৩০ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একটু ডায়েট মেনটেন করলেই আওয়াজ দিতে শুরু করে বন্ধুরা। দু’দিন উপোস করলে চিন্তায় পড়ে যায় বাড়ির লোকজন। এ মেয়ে এবার হাড় জিড়জিড়ে চেহারা বানিয়ে ছাড়বে। দুর্বল মেয়ে এবার হাঁপিয়ে মরবে। কিন্তু এ নিয়ে যে অন্য কথা বলছেন বিশেষজ্ঞরা। আপনার উপোসী ডায়েটই ধরে রাখবে আপনার মুড। বাড়বে ঘুমের পরিমান। বাড়বে সেক্সও।

(আপনার জীবনের গোপন ইচ্ছা কী? বলবে রাশিফল)

পরিমানে কম খাবার খান। কিংবা বারো ব্রতর অজুহাতে বহুদিন না খেয়েই কাটিয়ে দেন অনেকেই। এমনই কয়েকজনকে নিয়ে একটি সমীক্ষা চালায় জেএএমএ ইন্টারন্যাশনাল মেডিসিন। দেখা গিয়েছে, দু‘বছর ধরে এই নিয়মে যাঁরা চলেছেন তাঁদের দৈনন্দিন জীবন অনেক বেশি ঝকঝকে। রাতে ভাল ঘুমও হয় তাঁদের। আর সেক্স লাইফও টানটান উত্তেজনায় ভরপুর।

(স্বপ্নে যাঁদের দেখেন, তাঁদের সম্পর্কে এই তথ্যটি জানেন কি?)

২১৮ জনের একটি দলকে নিয়ে সমীক্ষাটি করা হয়। একদলকে বলা হয়, দু’বছরের মধ্যে তাদের ২৫ শতাংশ ক্যালোরি কমাতে হবে। আরেক দলকে ছাড় দেওয়া হয় পেটপুড়ে খাওয়ার। দেখা গেল, যাঁরা খাবারের লোভ সামলে ফাস্টিং ডায়েটে চলছে, তাঁদের ওজন গড়ে ১০ শতাংশ কমেছে। সঙ্গে বদল এসেছে যাপনচিত্রেও। হতাশাকে অনেকটাই জয় করতে পেরেছেন তাঁরা। রোজকার ঘুমের পরিমানও বেশ বেড়েছে। সেক্সলাইফেও এসেছে বেশি স্ফূর্তি।

(পুরুষাঙ্গ নিয়ে ভুল ভাবনাগুলি ছেড়ে পড়ুন এই প্রতিবেদন)

তবে দু’বছর ধরে ক্যালোরি কমানোর এই পরীক্ষা দেওয়া কিন্তু মোটেই সহজ নয়। অন্তত আমাদের রোজকার জীবনযাত্রাতে তো বটেই। তাই যা করবেন একটু ভেবেচিন্তে।

(যৌনতায় বাড়তি স্ফুর্তি চাই? তাহলে দেখুন এই ভিডিওটি)

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং