Advertisement
Advertisement

চ্যালেঞ্জ নিয়ে একেবারে ১০০ লঙ্কা খেয়ে কী হাল হল যুবকের?

বেচারার অবস্থা জানলে ঝাল খাওয়ার আগে দ্বিতীয়বার অবশ্যই ভাববেন।

Indonesian blogger went deaf after eating the 'World’s Hottest' noodles
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:August 15, 2017 11:06 am
  • Updated:October 5, 2019 1:01 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইন্ডিয়ান, মোগলাই, চাইনিজ থেকে ইটালিয়ান, জাপানিজ – খাবার যাই হোক না কেন যেখানে ঝাল সেখানেই স্বাদ। যাঁরা ঝাল খেতে ভালবাসেন, তাঁরাই এর কদর জানেন। কিন্তু অতিরিক্ত কোনও কিছুই ভাল নয়। ঝাল তো একদমই নয়। এই শিক্ষা হাতেনাতে পেলেন ইন্দোনেশিয়ার এক ভিডিও ব্লগার ওরফে ভ্লগার। কীভাবে? ঝাল খাওয়ার ফল পেলেন হাতেনাতে।

‘সারাহা’র শিহরণে তিতিবিরক্ত? সব পোস্ট ব্লক করুন এভাবেই

Advertisement

ভিডিও ব্লগার হওয়ার সুবাদে অনেক বিচিত্র অভিজ্ঞতা হয়েছে ইন্দোনেশিয়ার বেন সুমাদিভিরিয়ার। কিন্তু এবারের অভিজ্ঞতা তাঁর সারা জীবন মনে থাকবে। কী করেছিলেন এই ভ্লগার? চ্যালেঞ্জ নিয়ে ১০০টি ঝাল বার্ড’স আই চিলি সম্বলিত নুডলস খেয়ে ফেলেছিলেন তিনি। আর ঝালের চোটে হয়ে গিয়েছিলেন বধির। টানা দু’মিনিট এমন অবস্থা ছিল তাঁর। কানে কিছু শুনতে পাচ্ছিলেন না ইন্দোনেশিয়ার ওই যুবক। ঝাল সইতে না পেরে শেষে পুরো মাথাই ঠাণ্ডা জলে চুবিয়ে দেন। তখন কিছুটা রেহাই মেলে। তারও কিছুক্ষণ পরে সব ঠিক হয়।

Advertisement

[আন্টার্কটিকায় বরফের চাঁই-এর তলায় জ্বলছে ৯১টি আগ্নেয়গিরি!]

কিন্তু কেন এমনটা হল বেনের? বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মানুষের মুখগহ্বরের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত কান ও নাক। ঝালের চোটে যেমন নাক দিয়ে জল গড়িয়ে পড়ে, তেমনই কানও বন্ধ হয়ে যেতে পারে সাময়িকভাবে। ঠিক ঠাণ্ডা লাগলে যেমনটা হয়। আর বেন খেয়েছিলেন ১০০টি  বার্ড’স আই চিলি সম্বলিত নুডলস। যা বিশ্বের অন্যতম ঝাল লঙ্কা হিসেবে বিবেচিত হয়। হালাপিনোর থেকেও ৪৫ গুণ বেশি ঝাল। সে কারণেই তাঁর এমন অবস্থা হয়েছে। আর অতিরিক্ত ঝাল খেয়ে মুখগহ্বরের পাশাপাশি খাদ্যনালী ঝলসে যাওয়ারও প্রবল সম্ভাবনা থাকে। তাই ঝালপ্রিয় খাদ্যরসিকদের একটু সমঝে চলার পরামর্শই দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। আর কেউ মানুন আর না মানুন, বেন তো এবার থেকে এই পরমর্শ নিশ্চয়ই মেনে চলবেন।

[৭ তলা থেকে মাটিতে আছড়ে পড়ল BMW, চালকের কী হল জানেন?]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ