৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বড়দিনে প্রিয়জনকে ক্যাকটাস উপহার! নতুন ট্রেন্ড রাজ্যে

Published by: Bishakha Pal |    Posted: December 10, 2018 6:18 pm|    Updated: December 10, 2018 6:18 pm

An Images

রিন্টু ব্রহ্ম, কালনা: বড়দিন মানেই চকোলেট, কেকের মতো নানা রকমারি উপহারের সম্ভার। এছাড়াও প্রিয়জনদের জন্য ই-কমার্স সাইট থেকেও স্পেশ্যাল ক্রিসমাস গিফট কেনার ট্রেন্ডও শুরু হয়েছে। তবে এরই মাঝে ক্রিসমাসের জন্য অভিনব উপহার নিয়ে এসেছেন পূর্বস্থলীর নার্সারি ব্যবসায়ীরা। সুদূর ব্রাজিলের বিখ্যাত ক্রিসমাস ক্যাকটাস ট্রি এখন মিলছে পূর্বস্থলীতে। তাই প্রিয়জনকে বড়দিনের উপহার দিতে পরিবেশপ্রেমীদের প্রথম পছন্দ ‘ক্রিসমাস ক্যাকটাস ট্রি’। ফাইবার কিংবা প্লাস্টিকের তৈরি পণ্য সামগ্রী নয়, একেবারে জীবন্ত গাছই উপহার হিসাবে তুলে দেওয়ার ব্যবস্থা করেছেন ব্যবসায়ীরা। বল, ক্রিসমাস বেল ও রঙিন বাল্বের আলোর সঙ্গে সঙ্গে বাড়ির সৌন্দর্য বাড়ানোর পাশাপাশি সবুজায়নের বার্তা দিতেই এই নয়া উদ্যোগ। 

পরিবেশবিদ ও গাছপ্রেমীদের কাছে এবার পছন্দের উপহার হয়ে উঠেছে ক্রিসমাস ক্যাকটাস। সারা বছর ফুল হয় না। কিন্তু বড়দিনের সময় গাছ ভরতি ওঠে নানা রঙিন ফুলে। পরিবেশপ্রেমীদের মতে এই প্রজাতির ক্যাকটাসের নাম হয়েছে ক্রিসমাস ক্যাকটাস। এছাড়াও থ্যাংকস গিভিং ক্যাকটাস, কার্ব ক্যাকটাস, হলিডে ক্যাকটাস নামেও পরিচিত এই গাছ। দক্ষিণ-পূর্ব ব্রাজিলের পার্বত্য অঞ্চলে জন্মালেও ইউরোপের খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের মানুষদের কাছেও এই গাছ খুব প্রিয়। এবার সেই জনপ্রিয়তা এসে পৌঁছেছে এ রাজ্যেও। রাজ্যের মধ্যে ফুল চাষ ও নার্সারি শিল্পের জন্য বিখ্যাত কালনার পূর্বস্থলীতেই একাধিক  নার্সারিতে পাওয়া যাচ্ছে এই ভিন্ন প্রজাতির ক্যাকটাস।

উদ্দাম যৌনতা বা শান্ত আদর, স্বভাব বুঝে কিনুন ম্যাট্রেস ]

ছোট ছোট পাতায় গাছের কান্ড। তারই মাঝে মাঝে একটি করে বৃন্ত থেকে সাদা, বেগুনি, গোলাপি রঙের ফুলে যখন গাছ ঢেকে যায়, তখনই বড় দিনের আমেজ তৈরি হয় বাড়িতে। অল্প মাটি, অল্প সার, কম জলে সামান্য পাত্রেই বেড়ে ওঠে গাছ। এই জনই এই গাছ জনপ্রিয়। পূর্বস্থলীর এক নার্সারি ব্যবসায়ী দীপংকর দত্ত জানান, বর্তমানে শিলিগুড়ি থেকেই এই গাছের চারা আমদানি করে বিক্রি করছেন তাঁরা। দামও সাধ্যের মধ্যে। তাই ক্রেতাদের কাছে এর চাহিদা তুঙ্গে। প্রতিদিনই কয়েকশো করে এই ক্যাকটাস বিক্রি হচ্ছে।

এর আগেই গাছ লাগানোর জন্য মানুষকে প্রেরণা দেওয়ায় জনপ্রিয় শিক্ষক অরূপ কুমার চৌধুরী শিক্ষারত্ন পুরস্কার পেয়েছিলেন। বিয়ে থেকে অন্নপ্রাশন, এমনকী প্রয়াণের স্মৃতি হিসাবেও গাছ উপহার দেওয়ার রীতি চালু করেছিলেন তিনি। তাই এবার বড়দিন ও নতুন বছরের উপহার দিতে এই ক্রিসমাস ক্যাকটাস তাঁর কাছেও খুবই প্রশংসনীয়। তাঁর মতে, “ক্রিসমাস বা বড়দিন যিশু খ্রিস্টের জন্মদিন হিসাবে পালন হয়। বাড়ির বাচ্চা থেকে বড়, সবাই উপহার আদান প্রদান করে। নানা বৈদেশিক উপহারের মাঝে গাছ দেওয়ার রীতি সবুজায়নের বার্তা দেবে।” কালনা মহকুমা উদ্যান পালন আধিকারিক পলাশ সাঁতরা বলেন, “সম্প্রতি এই গাছ খুবই জনপ্রিয়। সামান্য যত্ন করেই আমাদের পরিবেশেই ভাল ফুল দেবে এই ক্রিসমাস ক্যাকটাস।”

ছবি: মোহন সাহা

কম খরচে এভাবেই সাজিয়ে তুলুন বাড়ির মেঝে ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement