্টার্টারে রয়েছে ভেজিটেবল কাটলেট ও মালাই পনির টিক্কা। আমিষ স্টার্টারে আছে মুর্গ হারিয়ালি কাবাব ও চিংড়ি মাছের চপ। স্যালাড-এর বারের মধ্যে রয়েছে- গ্রিন স্যালাড, থ্রি বিনস স্যালাড, গ্রিক স্যালাড, তাবুলেহ, পাস্তা স্যালাড (সরষে দিয়ে ড্রেসিং করা), তন্দুরী ভেজ স্যালাড, লাচ্ছা অনিয়ন, গন্ধরাজ লেমন, প্রিকল বা আচারী অনিয়ন, মিক্সড রায়তা, রোস্টেড পাঁপড়, ডিস্কো পাঁপড়, কাঁচা লঙ্কার আচার, পাতিলেবুর আচার, পেঁপের চাটনি ও আমসত্ত্ব খেঁজুরের চাটনি। মেন কোর্সে আমিষ পদের মধ্যে রয়েছে মোগলাই পোস্ত বিরিয়ানি, আফগানি মুর্গ মশালা, মাছের কালিয়া ও নারকেল-লাউ চিংড়ি। নিরামিষ পদের মধ্যে রয়েছে নবাবী নবরতন কোর্মা, আলু আকবরী, ঝিঙে আলু পোস্ত, ছানার ডালনা, সুলতানি খুসখা, পোলাও রত্ন, ওয়ারকুই পরাঠা ও রাধাবল্লভি। শেষ পাতে রয়েছে মুখমিষ্টিরও ভরপুর আয়োজন, ডেজার্টের মধ্যে রয়েছে–মিষ্টি দই, গুড়ের রসগোল্লা, ছানা জিলিপি, পিস্তা ফিরনি, ক্ষীরের পাটিসাপটা এবং জোয়াখ-ই-শাহি।

 

ফ্রাইডে রিলিজ

সল্টলেকের সেক্টর ১ স্থিত রেস্তোরাঁ ‘ফ্রাইডে রিলিজ’ও প্রস্তুত তাদের অনন্য খাদ্যসম্ভারকে সাজিয়ে নিয়ে। পুজোর ক’টা দিন রসনাপ্রেমীদের তৃপ্ততার পরশ দিতে প্রস্তুত তারাও। এবার পুজোয় ‘ফ্রাইডে রিলিজ’ রেস্তোরাঁর নিবেদন ‘পুজোর ভূরিভোজ’। ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে ৮ অক্টোবর পর্যন্ত চলা এহেন ভূরিভোজে এবার রয়েছে নানারকম জিভে জল আনা সব পদ। মেনু তালিকায় চোখ রাখার আগে এদের রেস্তোরাঁয় পুজোর আয়োজনের দিকে তাকালে নবরাত্রি পর্যন্ত সবদিন জুড়েই রয়েছে আ-লা-কার্টে মেনু। ষষ্ঠী, সপ্তমী, অষ্টমী, নবমীতে রয়েছে স্পেশাল পুজো বাফেট। মেনু তালিকায় রয়েছে আ-লা-কার্টেতে পমফ্রেট তাওয়া মশলা, মটন বোটি কাবাব, প্রন গার্লিক পেপার, হরিয়ালি আলু, বাসন্তী পোলাও। ককটেলসের মধ্যে রয়েছে সপ্তমী চিলি ব্লু ও দশমী কুমকুম বুস্টার, মকটেলসের মধ্যে রয়েছে রোজি অষ্টমী ও নবমীকুলার। আ-লা-কার্টেতে রসনাতৃপ্তি করতে দু’জনের খরচ পড়বে কর ব্যতীত ৮০০ টাকা এবং বাফেটের ক্ষেত্রে ষষ্ঠী, সপ্তমী ও অষ্টমীতে খরচ পড়বে কর ব্যতীত ৬৯৯ টাকা এবং নবমীর দিন কর ব্যতীত ৭৯৯ টাকা।

চ্যাপ্টার ২

দুর্গাপুজোর চার দিন যদি বাঁধা ছকের বাইরে গিয়ে ডুব দিতে চান কন্টিনেন্টাল রসনা স্বাদে, তাহলে আপনার ডেস্টিনেশন হতেই পারে সল্টলেকের মানি স্কোয়্যার মলস্থিত রেস্তোরাঁ ‘চ্যাপ্টার ২’। পুজোর ক’টা দিন অর্থাৎ পঞ্চমী-দশমী পর্যন্ত দুপুর ১২টা থেকে রাত্রি ১০.৩০টা পর্যন্ত একগুচ্ছ বাহারি স্বাদের মেনুকে নিয়ে হাজির তারা। অনন্য এই বাহারি স্বাদের বাহার আপনাকে তৃপ্তির পরশ দেবে একথা হলফ করে বলা যায়। রয়েছে আ-লা-কার্ট ও বাফেট দু’রকমের ব্যবস্থাপনাই। আ-লা-কার্টেতে মেনু তালিকায় রয়েছে- হাওয়াইয়ান চিকেন স্যালাড, সি-ফুড চাউডার, প্রণ ককটেল, মাশরুম ককটেল, ডেভিলড ক্র‌্যাব, ল্যাম্ব পেপার স্টিক, গ্রিলড ভেটকি অ্যান্ড প্রণ স্টিক, জাম্বো প্রণ থার্মিডর, ভেটকি লেমন গ্রিলড, চিকেন কার্বোনারা, ল্যাম্ব মৌলাস, স্প্যাগেটি কেলগনাইস, জুসি পর্ক স্পেয়ার রিবস, স্প্যাগেটি ইন টম্যাটো সস ও পান্না কোটা-সহ নানারকম কন্টিনেন্টাল পদ।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং