৫ আষাঢ়  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আপনি যখন আঙুল ফাটান, তখন ধারে-কাছে থাকা শুভানুধ্যায়ীরা কি বার বার সতর্ক করে দেন? বলেই যান, আঙুল ফাটাতে নেই, তার থেকে ভুগতে হতে পারে বাতের কষ্টে?
ঠিক এই ব্যাপারটাই লাগাতার পনেরো বছর ধরে হয়ে চলেছিল ক্যালিফোর্নিয়া ইউনিভার্সিটির রেডিওলজি বিভাগের নার্স তানিয়া জনসনের সঙ্গে। যখনই আঙুল ফাটাতে মহিলা, বারণ করতেন ডাক্তার রবার্ট জাডো। এক দিন আর থাকতে না পেরে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন তানিয়া! মুখের উপর বললেন, ”প্রমাণ করে দেখান কী ক্ষতি হয়!”
পরিণাম ৪০টি ব্যক্তিকে নিয়ে এক জোরদার সমীক্ষা! যাঁরা মাঝে-মধ্যেই আঙুল ফাটিয়ে থাকেন! যাতে আঙুল ফাটানোর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কোনও ভাবেই নজর এড়িয়ে না যায়, সেই জন্য সমীক্ষায় ব্যবহার করা হয়েছিল আলট্রাসাউন্ড প্রযুক্তি। সেই সমীক্ষাতেই দেখা গেল, আঙুল ফাটানো কোনও ভাবেই শরীরে কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করে না। আর্থ্রাইটিসেরও কোনও সম্ভাবনা নেই আঙুল ফাটানো থেকে!
তবে, এই সমীক্ষা করতে গিয়ে একটা অদ্ভুত ব্যাপারের সম্মুখীন হয়েছেন গবেষকরা। আঙুল ফাটালে ‘মট’ করে যে শব্দটা হয়, সেটা কোথা থেকে হচ্ছে আর কেনই বা হচ্ছে, তার কোনও হদিশ তাঁরা পাননি! সেই জন্যই সমীক্ষা এখনও চলছে, তা শেষ হয়ে যায়নি!
তা, ক্ষতি না-ই বা হল, আঙুল ফাটালে কি শরীরের কোনও উপকার হয়?
সে প্রশ্নের জবাব এখনও পর্যন্ত রয়ে গিয়েছে অধরাই! ঠিক কী উপকার হয় আঙুল ফাটালে বা আদৌ হয় কি না- সেই সব নিয়েই আপাতত মাথা কুটছেন ক্যালিফোর্নিয়ার ওই গবেষক দল!

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং