BREAKING NEWS

৩২ আষাঢ়  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৬ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

রক্ত পরীক্ষার ফলাফল বলে দেবে আপনার মৃত্যুর সময়!

Published by: Bishakha Pal |    Posted: August 26, 2019 7:09 pm|    Updated: August 26, 2019 7:10 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কবি বলেছিলেন, মানুষ যার সম্পর্কে জানে না, তাতেই তার ভয়। তার উপর মৃত্যু নিয়ে তো কোনও নিশ্চয়তাই নেই। তাই ওখানেই ভয়টা সবথেকে বেশি। কিন্তু বিজ্ঞান যেভাবে ঝড়ের গতিতে এগোচ্ছে, তাতে আর হয়তো বছর কয়েকের অপেক্ষা। তারপরই মানুষ জানতে পারবে, তার আয়ু আর কতদিন।

নেদারল্যান্ডের বিজ্ঞানীরা সম্প্রতি এই নিয়ে গবেষণা করেছেন। শোনা যাচ্ছে, গবেষণায় নাকি সফলও হয়েছেন তাঁরা। জার্নাল অফ নেচার কমিউনিকেশনসে এটি প্রকাশিত হয়েছে। বিজ্ঞানীদের দাবি, আগামী ১০ বছরের মধ্যে আপনি মারা যাবেন কিনা, তা বলে দেবে একটা মাত্র রক্ত পরীক্ষা। সেই পরীক্ষার রিপোর্ট নাকি ৮০ শতাংশরও বেশি সফল। ১৮ থেকে ১০৯ বছর বয়সী ৪৪ হাজার ১৬৮জন মানুষের মধ্যে গবেষণাটি চালানো হয়। গবেষণায় ব্যবহার করা হয় রক্তের মেটাবলিক পদার্থ। এছাড়া রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ, কেলেস্টেরল ইত্যাদি ১৪টি ফ্যাক্টর বিশ্লেষণ করা হয় বলে জানা গিয়েছে।

[ আরও পড়ুন: কণ্ঠস্বর হারিয়েছেন? দ্রুত তা ফিরে পেতে মেনে চলুন এই নিয়মগুলি ]

বিজ্ঞানীদের দাবি, যদি কেউ তাঁর মৃত্যু সম্পর্কে আগাম সতর্কবার্তা পেয়ে যায়, তাহলে অনেক অসমাপ্ত কাজ করে ফেলা সম্ভব। হাতে ঠিক কতটা সময় রয়েছে, তা জানতে পারলে সেইভাবে সবাই তাদের কাজ গোছাবে। যারা পরিবারের কাছে একমাত্র উপর্জনক্ষম ব্যক্তি, তারা পরিবারের বাকি সদস্যদের জন্য কিছু সঞ্চয় করে যেতে পারবে। রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট বলে দেবে আগামী ২ থেকে ১৬ বছরের মধ্যে কারওর মৃত্যুর ঝুঁকি রয়েছে কিনা। ফলে অনেক পরিকল্পনাই সেরে ফেলতে পারবে মানুষ।

তবে রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট যে শুধু মৃত্যুর খবর দেবে, তা নয়। আপনি কতটা সুস্থ থাকবেন, তাও বলে দেবে রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট। আগামী বছরগুলিতে আপনি সুস্থ থাকবেন কিনা, সুস্থ থাকলেও কতটা থাকবেন, তাও বলে দেবে একটা রক্ত পরীক্ষা। এসব জানতে পারলে ঠিকমতো চিকিৎসা করানোরও একটা রাস্তা খুলে যাবে। তবে বিজ্ঞানীরা এও জানিয়েছেন, গবেষণা এখনও সম্পূর্ণ শেষ হয়নি। আরও গবেষণার প্রয়োজন। তাহলে হয়তো আরও অনেক কিছু জানা যাবে, তা নিয়ে এখনও ধন্দ্বে রয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

[ আরও পড়ুন: রঙিন আলোতেই সারবে শরীরের নানা রোগ, বিরল পন্থার খোঁজ দিলেন বিশেষজ্ঞ ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement