২৮ আশ্বিন  ১৪২৬  বুধবার ১৬ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

কোয়েল মুখোপাধ্যায়:  রাতে ঘুমের মধ্যে ছটফট করেন? গলা শুকিয়ে কাঠ হয়ে যায়? বুক ধড়ফড় করে ওঠে? এসি ঘরে থেকেও কিংবা ফুল স্পিডে চলা পাখার নিচে শুয়েও ভয়ে ঘামে ভিজে যায় পরনের নাইট ড্রেসটা? আর বার বার মৃত্যুর স্বপ্ন দেখেন? নিজের বা অন্য কারও? চেনা হোক বা অচেনা,  প্রিয় কেউ হোক বা একেবারে ‘চোখের বালি’- স্বপ্নে বার বার কি কাউকে পৃথিবীর মায়া কাটিয়ে চলে যেতে দেখেন? অসহায়ভাবে? এড়িয়ে যাবেন না। অবহেলাও করবেন না। কারণ, আপনার স্বপ্নটা ফেলনা নয়। সে আপনাকে কিছু বলতে চাইছে। কোনও বিশেষ বার্তা দিতে চাইছে। হয়তো অবচেতনেই।

[জানেন, সঙ্গমের স্বপ্ন আপনার বাস্তব জীবনে কী সংকেত দেয়?]

কী সেই বার্তা? এক নয়। হতে পারে একাধিক। বিশেষজ্ঞরা বলেন, বার বার মৃত্যুর স্বপ্ন দেখার সবচেয়ে যুক্তিগ্রাহ্য এবং সম্ভাব্য কারণ  নিজের জীবন থেকে কোনও অধ্যায়কে মুছে ফেলার সুতীব্র তাগিদ। আপনার জীবনের এমন কোনও একটা সময়, যার কথা মনে পড়লেই রাগে-দুঃখে এবং অভিমানে আপনার অন্তরাত্মা রক্তাক্ত হয়ে ওঠে, যার বিরুদ্ধে সঙ্গে সঙ্গে বিদ্রোহ করে ওঠে, সেই অবাঞ্ছিত মুহূর্তগুলিকে জীবনের টাইমলাইন থেকে বাদ দেওয়ার ইচ্ছাই ভেসে ওঠে স্বপ্নে।

সকালে উঠে এই ৬ কাজ অবশ্যই করুন, আপনার দিন বদলে যাবে]

দ্বিতীয় বার্তা হতে পারে,  খুব প্রিয় এবং কাছের মানুষকে হারানো। এবং সেই কষ্ট সহ্য করে উঠতে না পারা। আবার এই বিষয়ের একটি সম্পূর্ণ বিপরীত ব্যাখ্যাও দিয়েছেন স্বপ্নবিশারদ লরেন লরেন্স। তাঁর দাবি, হয়ত কোনও ব্যক্তির উপর আপনি অত্যন্ত রেগে আছেন কিংবা তাঁর কোনও কাজে আপনি অত্যন্ত বিরক্ত। সেক্ষেত্রে সেই রাগ বা বিরক্তিই প্রতিফলিত হয় মৃত্যুর স্বপ্নে। তবে অস্বস্তিদায়ক এই অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসার উপায় আছে বইকি। সন্ধি করে, কথা বলে সমস্যা মিটিয়ে নেওয়া। ‘ফ্রেন্ডস এগেইন’?

[পুনর্ব্যবহারযোগ্য কন্ডোম বিকোচ্ছে অনলাইনে, জানেন এর বৈশিষ্ট্য?]

ব্যাখ্যা আরও আছে। যদি কোনও ব্যক্তি নিজের প্রতিই কোনও কারণে মনে মনে অসন্তোষ পুষে রাখে, তবে সে তার স্বপ্নে একাধিক বার মরণের ওপারে যাওয়ার দৃশ্য দেখতে পারে। এছাড়াও যদি  প্রিয় মানুষটি বিপদে পড়েছে। কিন্তু, আপনাকে জানাতে পারছে না। সেক্ষেত্রে মৃত্যু স্বপ্ন দেখতে পারেন আপনি। তবে কারণ যাই হোক না কেন,  চূড়ান্ত অস্বস্তিকর এই স্বপ্নের হাত মুক্তি পেতে গেলে নিজেরকে সময় দিতে হবে। নিজের বিশ্লেযণ করতে হবে। তবে সমাধান সম্ভব।

[আত্মপ্রকাশ আঙুলের থেকেও ছোট, কয়েনের চেয়েও হালকা মোবাইল ফোনের]

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং