BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৪ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

হাতে পরলেই ভাইরাস মারবে এই ‘স্যানিটাইজার রাখি’! দাম কত জানেন?

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: August 1, 2020 10:17 pm|    Updated: August 1, 2020 10:17 pm

An Images

অভিরূপ দাস: অন্যান্য রাখির চেয়ে অল্প দামি। কিন্তু বাঁচিয়ে দেবে মহার্ঘ প্রাণ। এ রাখি হাতে পরলেই মারা যাবে ভাইরাস। রাখির মধ্যেই রয়েছে আইসোপ্রোপাইল অ্যালকোহল। রীতিমতো ৯৯ শতাংশ। ঠাকুরপুকুরের স্বদেশ বসু হাসপাতাল নিয়ে এসেছে এই রাখি। ঠাকুরপুকুর অঞ্চলের নিম্নবিত্ত মানুষদের সামান্য টাকায় চিকিৎসা পৌঁছে দেওয়াই লক্ষ্য যাদের, তারাই বিলি করবে এই রাখি। কীভাবে কাজ করবে স্যানিটাইজার রাখি? ছোট একটা ব্যাটারি রয়েছে এই রাখিতে। রয়েছে স্যানিটাইজার সিলিন্ডার। একটা ক্ষুদ্র নব রয়েছে। সেই নব অন করলেই স্যানিটাইজার বেরোতে থাকবে রাখির মধ্যে থেকে।বাজার চলতি শৌখিন রাখির চেয়ে দাম একটু বেশি। তবে ২৫০ টাকায় মারা যাবে ভাইরাস। আপাতত রবিবার রাখি পূর্ণিমায় এই স্যানিটাইজার রাখি বিলি করা হবে স্বদেশ বসু হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মী-নার্সদের।

অদূর ভবিষ্যতে এই স্যানিটাইজিং রাখি বাজারের দখল নেবে বলে মনে করছেন উদ্যোক্তারা। অন্যান্য রাখির মতো এর জায়গা শোকেসে হবে না। করোনা আবহে একে দীর্ঘসময় ব্যবহার করতে পারবেন সবাই। টানা সুইচ অন করে রাখলে ৭২ ঘন্টা স্যানিটাইজ করা যাবে এই রাখি দিয়ে। আর যদি সাধারণ স্যানিটাইজারের মতো ব্যবহার করা হয় তাহলে নির্দ্বিধায় ২ মাস চলবে। ব্যবহার করেই ফেলে দিতে হবে এমনটাও নয়।হাসপাতালের ম্যানেজমেন্ট কমিটির পক্ষ থেকে সম্পাদক জয়ন্ত ভদ্র জানিয়েছেন, সিলিন্ডার খালি হয়ে গেলে ফের স্যানিটাইজার রিফিলিং করা যাবে।

[আরও পড়ুন: ভিজে, স্যাঁতস্যাঁতে মাস্কেই লুকিয়ে বিপদ, বর্ষায় সঙ্গে রাখুন অতিরিক্ত কয়েকটি]

ইতিমধ্যেই করোনা আতঙ্কে জেরবার বিশ্ববাসী। মাস্ক সকলের মুখে। রাস্তা তো দূর ঘরের ব্যালকনিতে দাঁড়িয়েও মাস্কেই ভরসা। তবে শুধু মাস্ক নয়। মাস্কের পাশাপাশি হ্যান্ড স্যানিটাইজারও এখন ঘরে ঘরে। করোনা হানা থেকে প্রতিরোধ করতে স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধোয়া মাস্ট। ভাইয়ের দীর্ঘায়ু কামনা করে ভাইরাস মারতে স্যানিটাইজার রাখিই ভরসা বোনেদের। করোনা আবহেও একাধিক গুরুত্বপূর্ণ অস্ত্রোপচার করেছে স্বদেশ বসু হাসপাতাল। কলকাতার বেশ কিছু হাসপাতাল কোভিড হাসপাতালে রূপান্তরিত হওয়ায় অসুবিধায় পড়েন অনেক প্রসুতি।

চলতি বছরের মার্চ এপ্রিলেই অনেকের ডেলিভারি হওয়ার কথা ছিল। সন্তানসম্ভবা সেই মায়েরা স্বদেশ বসু হাসপাতালেই ডেলিভারি করান। ২০ হাজারেরও কম খরচে করোনা আবহে অস্ত্রোপচার করেছে স্বদেশ বসু হাসপাতাল। পঞ্চাশ বেড সম্পন্ন এই হাসপাতালে এই মুহূর্তে ২৫ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন।

[আরও পড়ুন: অতিরিক্ত স্যানিটাইজার ব্যবহার করছেন? রয়েছে বিপদের হাতছানি! সাবধান করল স্বাস্থ্যমন্ত্রক]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement