১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জন্ম-মৃত্যু সবই বিধাতার হাতে। কে যে কখন মারা যাবেন তার কোনও নিশ্চয়তা নেই। হাজারও রোগভোগের পর অনেকে মারা যান। আবার কখনও সুস্থ মানুষ ঘুমের মধ্যেই মারা যান। তাঁর আশেপাশের মানুষেরাও বুঝতে পারেন না কখন প্রিয়জন অমৃতলোকের পথে পাড়ি দিয়েছেন। অনেকেই সান্ত্বনা দেন, এভাবে মৃত্যুর মতো শান্তির বোধহয় আর কিছুই নেই। কিন্তু সত্যি কি তাই? ঘুমের ঘোরে যিনি মারা যান, তিনি কি সত্যি কোনও কষ্টভোগ করেন না? সে উত্তর পাওয়া অবশ্য বড় কঠিন। তার চেয়ে বরং জেনে নিন কী কী কারণে ঘুমের মধ্যেই মারা যান অনেকে।

[আরও পড়ুন: নেট তথ্যে বিপত্তি, ডেঙ্গু রোগীদের মর্মান্তিক পরিণতির দিকে ঠেলে দিচ্ছে পেঁপে পাতা]

ঘুমের মধ্যে অনেক সময় হৃদযন্ত্রজনিত সমস্যা দেখা যায়। তার ফলে আমাদের শরীরে আচমকাই রক্ত সঞ্চালন বেড়ে যায়। তাই কিছু বুঝে ওঠার আগেই স্ট্রোক হয়েই ঘুমের মধ্যে মারা যান অনেকেই। এছাড়া হৃদযন্ত্র ঠিকমতো কাজ না করলে দম আটকেও মৃত্যু হয় কারও কারও। এমনকী, মাত্রাতিরিক্ত ওজন ঘুমের মধ্যে আপনার মৃত্যু ডেকে আনতে পারে। 

Cardiac Arrest

[আরও পড়ুন: বিকল্প ওষুধ তৈরিতে জোর, ঔষধি গাছ নিয়ে পেরুর সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ ভারত]

আপনার কি নাক ডাকার সমস্যা রয়েছে? স্লিপ অ্যাপনিয়ার কারণেও নাক ডাকার সমস্যা হতে পারে। যা ঘুমের মধ্যে অকালমৃত্যুর ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয় বেশ খানিকটা। এছাড়া স্লিপ ডিসঅর্ডারের মতো সমস্যাও ঘুমের মধ্যে মৃত্যুতে অনেকাংশেই দায়ী। নয়া এক গবেষণায় জানা গিয়েছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রায় ৩ কোটি মানুষ ‘স্লিপ অ্যাপনিয়া’য় আক্রান্ত। তাই নাক ডাকার সমস্যাকে অবহেলা করবেন না। আজই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

Snoring

ঘুমের মধ্যে ভুলভাল স্বপ্ন দেখেন অনেকেই। তার জেরে খুব ভয় পেয়ে অনেক সময়েই কারও কারও ঘুম ভেঙে যায়। তার ফলে মৃত্যু হয়তো আটকানো সম্ভব। কিন্তু গবেষণা বলছে, স্বপ্ন দেখে খুব ভয় পাওয়ার পরেও ঘুম না ভাঙলে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।

Bad dream

[আরও পড়ুন: দংশন করেছে বিষধর কালাচ? এই লক্ষণগুলি দেখা মাত্রই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন]

বদ্ধ ঘরে দরজা, জানলা বন্ধ করে ঘুমোতে গেলেও মৃত্যুর আশঙ্কা বাড়তে পারে। কারণ বন্ধ ঘরে কার্বন মনোক্সাইড তৈরি হয় খুব সহজেই। যার প্রভাবে অনেক সময় ঘুমের মধ্যে মৃত্যু হতে পারে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং