৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আর মাত্র হাতেগোনা কয়েকটা দিন। পুজো প্রায় এল বলে। কেনাকাটা থেকে পুজোয় মণ্ডপে মণ্ডপে ঘোরার পরিকল্পনা সবই মোটামুটি হয়ে গিয়েছে। কিন্তু আপনি কি ভিড়ের মাঝে ব্যতিক্রমী? ভিড় ঠেলে প্রতিমা দর্শন এক্কেবারে না-পসন্দ আপনার? তবে অনায়াসে ছুটির কটাদিন বাড়িতেই কাটান। একঘেয়ে যাতে না লাগে তাই অবসরে এভাবে কাটাতে পারেন সময়। আপনার জন্য রইল একগুচ্ছ টিপস।

[আরও পড়ুন: ব্ল্যাকবোর্ড ভরানো ছাড়া এসব কাজে অব্যর্থ চকের ব্যবহার, আগে জানতেন?]

আপনাকে কি বছরের প্রত্যেক দিন সকাল হতে না হতেই ব্যাগ কাঁধে নিয়ে অফিস ছুটতে হয়? উত্তর হ্যাঁ হলে এই ছুটির দিন কটা নষ্ট করবেন না। বরং একটু বেশি সময় কাটুক বিছানায়। সকালে দেরি করে ঘুম থেকে উঠুন। ভাতঘুমও না হয় চলুক ওই কটাদিন। আর পারলে রাতেও তাড়াতাড়ি ঘুমোতে যান। পুজোর শেষে ঘোরাফেরা করে যখন সবাই ক্লান্ত, তখন দেখবেন এক্কেবারে তরতাজা হয়ে উঠেছেন আপনি।
sleeping

টিভি দেখতে ভালবাসেন? তবে ঘুম থেকে ওঠার পর বেশি করে টিভি দেখুন। মন চাইলে আগে থেকে বেশ কয়েকটি পছন্দসই সিনেমা ডাউনলোড করে রাখতে পারেন। আর ওয়েব সিরিজই যদি হয় আপনার প্রথম পছন্দ হয় তবে আপনার জন্য রয়েছে ‘নেটফ্লিক্স’, ‘হইচই’-এর মতো একাধিক ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম।
Watching TVমন চাইলে এই সময় বেশি করে ভাল ভাল বই পড়ুন। সঙ্গে শারদীয়া নানা পত্রিকা তো রয়েছে।

Reading-a-book

অবশ্যই মনে রাখতে হবে পুজো মানেই কিন্তু পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানো। তাই পাঁচদিন সমস্ত ব্যস্ততাকে দূরে সরিয়ে রেখে আপনজনদের সময় দিন। মন চাইলে পোষ্যের সঙ্গে কাটাতে পারেন সময়। 

Dog

বাড়িতে বন্ধুবান্ধবদের ডেকে নিয়ে পার্টির বন্দোবস্তও করতে পারেন এই কটাদিন। চুটিয়ে আড্ডা দিলেই দেখবেন আপনার সারা বছর কাজের ক্লান্তি কেটে যাবে খুব সহজেই। 

Party

পুজো মানে বাঙালি খাওয়াদাওয়া করবে না, তা হতেই পারে না। আপনিও ওই ক’দিন না হয় ডায়েট ভুলে যান। বেশি করে ভালমন্দ খাওয়াদাওয়া করুন। বাড়িতে রান্না করতে না চাইলে জোম্যাটো তো আছেই, চিন্তা কী? অর্ডার দিয়ে বাড়িতে এনে কিংবা রেস্তরাঁয় বসেই হোক রসনাতৃপ্তি।

FOOD

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং