৭ ভাদ্র  ১৪২৬  রবিবার ২৫ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আগামী এক বছরের মধ্যে কি রোগী কোমা থেকে ফিরবেন? চিকিৎসকদের কাছে এত দিন এই প্রশ্নের উত্তর ছিল না৷ কিন্তু বিজ্ঞানীরা এবার এর উত্তরও খুঁজে বের করেছেন৷ যেসব রোগীরা মস্তিষ্কে আঘাত পেয়ে কোমায় চলে গিয়েছেন, তাঁরা এক বছরের মধ্যে কোমা থেকে বেরিয়ে আসতে পারবে কি না, তা বলে দেবেন বিজ্ঞানীরা৷

দীর্ঘ গবেষণায় বিজ্ঞানীরা জানতে পেরেছেন, মস্তিষ্ক কতটা পরিমাণ গ্লুকোজ (সুগার) গ্রহণে সক্ষম তা দেখে কোমায় চলে যাওয়া রোগীর বর্তমান অবস্থা বলে দেওয়া সম্ভব৷ এই বিষয়টি দেখেই বোঝা যাবে যে এক বছরের মধ্যে রোগী সচেতন হয়ে উঠতে পারবেন কি না৷

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইয়ালে বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক রণ কুপার্স বলছেন, “আমাদের এই গবেষণা থেকে বোঝা যাচ্ছে, মস্তিষ্কে আঘাত লাগার পর চেতনাকে বাঁচিয়ে রাখতে ন্যূনতম শক্তির প্রয়োজন৷ গ্লুকোজই সেই শক্তি জোগাচ্ছে৷” একজন রোগীর মস্তিষ্ক ঠিক কতটা সাড়া দিতে সক্ষম, তা জানতে একটি পরীক্ষা করেন গবেষকরা৷ কোমায় চলে যাওয়া রোগীদের রক্তে গ্লুকোজের সঙ্গে একটি রেডিও অ্যাকটিভ ট্রেসার মলিকিউল ইনজেক্ট করা হয়৷ এর মাধ্যমেই রোগীর বর্তমান অবস্থা বোঝা সম্ভব৷ গ্লুকোজ মেটাবোলিজমের মাত্রা যদি ৪২ শতাংশের নিচে থাকে তাহলে বুঝতে হবে এক বছরের মধ্যে রোগীর কোমা থেকে ফেরার সম্ভাবনা নেই৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং