×

৯ ফাল্গুন  ১৪২৫  শুক্রবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

৯ ফাল্গুন  ১৪২৫  শুক্রবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

ডা. রামকৃষ্ণ ঘোষমণ্ডল: ছেলের রেজাল্ট খারাপ হলে টেনশন৷ ব্যবসায় লোকসান নিয়ে উদ্বেগ৷ বাবা-মায়ের স্বাস্থ্যের জন্য দুর্ভাবনা৷ মন খারাপ, টেনশন, উদ্বেগ পিছু ছাড়ে না মানুষের৷ কিন্তু জানেন কি টেনশনের সঙ্গে গ্যাস-অম্বলের সম্পর্ক আছে? মামাতো-পিসতুতো ভাইবোনের মতোই!

চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা প্রমাণ পেয়েছেন, দীর্ঘদিন মানসিক উদ্বেগে ভুগলে গ্যাস-অম্বল এমনকী টিউমারও হতে পারে৷ অর্থাৎ মানসিক চিন্তা ডেকে আনে অন্যান্য অসুখকে৷ তাই টেনশনে ভুগলে প্রথমেই মানসিক চিন্তার চিকিৎসা করানো জরুরি৷ হোমিওপ্যাথিতে সেই চিকিৎসা সম্ভব৷ উদ্বেগ কমাতে Staphysagria, Nat Mur, Ignatia, Acid Phos, Gelsemium, Arg. Nit. খুবই উপকারী৷ তবে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া এগুলি খাওয়া চলবে না৷

টেনশন এখন শুধু বড়দের হয় না৷ টেস্টে ভাল নম্বর না পেলে ক্লাস থ্রি-র পুঁচকেরও মনখারাপ হয়৷ স্কুলের প্রোজেক্ট শেষ করতে না পারলে ‘সি’ পাবে৷ এই আতঙ্কে প্রায়ই ভোগে তারা৷ সঙ্গে সঙ্গে শুরু হয়ে যায় পেট ব্যথা৷ হজম হয় না খাবার৷ চট করে এই পেট ব্যথার সঠিক কারণ অনুসন্ধান করা মায়ের পক্ষে সম্ভব হয় না৷ বেশিরভাগ সময়ই অসুখের উৎস না জেনে শুধুমাত্র রোগের চিকিৎসা হয়৷ কাজের চাপ, পড়াশোনার চাপ, পারিবারিক টেনশনে জর্জরিত বেশিরভাগ মানুষ৷ অধিকাংশ ক্ষেত্রে একগাদা টেস্ট করে ওষুধ খাওয়া হয়৷ এতে হয়তো সাময়িক আরাম মেলে, কষ্ট কমে৷ কিন্তু আরোগ্য হয় না৷ এ ক্ষেত্রে অসুখের আসল কারণ মানসিক চিন্তাকে হোমিওপ্যাথি চিহ্নিত করে পুরোপুরি সারিয়ে তোলে৷

তবে রোগীর চিকিৎসা করতে গেলে একজন হোমিও-চিকিৎসককে ধৈর্যশীল হতে হবে৷ বলতে দ্বিধা নেই, বর্তমানে এক শ্রেণির চিকিৎসক মডার্ন হোমিওপ্যাথির নাম করে স্বল্প সময়ে বাজিমাত করতে গিয়ে এই বিজ্ঞানকে কলুষিত করছেন৷ তবে হোমিওপ্যাথির কার্যকারিতা নিয়ে সাধারণ মানুষ বিভ্রান্ত হবেন না৷ হোমিওপ্যাথি বিশেষজ্ঞের কাছে গিয়ে চিকিৎসা করলে আরোগ্যলাভ হবে৷
যোগাযোগ ০৩৩ ২৬৪১ ০০৪১

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং