৬ শ্রাবণ  ১৪২৬  সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পরিবেশ দূষণ নিয়ে আমরা নানাভাবে সচেতনতা প্রচার করি৷ তবে তার বেশিটাই বাইরের পরিবেশ নিয়ে৷ কিন্তু ঘরের ছবিটা কেমন? কারখানা থেকে গাড়ির ধোঁয়া নিয়ে আমরা যতটা সচেতন, ততটাই কি রান্নাঘরের ধোঁয়া নিয়ে? অথচ পরিবেশ দূষণে এই ধোঁয়ার প্রভাবও কিন্তু কম নয়৷ সম্প্রতি প্রকাশিত এক সমীক্ষা অনুযায়ী বাইরের দূষণের থেকেও রান্নাঘরের ধোঁয়ায় পরিবেশ দূষণের হার অন্তত দশগুণ বেশি৷ এমনকী তা মৃত্যুরও কারণ হয়ে উঠছে৷

উন্নয়নশীল দেশগুলিতেই এ সমস্যা বেশি৷ আজও প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চল কিংবা মফস্বলে জ্বালানি বা কেরোসিন স্টোভেই রান্না করা হয়৷ রান্নার ধোঁয়া রান্নাঘর থেকে বের করার জন্য খুব বিজ্ঞানসম্মত পদ্ধতিও মেনে চলা হয় না৷ ফলে দেদার দূষণের কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে রান্নাঘরের ধোঁয়া৷ যার কোপ প্রধানত পড়ছে মহিলা ও শিশুদের উপরই৷

রান্নাঘরের ধোঁয়ার দূষণ নিয়ে রীতিমতো শঙ্কিত ‘ওয়ার্ল্ড হেল্থ অরগাইনেজশন’ বা ‘হু’ ৷ সম্প্রতি সংস্থা এ নিয়ে তাদের উদ্বেগ প্রকাশ করেছে৷ এই ধোঁয়াই যে উন্নতশীল দেশগুলির জনস্বাস্থ্যে সবথেকে বড় বিপদ হয়ে দাঁড়িয়েছে তাও জানিয়েছে সংস্থাটি৷ ঘরোয়া দূষণে দুনিয়া জুড়ে প্রায় ৪.৩ মিলিয়ন মানুষের মৃত্যু হয়েছে জানিয়েছে সংস্থাটি৷

উন্নত দেশগুলিতে আবার সমস্যা অন্যরকম৷ সেখানে বাড়ি তৈরির উপকরণ থেকে সিগারেট বা তামাকজাত দ্রব্যের দূষণের প্রভাব বেশি৷ তবে উন্নতশীল দেশগুলিতে রান্নাঘরের ধোঁয়াই সবথেকে বড় বিপদ হয়ে দাঁড়িয়েছে৷ মহিলা ও শিশুরা যেহেতু ঘরে বেশিক্ষণ সময় কাটান তাই তাঁরাই এর কু-প্রভাব বেশি ভোগ করছেন৷ জ্বালানির পরিবর্তন ও রান্নাঘরের ধোঁয়া বের করা ব্যবস্থা উন্নত না হলে ওই দূষণ যে আরও মারাত্মক প্রভাব নিতে পারে এমনটাই আশঙ্কা পরিবেশবিদদের৷

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং